ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বাংলাদেশেই ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দেবে রাশিয়া : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চীনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শিগগিরই শুরু হবে : স্বাস্থ্য মহাপরিচালক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সুযোগ থাকলে রাশিয়া বাংলাদেশেই ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দেবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সক্ষমতার প্রশ্নটি নিয়ে এরই মধ্যে বাংলাদেশকে চিঠি দিয়েছে রাশিয়া। এ নিয়ে ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূতের সাথে বাংলাদেশের সরকারের কথাবার্তাও হয়েছে। সেই আলোচনায় রাশিয়াকে বাংলাদেশের সক্ষমতা থাকার বিষয়টি জানিয়েও দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের বেশ কয়েকটি কোম্পানির টিকা উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে। একই সঙ্গে করোনা মোকাবিলায় যে ভ্যাকসিন আগে আসবে, সরকার সেটিকেই প্রাধান্য দেবে। দেশে ভ্যাকসিন আমদানি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এছাড়া অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন দেয়ার প্রতিশ্রæতি বাংলাদেশ পেয়েছে। এই ভ্যাকসিন ভারতের সেরাম কোম্পানি উৎপাদন করছে। বেক্সিমকো কোম্পানি এই ভ্যাকসিন বাংলাদেশে সরবরাহের ব্যবস্থা নেবে। এছাড়াও সরকারিভাবেও অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন আনার ব্যাপারে আলোচনা চলছে। গতকাল সচিবালয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কেয়ানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, করোনাভাইরাসের বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সাথেও সরকারিভাবে আলোচনা হয়েছে। তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে তারা তাদের অভিজ্ঞতা আমাদের সাথে বিনিময় করতে চায়। অ্যান্টিজেন পরীক্ষার জন্য তারা ৮ লাখ ডলার মূল্যের কিট বাংলাদেশে দেবে। আর এটা অল্প দিনের মধ্যে আমাদের হাতে চলে আসবে। কিট আনার প্রস্তুতি এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে বলেও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এছাড়া করোনা সংক্রমণ পরীক্ষার জন্য বেশ কয়েকটি পিসিআর মেশিনও দেয়ার কথা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

এদিকে বাংলাদেশে খুব শিগগিরই করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. এবিএম খুরশিদ আলম।

গতকাল মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতাল মিলনায়তনে মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ-২০২০ এবং মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, চীন থেকে আমদানির প্রক্রিয়াধীন করোনা প্রতিরোধ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বাংলাদেশে খুব শিগগিরই হবে।

‘পুষ্টি মাসে মাতৃদুগ্ধ বিকল্প আইন-২০১৩ এবং বিধি-২০১৭ অবহিতকরণ এবং মনিটরিং বিষয়ক কর্মশালা’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ডা. খুরশিদ আলম বলেন, মানবতার সেবায় স্ব-প্রণোদিত হয়ে যারা এগিয়ে আসবে, শুধুমাত্র তাদেরকে করোনা ভ্যাকসিন ট্রায়াল কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা হবে। জোর করে কাউকে আনা হবে না। যারা এ কাজে সম্পৃক্ত থাকবেন, তাদের ঝুঁকি ভাতা দেওয়া হবে কিনা সে ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি বলেও জানান তিনি।##

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
QQQQ ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৩১ এএম says : 0
Who takes Russia from Bangladesh, take thier death penalty to save Bangladesh.
Total Reply(0)
Nasir Uddin Chowdhury ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৫৯ এএম says : 0
আপনি দয়া করে আপনার মহান বেহুদা কথা গুলো না বললেই আমরা একটু শান্তিতে থাকি।
Total Reply(0)
Md Modin Ullah Mohammad ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:০০ এএম says : 0
আপনাদের মত মন্ত্রী থাকতে ভ্যাকসিনের কি প্রয়োজন
Total Reply(0)
সোলায়মান ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১১ এএম says : 0
এটা খুবই ভালো খবর
Total Reply(0)
আশিক ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১২ এএম says : 0
আল্লাহ যেন আমাদেরকে দ্রুত এই রোগ থেকে হেফাজত করেন
Total Reply(0)
সাইফুল ইসলাম ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১৩ এএম says : 0
এই পরিস্থিতিতে একজন ভালো স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রয়োজন ছিলো
Total Reply(0)
Masud ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:৫৩ পিএম says : 0
Nijeder akher guchte apnara basto..jonogon k niya vabar somoy nai apnader..A to Z sob ... chor
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন