ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে বিশাল জশনে জুলুছ (র‌্যালি) অনুষ্ঠিত

শান্তি প্রতিষ্ঠায় মহানবীর (সা.) এর আদর্শ প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই -মোহাম্মদপুর মাহফিলে নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২০, ১:২৭ পিএম

বিশ্বব্যাপী শান্তি প্রতিষ্ঠায় মহানবীর (সা.) আদর্শ প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস মানুষের কিঞ্চিৎ মানসিক পরিবর্তন হলেও সামগ্রিক চিন্তা-চেতনা, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে মহানবীর নীতি-আদর্শ থেকে দূরে থাকায় প্রতিনিয়ত বিপর্যয়ের সম্মুখীন হচ্ছে দেশ এবং জাতি। সকল বিপদ থেকে মুক্তি পেতে সর্বত্র প্রিয় হাবিবের জীবনী চর্চা, আলোচনা সময়ের দাবি বটে। আজ মঙ্গলবার আন্জুমান রহমানিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট ঢাকার পৃষ্ঠপোষকতায় মোহাম্মদপুর কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া আলিয়া মাদরাসার সহযোগিতায় জয়েন্ট কোয়ার্টার মাদরাসার সামনে থেকে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সকাল ১১ টায় জশনে জুলুছ (বর্ণাঢ্য র‌্যালি) শেষে মোহাম্মদপুরে মাহফিলে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, সম্প্রতি ফ্রান্সে প্রিয় নবী (সা.) এর অবমাননাকর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনে বিশ্ব মোড়লদের নিরবতা, ওআইসি, আরবলীগের অভিভাবকহীন মানসিকতা, জাতিসংঘের খেয়ালিপনায় বিশ্ববিবেককে নাড়া দিয়েছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে জাতিসংঘসহ সকল অভিভাবক সংস্থাকে নবী (সা.) ও ধর্মের প্রতি বিদ্বেষপোষণকারীদের শাস্তির আওতায় আনার বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানান।
লাখো মানুষের অংশগ্রহণে জুলুছটি কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া আলিয়া মাদরাসা থেকে শুরু হয়ে জেনেভা ক্যাম্প, আসাদগেট, মোহাম্মদপুর টাউনহল, শিয়া মসজিদ, আদাবর, শ্যামলী হয়ে পুনরায় মাদরাসায় গিয়ে নবী প্রেমিদের বিশাল সমাবেশে নবী (সা.) এর বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন আগত অতিথি ও প্রখ্যাত উলামায়ে কেরামরা। অনুষ্ঠিত জুলুছ (র‌্যালী) ও মাহফিলে আঞ্জুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ মুহাম্মদ মহসিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ মুহাম্মদ সাদেক খান। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন, ২৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল আলহাজ মো. সলিম উল্লাহ সলু, আলহাজ মো. শহিদ উল্লাহ, আলহাজ মো. নুরুল ইসলাম রতন, আলহাজ মুহাম্মদ সিরাজুল হক, মো. মিজানুর রহমান, আলহাজ মো. আব্দুল মালেক বুলবুল, আলহাজ শোয়েবুজ্জামান চৌধুরী তুহিন, অধ্যাপক আবুল কাশেম মুহাম্মদ ফজলুল হক, হাজী নুরুল আমিনসহ ঢাকা আঞ্জুমান ও গাউসিয়া কমিটির নেতৃবৃন্দ।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এছাড়াও নীতিহীন, আদর্শহীন হয়ে বেঁচে থাকার চেয়ে মৃত্যুই শ্রেয়। আর আদর্শিক চেতনায় বিশ্বাসী হয়ে জীবন গঠন করতে পারলে ইহকালে শান্তি এবং পরকালে মুক্তি সু-নিশ্চিত। পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্রে তথা সর্বত্র কুরআন-সুন্নাহর আলোকে জীবন গঠনের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন নেতৃবৃন্দ।
জুলুছে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশের বিভিন্ন শাখা, ধর্মীয় সংগঠন ও বিভিন্ন জেলা, মহানগর থেকে আগত নবী প্রেমিক ধর্ম প্রেমিক আশেক- হাজার হাজার ভক্তরা রং বেরংয়ের ব্যানার পেস্টুন, কালেমা খচিত পতাকা নিয়ে মিছিলে অংশগ্রহণ করেন। জশনে জুলুছ শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় তৈয়্যবিয়া আলিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল আল্লামা হাফেজ আবদুল আলিম রিজভী বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন