ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

৮ ফেব্রুয়ারি সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসনের বিচার শুরু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১, ১০:৩১ এএম

মার্কিন সিনেটে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন বিচার আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে। ডেমোক্র্যাটদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি গতকাল শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) এ খবর জানিয়েছে। মার্কিন কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটলে সমর্থকদের হামলার ঘটনায় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এই অভিশংসনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়। রিপাবলিকনরা বিচার শুরু করতে বিলম্ব করার জন্য ডেমোক্র্যাটদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল। যাতে করে ট্রাম্প আত্মপক্ষ সমর্থনের প্রস্তুতি নিতে পারেন।
মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি সোমবার অভিশংসনের দলিলপত্র হস্তান্তর করবেন বলে সিনেটকে জানিয়েছেন।
বিবিসি জানায়, সেনেটে ডেমোক্র্যাট দলের নেতা চাক শুমার শুক্রবার বলেছেন, ‘কোনো ভুল করা চলবে না। যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে এবং সাবেক প্রেসিডেন্টের দোষ বিচারে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হবে।’ ‘এটি হতে যাচ্ছে একটি নিরপেক্ষ এবং পূর্ণাঙ্গ শুনানি।’
গত ১৩ জানুয়ারি ট্রাম্পের অভিশংসন বিষয়ে প্রতিনিধি পরিষদে কয়েক ঘণ্টার বিতর্ক শেষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৩২-১৯৭ ভোটে ট্রাম্পকে অভিশংসিত করা হয়। তার বিরুদ্ধে গত ৬ জানুয়ারি হোয়াইট হাউসের বাইরে একটি সমাবেশের ভাষণে ক্যাপিটল ভবনে হামলায় উসকানি দেয়ার অভিযোগ আনা হয়।
এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ট্রাম্পই হলেন একমাত্র প্রেসিডেন্ট যাকে দুইবার অভিশংসন করা হয়। এর আগে ২০১৯ সালে ট্রাম্প প্রথমবারের মতো প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসনের সম্মুখীন হন।
গত ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনে আগ্রাসী তাণ্ডব চালায় ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা। তখন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে নির্বাচনে জো বাইডেনের জয় অনুমোদনের প্রক্রিয়া চলছিল সেখানে।
যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদ এবং সেনেট দুই কক্ষেরই নিয়ন্ত্রণ এখন ডেমোক্র্যাটদের হাতে। সে কারণে অভিশংসন বিচার কখন, কিভাবে হবে তা নির্ধারণের ভার তাদেরই।
তাই এবারের অভিশংসনের বিচার ট্রাম্পের গতবারের বিচারের থেকে সম্পূর্ণই আলাদা। গতবার ট্রাম্প অভিসংশিত হওয়ার সময় সেনেটে রিপাবলিকানরা সংখ্যাগরিষ্ঠ ছিল এবং তাদের নেতা ছিলেন মিচ ম্যাককনেল।
এবার বিচারের সময় নির্ধারণের সর্বময় ক্ষমতা স্পিকার ডেমোক্র্যাট ন্যান্সি পেলোসির হাতে। তবে পেলোসি বৃহস্পতিবার সেনেটে অভিশংসন প্রস্তাব হস্তান্তরের ব্যাপারে কিছু জানাননি। পরে শুক্রবার পেলোসির পরিকল্পনা জানিয়ে দেন চাক শুমার।
হোয়াইট হাউজ ছাড়ার পর বুধবার ফ্লোরিডা চলে গেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ঐদিনই যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেনে জো বাইডেন।
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে হামলায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ দ্বিতীয়বার ট্রাম্পকে অভিশংসিত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো ক্ষমতা ছাড়ার পর কোনো প্রেসিডেন্টের অভিশংসনের বিচার সিনেটে করা হবে। মার্কিন সিনেটে দোষী সাব্যস্ত হলে আর কখনো কোন নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না ট্রাম্প। সূত্র : বিবিসি

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন