ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অফিস সহকারী কল্যাণ সমিতি

স্বাস্থ্য অধিদফতরে আরেক আতঙ্ক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০৬ এএম

স্বাস্থ্য অধিদফতরে আরেক আতঙ্কের নাম অফিস সহকারী কল্যাণ সমিতি। র‌্যাবের হাতে গ্রেফতারকৃত ড্রাইভার মাালেক ও তার সহযোগীদের মতো অপ্রতিরোধ্য এই সমিতির সদস্যরা। মহাপরিচালেকর দফতর থেকে শুরু করে প্রত্যেক কর্মকর্তার দফতরেই রয়েছে অফিস সহকারী। টাকার বিনিময়ে সরকারি তথ্য পাচার, ফাইল আটকে রাখা, ফাইল দ্রæত ছাড়া করাসহ নানাবিধ অভিযোগ এই সমিতির সদস্যদের বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে কোন কর্মকর্তা কথা বললে স্বাভাবিক কাজে বাধা দেয়াসহ নানাভাবে ঝামেলায় ফেলেন তারা।
অধিদফতরের কর্মকর্তা জানান, অফিসের সব বিষয এদের নখদর্পনে। অধিদফতরের সব ধরনের অনিয়মের সঙ্গে জড়িত এই সমিতির নেতারা। চাহিদামতো টাকা না দিলে এরা কোন ফাইল ছাড়ে না। এমনকি সম্প্রতি টাকা না দেয়ায় এক কর্মকর্তার পদায়ন সংক্রান্ত ফাইল গায়েব করে এই চক্রের সদস্যরা।

এই সমিতির ২৩ জন সদস্যর বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে নানা অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। তার প্রেক্ষিতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সুপারিশের ভিত্তিতে ইতিপূর্বে অভিযুক্ত ২৩ জনকে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের আদেশে দেশের বিভিন্ন জেলার স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানে বদলী করা হয়। কিন্তু সমিতির নামে নানা অপকর্মে জড়িত এসব কর্মচারীদের একে একে সবাইকে আবার অধিদফতরে ফিরিয়ে আনা হয়।

অধিদফতরের একাধিক কর্মকর্তা ইনকিলাবকে বলেন, অধিদফতরের প্রথম শ্রেণীর পদগুলোতে চিকিৎসকরা কাজ করনে। কিন্তু এদের কারণে কোন কর্মকর্তা নিজের মতো করে কাজ করতে পারেন না। এদের দাবি দাওয়া মানা না হলেও যে কোন পর্যায়ের কর্মকর্তাকে চরম অপমানিত হতে হয়।

জানতে চাইলে সমিতির যুগ্মসচিব মো. শাহনেওয়াজ বলেন, কিছু কর্মচারী অসাধু রয়েছে। তবে তারা ব্যক্তিগতভাবে অসাধু। এর সঙ্গে সমিতির সম্পৃক্ততা নেই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন