ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

করোনা উপসর্গে মৃত ৭

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনা উপসর্গ সর্দি, জ্বর, কাশি, গলাব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে সাতক্ষীরা ও ঝালকাঠি ২ জন করে; পটুয়াখালী, ময়মনসিংহ ও ভোলায় একজন করে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। 

যশোর : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারে গতকাল করোনার টেস্টের ফলাফলে ৯৭ জনের পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। যবিপ্রবি সূত্র জানায়, যশোরের ১৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৮ জনের, মাগুরার ৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২১ জনের ও বাগেরহাটের ১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮ জনের নমুনাতে পজেটিভ পাওয়া গেছে। যবিপ্রবির ল্যাবে মোট ২৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৭ জনের করোনা পজিটিভ এবং ১৫২ জনের নেগেটিভ ফলাফল এসেছে।
রাজশাহী : রাজশাহী বিভাগে গতকাল সকাল পর্যন্ত আট জেলার মধ্যে ছয় জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পাবনা ও জয়পুরহাটে এ দিন কোন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়নি। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী বিভাগে কোনো করোনা আক্রান্ত রোগী মারা যায়নি। একই সময় সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ১১৪ জন। গতকাল সকাল পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৬২৩ জনে। এ বিভাগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১৪ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩৩৮৫ জন। দুপুরে এক প্রতিবেদনে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের পরিচালক ডা. গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্তের মধ্যে রাজশাহীর ৮১ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২২ জন, নওগাঁয় ২ জন, নাটোরের ১১ জন, বগুড়ায় ৫২ জন ও সিরাজগঞ্জে ২৬ জন।
তিনি জানান, রাজশাহী বিভাগে আক্রান্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ বগুড়ায় ৩৭৬৩ জন। এছাড়াও রাজশাহী জেলায় ১৬৮২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৯৯ জন, নওগাঁয় ৬৭৬ জন, নাটোরে ৩০৫ জন, জয়পুরহাটে ৫৫০ জন, সিরাজগঞ্জে ৮৪৯ জন ও পাবনায় ৫৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
তিনি বলেন, সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত বিভাগের আট জেলার মধ্যে ছয় জেলায় মৃতের সংখ্যা ১১৪ জন। এর মধ্যে রাজশাহীতে ১৫, নওগাঁয় ১০, নাটোরে একজন, বগুড়ায় ৭০, সিরাজগঞ্জে নয়জন ও পাবনায় নয়জনের মৃত্যু হয়েছে করোনাভাইরাসে। সরকারি হিসেবে এখনো জয়পুরহাট ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে কোন করোনা আক্রান্ত রোগী মারা যায়নি। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন আরও ১১৪ জন। এ নিয়ে বিভাগে সুস্থ্য হয়েছেন ৩৩৮৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। এর মধ্যে রাজশাহীর ৩৩৮, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৯৩ জন, নওগাঁয় ৪৯৫, নাটোরে ১০০, জয়পুরহাট ১৭৪, বগুড়ায় ১৮৩৭, সিরাজগঞ্জ ১২৭ ও পাবনায় ২২১ জন।
বরিশাল : দক্ষিণাঞ্চলে ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণের সংখ্যা আবারো ১শ’ এর নিচে নেমে এলেও মৃত্যুর তালিকায় যুক্ত হয়েছে ১৭ দিন বয়সের এক কন্যা শিশুসহ ৩ নাম। মৃত ৩ জনের মধ্যে বরিশাল মহানগরীর দুজন শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অপরজন পিরোজপুর সদর হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। এ নিয়ে দক্ষিণাঞ্চলে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা সরকারিভাবে ৪ হাজার ১৩০ এবং মৃতের সংখ্যা ৮৬ তে উন্নীত হল। এরমধ্যে জুলাই মাসের প্রথম ১৩ দিনেই দক্ষিণাঞ্চলে মোট ১ হাজার ১৬২ জন আক্রান্তের বিপরীতে মৃত্যু হল ২৬ জনের। চলতি মাসে দক্ষিণাঞ্চলে মাত্র একদিন ছিল মৃত্যুবিহীন।
গতকাল বরিশাল মহানগরীতে মৃত দুজনের মধ্যে গোরস্থান রোড এলাকার ১৭ দিন বয়সের শিশুটি ছাড়াও ৮০ বছর বয়সী অপর এক পুরুষ নগরীর সাগরদী এলাকার। পিরোজপুর সদর হাসপাতালে মৃত্যুবরণকারী ৬০ বছর বয়স্ক অপর এক পুরুষ সদর উপজেলারই বাসিন্দা। তবে এসময়ে দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় রেকর্ড সংখ্যক, ৮৬ জন সহ সর্র্বমোট ১ হাজার ৫৯০ জন সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর।
অপরদিকে, ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে মহানগরীতেই সংখ্যাটা প্রায় ১ হাজার ৭শ। আর জেলায় মৃত ৩৩ জনের মধ্যে মহানগরীতেই সংখ্যাটা ২০। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় রেকর্ড সংখ্যক ৭০ জন সহ মোট ৬৩৫ জন সুস্থ হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। গত ২৪ ঘণ্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ৫ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।
দক্ষিণাঞ্চলে দ্বিতীয় সর্বাধীক সংক্রমিত জেলা পটুয়াখালীতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের ২১ থেকে ১৩’তে হৃাস পাবার পরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৬৮৮। জেলাটিতে মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের। তবে সোমবার দুপুরের প‚র্ববর্তি ২৪ ঘণ্টায় এ জেলাতে নুতন কারো সুস্থতার খবর পাওয়া যায়নি। এপর্যন্ত জেলাটিতে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ২০৩ জন।
পিরোজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রন্তের সংখ্যাটা আগের দিনের ১৫ থেকে ১৭ বৃদ্ধি পেয়েছে। মৃত্যুও হয়েছে একজনের। জেলাটিতে এ পর্যন্ত ৪০৬ জন করোনা আক্রান্তের বিপরীতে মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। ২৪ ঘণ্টায় মাত্র একজন সহ জেলাটিতে মোট সুস্থতার সংখ্যা ১৮৩। বরগুনাতে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ১৪। যা আগের দিন ছিল ১৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র দুজনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ২০৬ জন। ভোলাতেও নতুন ১১ জনসহ মোট সংক্রমণের সংখ্যা ৩৯৯। মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। আগেরদিন আক্রান্তের সংখ্যাটা ছিল ১২। তবে ১০ জুলাই থেকে গতকাল পর্যন্ত জেলাটিতে মাত্র একদিন ২২জনের সুস্থতার খবর মিললেও গত দু দিন সহ অবশিষ্ট ৩ দিনে কেউ সুস্থ হয়নি। জেলায় এ পর্যন্ত মোট ১৯৯ জনের সুস্থতার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
ঝালকাঠিতে ২৪ ঘণ্টায় আরো ৬ জনের দেহে করেনা সনাক্ত হয়েছে। জেলাটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩৩। আর মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১৩ জনসহ মোট ১৬৪ জনের সুস্থ হয়ে উঠার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে সোমবার সকালের প‚র্ববর্তি ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোন রোগী ভর্তি করা না হলেও আইসোলেশন ওয়ার্ডে ৮জন ভর্তি হয়েছেন। এসময়ে করোনা ওয়ার্ড থেকে দুজন ও আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে আরো ৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়ার পরেও এ দুটি ওয়ার্ডে যথাক্রমে ৫৫ জন ও ৬২ জন চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে। হাসপাতালটিতে ভর্তিকৃতদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ জনের রক্ত পরিক্ষায় দুজনের দেহে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলের বৃহত এ হাসপাতালটির করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এ পর্যন্ত ভর্তিকৃত ৮৮২ জনের মধ্যে ৬৩১ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হলেও মৃত্যু হয়েছে ১৩১ জনের। যার মধ্যে করোনা ওয়ার্ডেই মারা গেছেন ৫১ জন।
ময়মনসিংহ : ভালুকায় জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। গত রোববার জামিরদিয়া এলাকায় নিজ বাড়িতে মো. আসাদুল্লাহ মারা যান। তিনি বেশ কিছুদিন যাবত জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। গত রোববার রাতে জ্বর, সর্দির পাশাপাশি প্রচন্ড শ্বাসকষ্টে বাড়িতে মারা যান তিনি।
নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৩০ জন। এই নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৫ হাজার ৫৯২ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই পর্যন্ত মারা গেছেন ১২১ জন। সোমবার সকালে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।
সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্তে একজন ও উপসর্গ নিয়ে দুইজনসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বিকালে দুইজন ও রোববার রাতে একজন মারা যান। মৃত ব্যক্তিরা হলেন, সদর উপজেলার ঘোনা গ্রামের প্রসাদ কুমার মজুমদার, একই গ্রামের আক্তার আলী ও কালিগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম। প্রসাদ কুমার মজুমদারের পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর তিনি মারা গেলেন। আর রফিকুল ইসলাম জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে বেলা ২টায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কিছু সময় পর মারা গেলেন। এছাড়া, আক্তার আলী করোনা উপসর্গ নিয়ে রোববার বিকালে হাসপাতালে হন এবং রাতেই মৃত্যুবরণ করেন। সাতক্ষীরা সদর ২ আসনের এমপি মীর মোস্তাক আহমেদ রবিসহ ৬ জন নতুন করে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ৪০০ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন।
কুমিল্লায় : কুমিল্লায় প্রতিদিনই বাড়ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় কুমিল্লায় নতুন করে আরও ৯১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে এখন ৪ হাজার ৫৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এদিকে, করোনা জয় করে জেলায় নতুন করে সুস্থ হয়েছেন ১১২ জন। এনিয়ে জেলায় সর্বমোট সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৫৩৯ জন। এর মধ্যে নতুন করে সুস্থ হয়েছেন কুমিল্লা নগরীর ৩৪ জন, আদর্শ সদরের ৮ জন, নাঙ্গলকোটের ৫ জন, বরুড়ার ১৬ জন, লালমাইতে ৪২ জন ও মনোহরগঞ্জে ৭ জন। আর প্রাণঘাতী করোনার ছোবলে কুমিল্লায় মোট ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। তবে নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি। কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মো. নিয়াতুজ্জামান দৈনিক ইনকিলাবকেব বলেন, সোমবার নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন- কুমিল্লা নগরীতে ১৭ জন, আদর্শ সদর ২, বুড়িচং ৮, সদর দক্ষিণ ১১, হোমনা ১, লালমাই ৩, বরুড়া ৩, চৌদ্দগ্রাম ১১, মনোহরগঞ্জ ২, মেঘনা ২, লাকসাম ৫ ও নাঙ্গলকোটে ২৬ জন।
ভোলা : মনপুরায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার কলাতলীর চর ১ নং ওয়ার্ডের ওই বাসিন্দাকে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। জানা যায়, গত দুই দিন আগে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এলে করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভোলা সদর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। কিন্তু তিনি সেখানে না গিয়ে বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নেন। গতকাল সকালে তার অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালে আনার পথে তার মৃত্যু হয়।
টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলে নতুন করে ঘাটাইল স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে এক চিকিৎসক ও মির্জাপুরের মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের ৫ পুলিশসহ জেলায় ৫০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। জেলায় সর্বমোট আক্রান্ত ৯৬৫ জন। এদের মধ্যে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ৫৩৩ জন। মোট মৃত্যুবরণ করেছে ২১ জন। বাড়িতে ও আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছে ৩৯৩ জন। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পেন্ডিং রয়েছে ৩২ টি। টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. মো. ওয়াহিদুজ্জামান এ তথ্য জানান। আক্রান্তদের মধ্যে মির্জাপুর মহেড়া পুলিশ ট্রেনিংসেন্টারের ৫ পুলিশসহ ২০ জন। ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে একজন মেডিকেল অফিসার ও হাসপাতালের কমপাউন্ডারসহ পাঁচজন। টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় ১৫ জন। দেলদুয়ারে পাঁচজন। মধুপুরে চারজন ও গোপালপুর উপজেলায় একজন রয়েছে। টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. সদর উদ্দিন জানান, হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে মোট ৩০ জন রোগী ভর্তি হয়। তাদের মধ্যে ২৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছে।
ঝালকাঠি : ঝালকাঠির নলছিটিতে করোনা উপসর্গ নিয়ে পল্লী চিকিৎসকসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। গত রোববার রাতে তাদের মৃত্যু হয়। মৃতের পরিবার জানায়, গত ৫ দিন ধরে জ্বর, বুকে ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে নলছিটি শহরতলীর খোঁজাখালী গ্রামের বাড়িতে বসেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন পল্লী চিকিৎসক জয়নাল আবেদীন। সন্ধ্যায় তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রাতে বাড়িতেই মারা যান। এদিকে জ্বর, বুকে ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ৫ জুলাই বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয় নলছিটির কপালবেড়া গ্রামের সৈলাবুনিয়া মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আবদুল লতিফ কিদার। রবিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
চাঁদপুর : চাঁদপুর আরো ১৪ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। জেলায় এ নিয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১২৯৯জন। এরমধ্যে মৃতের সংখ্যা ৬৬জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে চাঁদপুর সদরে ৬জন, হাইমচরে ৪জন, মতলব উত্তরে ৩জন, মতলব দক্ষিণে ১জন। চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, সপ্তাহের প্রথম দিন সোমবার দুপুরে ৫৬টি রিপোর্ট আসে। এর মধ্যে ১৪টি পজেটিভ। ৪২টি নেগেটিভ। জেলায় ১২৯৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর উপজেলাভিত্তিক পরিসংখ্যান হচ্ছে; চাঁদপুর সদরে ৫০৩ জন, মতলব দক্ষিণে ১৫০জন, শাহরাস্তিতে ১২৮জন, হাজীগঞ্জে ১৩০জন, ফরিদগঞ্জে ১৫৩জন, হাইমচরে ৯৭জন, কচুয়ায় ৫৪জন এবং মতলব উত্তরে ৮৪জন। চাঁদপুর জেলায় করোনায় মৃত ৬৫জনের মধ্যে চাঁদপুর সদরে ১৯ জন, হাজীগঞ্জে ১৬জন, ফরিদগঞ্জে ৯জন, কচুয়ায় ৫ জন, মতলব উত্তরে ৮জন, শাহরাস্তিতে ৫জন , মতলব দক্ষিণে ৩জন এবং হাইমচরে ১জন। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের ইউএন সহ নতুন ৩৬ জন করোনা আক্রান্ত
কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন আক্তার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। রোববার রাতে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে পাওয়া রিপোর্টে এ তথ্য জানা যায়। গত ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ায় নতুন করে ৩৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৯৭৬ জন। কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম রোববার রাতে জানান, জেলার ২০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৩৬টি নমুনা পজেটিভ আসে। আক্রান্তদের মধ্যে কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ২১ জন, দৌলতপুর উপজেলায় ৫ জন, কুমারখালী উপজেলায় ৪ জন, খোকসা উপজেলায় ৩ জন ও মিরপুর উপজেলায় ২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৯৭৬ জন।নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে দৌলতপুরের ইউএনও শারমিন আক্তার রয়েছেন
মাগুরা : মাগুরায় নতুন ২১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২১২ জন। সুস্থ হয়েছে ১০৪ জন। মাগুরা সিভিল সার্জন ডা. প্রদিপ কুমার সাহা জানান, জেলায় নতুন ২১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।
বাউফল (পটুয়াখালী) : বাউফলে করোনা উপসর্গ নিয়ে সজল মৃধা নামে এক যুবক মারা গেছেন। রোববার রাত ৪ টার দিকে তিনি মারা যান। তার বাড়ি মদনপুরা ইউনিয়নের মৃধার বাজার এলাকায়। বাবার নাম রশিদ মৃধা। জানা গেছে, সজল ১০-১২ দিন আগে নাজিরপুর ইউনিয়নের ধান্দী গ্রামে তার শ্বশুর আলতাফ হোসেন জোমাদ্দারের বাড়ি বেড়াতে আসেন। এরপর জ্বরে আক্রান্ত হন। হঠাৎ করে জ্বর ও শ্বাস কষ্ট বেড়ে গেলে ওই দিন ভোর রাতে তিনি মারা যান।
মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রকাশ কর্মকার দুলু নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এছাড়া গত চব্বিশ ঘণ্টায় উপজেলার মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে অতিরিক্ত এক পুলিশ সুপার, ৫ পুলিশ কনস্ট্রেবলসহ নতুন করে আরও ২০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম এ তথ্য জানান।
এ নিয়ে এ উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩২৮ জন। এর মধ্যে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ১৩২ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও পাঁচজন কনস্টেবল, বানাইল ইউনয়নের নরদানা গ্রামের দুইজন, মহেড়া ইউনিয়নের মহেড়া গ্রামের একজন, গোড়াই ইউনয়নের কদিম দেওহাটা গ্রামের একজন, মির্জাপুর সদরের একজন,ভাওড়া ইউনিয়নের ভাওড়া গ্রামের একজন, ফতেপুর গ্রামের একজন, জামুর্কীর একজন, গোড়াই এলাকার দুইজন, কামারপাড়ার একজন, বাইমহাটীর একজন, রাজাবাড়ির একজন ও পাকুল্যার একজন রয়েছে।
নান্দাইল (ময়মনসিংহ) : ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার আক্রান্ত হয়েছেন ১ জন। চন্ডীপাশা ইউনিয়নের এক ব্যাক্তি আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে এ পর্যন্ত উপজেলার মোট ৩৬ জন আক্রান্ত হলো। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩১ জন এবং হোম আইসোলোশনে আছে ৫ জন। গত ১৯ জুন ময়মনসিংহ সূর্য্যকান্ত হাসপাতালে শেরপুর ইউনিয়নের পাঁচরুখি গ্রামের মুরসালিন নামে এক যুবক মারা যায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন