ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আমতলী-নোমোরহাট সড়কের বেহাল দশা

আমতলী (বরগুনা) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০২ এএম

বরগুনার আমতলী-নোমোরহাট সড়কটি মেরামতের এক বছর যেতে না যেতেই বেহাল দশা। সড়কটির বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত ও খানা-খন্দের সৃষ্টি হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। 

জানা গেছে, ৯ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য আমতলী-নোমোরহাট সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে, চিলা, নোমোরহাট, ধানখালীতে যাত্রীবাহী মাহেন্দ্রা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা-ইজিবাইক চলাচল করে। মালামাল পরিবহনের জন্য প্রতিদিন পণ্যবাহী ট্রাক, ট্রলি, পিকআপ, টমটম, নছিমন, ট্রলি ও লরি চলাচল করে।
উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২১.৫০ মিটার এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ২১.৫০ থেকে ৮.৬৫০ মিটার পর্যন্ত দু’দফায় ১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে এ সড়কটি সংস্কার করা হয়েছিল। সে সময় তিনটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান পটুয়াখালীর মহিউদ্দিন আহম্মেদ কন্সট্রাকশন, বরগুনার আরিফ অ্যান্ড আসিব কন্সট্রাকশন ও মেসার্স মনি কন্সট্রাকশন সড়ক সংস্কারের কার্যাদেশ পায়। তারা কাজ অন্যত্র বিক্রি করে দেয়। সড়কে নিম্নমানের কাজ হওয়ায় এখন সড়কটি বেহাল দশায় পরিণত হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।
গত রোববার সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কটির বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং উঠে খোয়া, বালু সরে যাওয়ার কারণে বড় বড় গর্ত ও খানা-খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কের ভাঙা অংশ দিয়ে হেলেদুলে যানবাহন চলাচল করছে। পশ্চিম চিলায় সড়কের অবস্থা এতটাই খারাপ যে, প্রতিদিন এখানে গাড়ি আটকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
প্রতিদিনই এখানে দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছে ছোট বড় যাত্রীবাহী ও মালামাল বোঝাই যানবাহনগুলো। ভাঙা সড়কের কারণে মুন্সীবাড়ি, চিলা এইচবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পূর্ব-পশ্চিম পাশে নাদের তালুকদার বাড়ির পূর্ব পাশের মোড়, মাইঠা বাজার সংলগ্ন পশ্চিম চিলার মোড়সহ বেশ কয়েকটি স্থানে সড়কের অবস্থা এতটাই বেহাল যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় কোন দুর্ঘটনা।
এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন মুঠোফোনে বলেন, সড়কের ভাঙা অংশ যানবাহন চলাচল উপযোগী করার চেষ্টা করা হচ্ছে। বর্ষা মৌসুম শেষ হলে সড়কটি সংস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন