ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সঙ্কটে থাকলেও প্রণব মুখার্জীর অবস্থা স্থিতিশীল

ভুয়া দুঃসংবাদে ক্ষুব্ধ পরিবার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ১২:০২ এএম

প্রণব মুখার্জী


বর্তমানে ভেন্টিলেটরেই চিকিৎসাধীন আছেন ভারতের সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায়। এখনো সঙ্কট কাটেনি, তবে তার অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। গতকাল সকালের বুলেটিনে এ কথা জানিয়েছে সেনা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। একই খবর জানিয়েছেন তার ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। তার মৃত্যু সম্পর্কে যে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে, সে বিষয়ে বিরক্ত প্রকাশ করে অভিজিৎ বলেছেন, ‘আমার বাবা এখনও বেঁচে আছেন।’

গতকাল সকালে অভিজিৎ টুইটে লেখেন, ‘আমার বাবা প্রণব মুখোপাধ্যায় এখনও বেঁচে আছেন এবং তিনি হিমোডায়নামিক্যালি স্থিতিশীল আছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রখ্যাত সাংবাদিক যে পূর্বাভাস ও ভুয়া খবর ছড়িয়েছেন তাতে এটা স্পষ্ট যে ভারতের সংবাদমাধ্যম ভুয়া খবরের কারখানা হয়ে গিয়েছে।’ নিজের বিরক্তি চেপে না রেখে তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমার বাবার সম্পর্কে যে গুজব ছড়ানো হয়েছে তা মিথ্যা। বিশেষত সংবাদমাধ্যমকে অনুরোধ করছি, আমাকে ফোন করবেন না। কারণ হাসপাতাল থেকে খবর পাওয়ার জন্য আমার ফোনটা খালি রাখা দরকার।’

এ দিকে, গতকাল সেনা হাসপাতালের তরফে প্রকাশ করা মেডিক্যাল বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ‘প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অবস্থার পরিবর্তন হয়নি। বিভিন্ন প্যারামিটার স্থিতিশীল থাকলেও তিনি গভীরভাবে কোমায় আচ্ছন্ন রয়েছেন। তিনি এখনও ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রয়েছেন।’

এর আগে বুধবার সকালে প্রণব-কন্যা শর্মিষ্ঠা টুইটে লিখেছিলেন, ‘গত বছর ৮ আগস্ট আমার জন্য অন্যতম একটা আনন্দের দিন ছিল, কারণ সে দিন আমার বাবা ভারতরতœ সম্মান পেয়েছিলেন। ঠিক তার এক বছর পর ১০ আগস্ট তিনি সঙ্কটজনক অবস্থায় রয়েছেন। তার জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো হয়, তাই যেন করেন ঈশ্বর। মন স্থির রেখে জীবনের আনন্দ ও দুঃখ দুটোই যেন মেনে নিতে পারি, সেই শক্তি দিতে বলছি ঈশ্বরকে। সবাই খোঁজখবর নেয়ায় ধন্যবাদ জানাই।’

প্রসঙ্গত, রোববার গভীর রাতে বাড়ির বাথরুমে পড়ে গিয়ে কপালে ও রগে আঘাত পান প্রণব মুখোপাধ্যায়। সোমবার সকাল থেকে স্নায়ুঘটিত সমস্যা দেখা দেয় তার। হাসপাতাল সূত্রে খবর, তিনি বাঁ হাত নাড়তে পারছিলেন না। সিটি স্ক্যান এবং এমআরআই-তে দেখা যায়, আঘাত পাওয়ার ফলে তার মাথার ভিতর রক্ত জমাট বেঁধেছে, যাকে ডাক্তারি পরিভাষায় বলে সাবডিউরাল হেমাটোমা। তাই জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। অপারেশনের পর থেকেই ভেন্টিলেশনে আছেন তিনি। অস্ত্রোপচারের আগে নানা টেস্ট করতে গিয়ে ধরা পড়ে, করোনাও বাসা বেঁধেছে সাবেক প্রেসিডেন্টের শরীরে। সূত্র : টিওআই।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন