ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে স্কুল চালুর দু-সপ্তাহেই ১ লাখ শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ৩:২৫ পিএম

করোনা মহামারির মধ্যেই সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পুনরায় স্কুল খোলার অনুমতি দিয়েছিল ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। জুলাইয়ের মাঝামাঝি থেকে দেশটিতে স্কুলগুলো চালু হয়েছে। এর মাত্র দু-সপ্তাহের মধ্যেই প্রায় ১ লাখ শিক্ষার্থী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আমেরিকান অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিক্সে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্ট থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, স্কুল পুনরায় চালুর পর থেকে মাত্র দু’সপ্তাহের মধ্যে এক লাখের কাছাকাছি শিক্ষার্থীর কোভিড টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সমীক্ষা অনুযায়ী, কোভিড আক্রান্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৯৭ হাজার ছাড়িয়েছে। জুলাইয়ের শেষ দু-সপ্তাহের মধ্যে এই ৯৭ হাজার শিক্ষার্থীর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। স্কুলে যাতায়াতের পথেই যে সংক্রমণ, রিপোর্টে তা নিশ্চিত করে বলা হয়েছে। সমালোচনা সত্ত্বেও ট্রাম্পের নেয়া এই সিদ্ধান্ত যে অনেক বড় ভুল ছিল, এই ঘটনাতেই সেটা প্রমাণ হলো।

আমেরিকান অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিক্সের রিপোর্টে আরও দাবি করা হয়, জুলাইয়ের ওই দু-সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কমপক্ষে ২৫ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শিশুদের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রবণতা কম বলে যে দাবি এতদিন করা হচ্ছিল, এই সমীক্ষা রিপোর্ট তা ভুল প্রমাণ করে দিচ্ছে। মাত্র দু-সপ্তাহে যদি প্রায় এক লাখ শিশু কোভিডে সংক্রামিত হতে পারে, তা হলে স্কুল চালু রাখলে, সংখ্যাটা গিয়ে কোথায় পৌঁছবে, তা নিয়ে এরই মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। অভিভাবকেরা কি এর পরেও প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে সন্তানদের স্কুলে পাঠাবেন? ট্রাম্প প্রশাসন অবশ্য এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য এখনও পর্যন্ত করেনি। স্কুলগুলিও যে পুনরায় বন্ধ করে দেয়া হতে পারে, এমনও শোনা যাচ্ছে না।

৩০ জুলাইয়ের মধ্যে আমেরিকায় ৫০ লাখ মানুষের শরীরে করোনা ধরা পড়ে। এর মধ্যে ৩ লাখ ৩৮ হাজার শিশু। এই সময়কালের মধ্যে সেখানে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬২ হাজার মানুষের। স্কুল থেকে শিশুদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়ানোয় উদ্বেগ বাড়ছে কর্তৃপক্ষের। কী ভাবে প্রাণঘাতী কোভিডের সংক্রমণ ন্যূনতমে কমিয়ে আনা যায়, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। ভান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টর টিনা হার্টার্ট জানান, শিশুদের মধ্যে কোভিড টেস্টের হার বাড়াতে হবে। তাতে ভাইরাস সংক্রমণে ছোটদের ভূমিকা নির্ধারণ সহজ হবে। সূত্র: দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৪ আগস্ট, ২০২০, ৭:৪৩ পিএম says : 0
যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের করুন পরিস্থিতি বিশ্বের সবদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখুন বিশ্বের করোনা ভাইরাসের স্বাভাবিক অবস্থা না হওয়া পযর্ন্ত বন্ধ রাখুন। বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয় সহ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তি প্রতিষ্ঠান বিষয়টি গুরুত্বদিন। ধন্যবাদ। ইতিমধ্যে
Total Reply(0)
মোঃ ডাবলুর রহমান ১৫ আগস্ট, ২০২০, ৯:২৯ এএম says : 0
আমরাতো সফল করোনাতে, আমাদের দেশের স্কুল কলেজ খোলা যেতে পারে।।
Total Reply(0)
md alamin ১৭ আগস্ট, ২০২০, ৫:২২ পিএম says : 0
করোনা কালে জীবন থমকে গেছে।হারিয়েছে কিছু প্রান।এখনো 20%+ সংক্রমিত ধরা পড়ছে। তার মাঝে এইচএসসি পরিক্ষা নেওয়া ,স্কুল,কলেজ না খোলার আহব্বান করছি।- একজন এইচএসসি পরিক্ষার্থী
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন