ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মুসল্লিরা যেন সাধারণ মানুষকে সচেতন করেন : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৩০ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইদানীং দেশের বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লিদের মাস্ক ছাড়া নামাজ পড়তে দেখা যায়। প্রধানমন্ত্রী ধর্ম মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন, মাস্ক পরার জন্য সচেতনতা বাড়াতে হবে। জোহর ও মাগরিব এই দুই ওয়াক্তের সময় যেন সব মুসল্লি মাস্ক পরে নামাজে আসেন তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যান্য সময়ও মসজিদে নামাজ পড়ার সময় মাস্ক পরায় উৎসাহিত করতে হবে। এই মুসল্লিরাই যেন বাইরের সাধারণ মানুষকে সচেতন করেন সেভাবে উৎসাহিত করতে হবে।

গতকাল¡ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এই অনুশাসন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং মন্ত্রিপরিষদের অন্য সদস্যরা সচিবালয় থেকে ভার্চুয়াল এই সভায় যোগ দেন। বৈঠকের পর সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সীমিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এই তথ্য জানান।

সচিব বলেন, আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ আসবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করার প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি দেশের মেডিকেল শিক্ষার মানোন্নয়ন এবং গবেষণা কর্মে উৎকর্ষ সাধনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে খুলনায় দেশের পঞ্চম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। সেইলক্ষ্যে ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা, আইন, ২০২০’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রিসভা আজ খুলনা বিভাগে একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা, আইন, ২০২০’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে। তিনি বলেন, এই আইনের মাধ্যমে চিকিৎসা শাস্ত্রে উচ্চশিক্ষা, গবেষণা, সেবার মান এবং সুযোগ-সুবিধার স¤প্রসারণ ও উন্নয়ন ঘটবে। প্রস্তাবিত মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে খুলনা বিভাগে উন্নত চিকিৎসা সেবা স¤প্রসারিত হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, চিকিৎসা শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বিশেষজ্ঞ-গবেষক তৈরি করার লক্ষ্যে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণা এবং স্নাতক পর্যায়ে চিকিৎসা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মেডিকেল কলেজগুলোর শিক্ষার মান সংরক্ষণ ও উন্নয়নে খুলনা বিভাগে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলে খুলনা অঞ্চলের যত মেডিকেল কলেজ, নার্সিং ইনস্টিটিউট বা অন্যান্য চিকিৎসা সংক্রান্ত যেসব ইনস্টিটিউট থাকবে সবই এই মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলে আসবে।
তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি থাকবেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর। সমাবর্তন বা অন্য কোনো অনুষ্ঠান, যেখানে রাষ্ট্রপতি থাকার কথা, সেখানে যদি উনি থাকতে না পারেন, তবে, উনি যাকে নির্বাচন করে দেবেন, তিনি তার পক্ষে সেখানে প্রধান হিসেবে থাকবেন।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এ দিন ‘চিকিৎসা ডিগ্রি (দ্য মেডিকেল ডিগ্রিস) (রহিতকরণ) আইন, ২০২০’ এর খসড়ার ও নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। মেডিকেল কলেজের ডিগ্রি ও মান সবকিছু নির্ধারিত হতো দ্য মেডিকেল ডিগ্রি অ্যাক্ট, ১৯১৬ দিয়ে। পরবর্তী সময়ে ২০১০ সালে বিএমডিসি বা বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০ করা হল।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ১৯১৬ সালের আইনের যতো প্রভিশন ও মোডিফিকেশন প্রয়োজন ছিল সবই ২০১০-এর আইনে নিয়ে আসা হয়েছে। ফলে ‘দ্য মেডিকেল ডিগ্রিস অ্যাক্ট, ১৯১৬’ এর কোনো কার্যকারিতা নেই। সেজন্য মন্ত্রিসভা এটা (চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগ) রহিত করার প্রস্তাব নিয়ে এসেছেন।

এছাড়া, বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন আইন ২০২০ এর খসড়ার ও চূড়ান্ত অনুমোদন প্রদান করেছে মন্ত্রিসভা। একইসঙ্গে বাংলাদেশ এবং সেন্ট কিটস এন্ড নেভিসের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন সংক্রান্ত যৌথ ঘোষণাপত্রের খসড়া অনুসমর্থনের প্রস্তাব এবং বাংলাদেশ এবং কনওয়েলথ অব ডোমিনিকা’র মধ্যে ক‚টনেতিক সম্পর্ক স্থাপন সংক্রান্ত যৌথ ঘোষণাপত্রের খসড়া অনুসমর্থনের প্রস্তাব ও অনুমোদন করেছে।#

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (11)
কাজী হাফিজ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:১১ এএম says : 0
প্রধানমন্ত্রীর িএই নির্দেশ মেনে চলা উচিত। কারণ শুনছি শীত আসলে করোনার প্রকোপ বাড়বে।
Total Reply(0)
রাগিনী মেয়ে ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:১২ এএম says : 0
হাট-বাজার, পার্ক, রেস্তোরা কোথাও সমস্যা নেই যত সমস্যা মসজিদ আর স্কুলে।
Total Reply(0)
নাসিম ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:১৩ এএম says : 0
মাননীয়ন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো সবার মেনে চলা উচিত। তবেই কিছুটা উপকার পাওয়া যাবে।
Total Reply(0)
Subash Kumar Dutta ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:০৫ এএম says : 0
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা আমাদের তৃণমূলের মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের নেত্রী আমাদের অহংকার জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু
Total Reply(0)
Anowar Hossain ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:০৬ এএম says : 0
আমি ব্যক্তিগত ভাবে আপনাকে ও আওয়ামীলীগ কে পছন্দ করি। কিন্তু আপনার দলের ছত্রছায়ায় ও দলের নাম ভাঙিয়ে আমার মতো সাধারণ জনগণকে চুষে চুষে খাচ্ছে। এরা ন্যায়ের পক্ষে না দাঁড়িয়ে টাকা খেয়ে অন্যায়ের পক্ষে দাঁড়ায়। এমন নেতাদের চিহ্নিত করুন। আমি নবাবগঞ্জ ,ঢাকা থেকে বলছি। আপনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
Total Reply(0)
Md. Year Ali Shikder ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:০৬ এএম says : 0
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগই অর্জন করেছে মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধসহ সকল গণতান্ত্রিক এবং মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে নেতৃত্বদানের সুমহান গৌরব। জয়তু আধনিক বাংলার জননী বিশ্ব মানবতার নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
Total Reply(0)
Jaga Bandu ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:০৭ এএম says : 0
যোগ্য পিতার যোগ্য কন্না, আর যোগ্য কন্নার যোগ্য রাজনীতি। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু। জয় হোক আগামীর বাংলাদেশ।
Total Reply(0)
সাব্বির আহমেদ বাবু ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:৫০ এএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন
Total Reply(0)
রাশেদুল ইসলাম ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:৫১ এএম says : 0
আশাকরি সকলেই নির্দেশনা মেনে চলবে
Total Reply(0)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:১৭ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ইসলামের জন্যে মুসলমানদের জন্যে বঙ্গবন্ধু ও আপনার অবদান অনেক। স্বাস্থবিষয়ক বার্তা মসজিদের মসল্লিদের জন্যে অত্যন্ত ভাল উপদেশ দিয়েছেন আলহামদুলিল্লাহ্। দেশের মানুষ মান‍্য করা নৈতিক দায়িত্ব জরুরী। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর বরাবরে কেও যদি যুক্তিসংগত এবং দায়িত্বশীল কিছু লিখেন তাহা পৌছেন কিনা জানিনা রাষ্ট্রের নির্বাহীর কাছে????। নামাজ পড়তে আল্লাহর ঘরে মুসল্লিরা যান জমিনে সেজদায় পড়ে আল্লাহর গোলামী করেন । মসজিদ মহান আল্লাহর ঘরে নামাজরত অবস্থায় মৃত্যু আগুনে হোক যেভাবেই হোক এই মৃত্যু সুভাগ‍্যের এই মৃত্যু শহীদের মত পবিত্র ও মর্যাদাবান। নিঃসন্দেহে।আলহামদুলিল্লাহ্। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী রাজধানীর মসজিদে নিহত শহীদ মানুষ গুলোর পরিবারের প্রতি বঙ্গবন্ধুর কন‍্যার প্রতি আর্থিক সহযোগিতার সহমর্মিতার আহবান ঐদিন থেকেও জানিয়ে আসছি। ঈমাম মুয়াজ্জিন একটি পরিবারের তিন এই অসহায় মানুষ গুলো কে সাহায্য করিলে দেশের কোটি কোটি নামাজি খুশী হতেন। লক্ষ লক্ষ সমজিদের ঈমাম মুয়াজ্জিন খুশী হতেন।এমপি মেয়র নারায়ণগঞ্জের মানুষ সহানুভূতি ছিল। দাবী করেছেন বিভিন্ন দল। মসজিদে আগুনে পুড়া মৃত্যু স্বাভাবিক ঘটনা নয়। স্বাভাবিক দূর্ঘটনায় মত হতে পারেন না। আল্লাহ্ ভাল জানেন। ভাল বুঝেন। আপনি বাংলাদেশ কে প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে অর্থনৈতিক পরাশক্তির কাতারে নিয়ে গেছেন । শক্তিশালী অর্থনীতির বাংলাদেশ আজ। আপনি সংখ্যা গরিষ্ঠ৯০% মুসলিম জনগোষ্ঠী অদ্ধুশীত বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী। মসজিদের মর্মান্তিক ঘটনায় কেন মহামান্য হাইকোর্টে মামলা করতে হবে। হাইকোর্টের আদেশ চেম্ভার জজ কতৃক স্থগিত। পুনাঙ্গ শুনানিতে যাবে ইত্যাদি ইত্যাদি। ঐ মসজিদের মসল্লিরা গ‍্যাস লিকেজে মৃত্যু হবে। ভয়ংকর দূর্ঘটনা বিপদ হতে পারে ধারনা ছিলনা। থাকলে জীবন দিতে মসজিদে যেতেন না। পক্ষান্তরে তিতাসের ধারণা ছিল তাদের জানার কথা গ‍্যাস বিস্ফোরণ হতে পারে। ইত্যাদি। এই মুহুর্তে বিরাট মানবতার প্রশ্ন । বিশ্ব মানবতার মায়ের দরবারে। মসজিদে শহীদি পরিবারের প্রতি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী অনুদানের। সাহায্যের সহযোগিতার সহমর্মিতার মানবিক আকুল ফরিয়াদ মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দরবারে পৌঁছনোর জন্যে আবেদন করছি। মহান আল্লাহর দরবারে আপনার শারীরিক সুস্থতা দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আমিন।
Total Reply(0)
বেলাল হোসেন টিটু ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:০৬ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন কিনতু তার আসে পাসের লোক গুলি সমোসসা
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন