ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কালকিনিতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

মাদারীপুরের কালকিনিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দশম শ্রেণির এক দরিদ্র স্কুলছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের বিষয়টি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল উঠেপড়ে লেগেছে বলে জানা যায়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গতকাল দুপুরে ওই ধর্ষিতার পরিবার থানায় আসে মামলা করার জন্য।
ভুক্তভোগী পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রমজানপুর এলাকার দক্ষিণ রমজানপুর গ্রামের রমেশ মন্ডলের লম্পট ছেলে সুমন মন্ডল তার বাড়ির পাশের স্কুলছাত্রীর সঙ্গে প্রথমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর সুমন মন্ডল তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার এক আত্মীর বাড়ি নিয়ে তিন দিন রেখে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর সুমন মন্ডল স্কুলছাত্রীকে একা ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
পরে স্কুলছাত্রী নিরুপায় হয়ে সুমন মন্ডলের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে। কিন্তু এসময় সুমন মন্ডলের পরিবার তাকে মারধর করে। বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য অভিযুক্ত সুমনের পক্ষ নিয়ে অসহায় ভুক্তভোগীর পরিবারকে চাপ প্রয়োগ করেন স্থানীয় মাতুব্বর রবি মন্ডল, সাবেক ইউপি সদস্য মো. কামরুল বেপারী ও নিখিল ভক্তসহ বেশ কয়েকজন। পরে খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে ঘটনার পর থেকেই সুমন মন্ডল পলাতক রয়েছে।
ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর বাবা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়েকে সুমন বিয়ে কথা বলে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে। আমি সুমনের বিচার চাই।
এ বিষয় জানতে চাইলে রবি মন্ডল ও নিখিল ভক্তের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। অভিযুক্তের বাবা রমেশ মন্ডল বলেন, আমি কিছুই জানি না। কালকিনি থানার ওসি মো. নাছিরউদ্দিন মৃধা বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে ধর্ষণের ঘটনা গৌরনদী থানায় তাই মামলা সেই থানায় দিতে হবে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন