ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মুসলিম তরুণদের সামাজিক সক্রিয়তা বেড়েছে জার্মানিতে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

জার্মানিতে দিন দিন মুসলিমদের সংখ্যা বাড়ছে। আর এই কারণেই মুসলিম তরুণদের সামাজিক কাজে অনেক বেশি অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। পাশাপাশি নারীরাও এসব কাজে অংশ নেন। জার্মানির পেডাগজিকাল ইউনিভার্সিটি অফ কার্লসরুহের ইনস্টিটিউট ফর ইসলামিক থিওলজি ও রিলিজিয়াস এডুকেশনে গবেষণাটি করা হয়। গবেষণার পরিচালক ইয়র্গ ইমরান শ্র্যোটার জানিয়েছেন, ১৪ থেকে ৩৪ বছর বয়সী প্রায় সাতশ’ তরুণের ওপর জরিপ চালানো হয়েছে। তবে এরা উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থী এবং গবেষণায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে অংশ নিয়েছেন। জরিপটি অনলাইনে করা হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, সাতশ তরুণের মধ্যে ৬১ ভাগ জানিয়েছেন তারা সামাজিক নানা কাজে সক্রিয়। এর বিনিময়ে বেশিরভাগই কোন টাকাও নেন না। এর বাইরে আরো ২০ ভাগ সামাজিকভাবে সক্রিয় হতে চান এবং ১১ ভাগ জানিয়েছেন, তারা আগে সম্পৃক্ত ছিলেন। শিক্ষিত মুসলিম তরুণদের মাঝে সামাজিক কাজে অংশ নেয়ার এই বিপুল আগ্রহ ধার্মিকতার ইতিবাচক প্রভাব বলে মনে করছি আমরা, ইনস্টিটিউট ও গবেষণা দলের প্রধান ইয়র্গ ব্যাখ্যা করেন। ‘‘এতে করে সার্বিকভাবে সমাজের উন্নয়নে তাদের অংশগ্রহণ বাড়বে,” যোগ করেন তিনি। ইয়র্গ বলেন, তিনটি কারণে তারা সামাজিক কাজে অংশ নিচ্ছেন বা যোগ দিতে চান। এক, কিছু একটা করতে চান (৮৮ ভাগ), দুই, ধর্মীয় বিশ্বাস থেকে (৮১ ভাগ) এবং তিন, ছোট করে হলেও সমাজে অবদান রাখা (৭৯ ভাগ)। গবেষণার ম‚ল্যায়নে আরো বলা হয়, যারা মসজিদ কমিউনিটির অংশ তাদেরই শুধু ইসলামের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে মনে করা উচিত নয়। দেখা গেছে, জার্মানিতে ২১ বছর বয়স পর্যন্ত তরুণরা বড়দের চেয়ে মসজিদ কমিউনিটির সঙ্গে সংযোগ বেশি রাখেন। তার মানে এই তরুণদের সামাজিক সক্রিয়তা সবচেয়ে বেশি। গবেষকরা দেখেছেন, সামাজিক কার্যক্রমে সক্রিয়ভাবে অংশ নেয়াদের ৭০ ভাগ নারী। তার মানে ইসলামী সমাজে পুরুষতান্ত্রিকতার প্রভাব বেশি, জার্মানিতে প্রচলিত এমন ধারণার সঙ্গে বিষয়টি সাংঘর্ষিক বলে মনে করছেন গবেষক দল। তারা মনে করছেন, সামাজিক নানা কাজে নারীদের সম্পৃক্ততাকে কাজে লাগানো যেতে পারে। গবেষণাটিতে সাইনাস ইনস্টিটিউট বার্লিন ও রবার্ট বশ ফাউন্ডেশন সহায়তা করেছে। ডয়েচে ভেলে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন