মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত পালিত

করোনা থেকে মুক্তি পেতে মসজিদে মসজিদে কান্নাররোল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০২ এএম

করোনার মহামারির মাঝেও যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় সোমবার রাতে সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত ১৪৪২ হিজরী পালিত হয়েছে। রাতভর বিপুল সংখ্যক মুসল্লি বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ সারাদেশের মসজিদগুলোতে সমবেত হয়ে ইবাদত বন্দেগিতে মশগুল ছিলেন। করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে মহান আল্লাহর করুনা চেয়ে মহিমান্বিত রাত পবিত্র শবে বরাত পালন করেছেন মুসলমানরা। বিশেষ মোনাজাতে মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের মাঝে কান্নাররোল পড়ে যায়। দেশের সুখ সমৃদ্ধি উন্নতি ও মুসলিম উম্মার কল্যাণ কামনা করে মসজিদগুলোতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে মুসল্লিরা মোনাজাতে অংশ নেন।

হিজরী বর্ষের শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটি বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ পবিত্র শবে বরাত বা সৌভাগ্যের রজনী হিসেবে পালন করেন। মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য এ রাত ‘লাইলাতুল বরাত’ হিসেবে পরিচিত।
মহান আল্লাহ তায়ালার রহমত লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মুসলমান নর-নারীরা যার যার ঘরেও রাতভর মগ্ন ছিলেন ইবাদত বন্দেগিতে। অনেকে নফল রোজা রেখেছেন। নগরীর মহাখালীস্থ মসজিদে গাউছুল আজমেও সারারাত বিপুল সংখ্য মুসল্লি যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে ইবাদত বন্দেগিতে মশগুল ছিলেন। সারা বিশ্বের মুসলমানদের কাছে সওয়াব হাসিল আর গুনাহ্ থেকে পানাহ্ চাওয়ার রাত হিসেবে শবে বরাতের মর্যাদা অতুলনীয়। তাই নফল ইবাদত, কোরআন তেলাওয়াত, ইবাদত বন্দেগি, জিকির-আসকার, করব জিয়ারত আর বিশেষ মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ফজিলতের এই রাত পালন করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

পবিত্র শবে বরাত উদযাপন উপলক্ষে সোমবার বাদ মাগরিব ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে “পবিত্র শবে বরাত এর গুরুত্ব ও তাৎপর্য” শীর্ষক ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওয়াজ মাহফিল শেষে বাদ এশা দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। ওয়াজ ও দোয়া মোনাজাত করেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান। মোনাজাতে দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করে দোয়া করা হয়। এছাড়া করোনাভাইরাসের প্রকোপ থেকে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব যাতে রক্ষা পায় ও নিরাপদ থাকে সেজন্যও বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও মোনাজাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারি ও সাধারণ মুসল্লিগণ অংশ নেন।

হাদিসে আছে মহিমান্বিত এই রাতে মহান আল্লাহতায়ালা তার তিনশ দরজা খুলে বান্দার সবচেয়ে কাছাকাছি প্রথম আসমানে নেমে আসেন। এই রাতেই মানুষের ভালো মন্দের আমলনামা তুলে ধরা হয় মহান আল্লাহ পাকের দরবারে।
কোরআন এবং হাদিসে মহিমান্বিত এ রাতে দলগতভাবে বিশেষ কোন ইবাদতের নির্দেশ নেই। আর করোনার এই সংক্রমণের মধ্যে মুমিন মুসলমানরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিরাপদ দুরত্বে রাতভর ইবাদত বন্দেগিতে মশগুল ছিলেন। পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। এ উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার সরকারি ছুটি ছিল। বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি টিভি চ্যানেল ও রেডিও এ উপলক্ষে ধর্মীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেছে। এ ছাড়া দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে জাতীয় দৈনিকগুলো বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করে। সোমবার সংবাদপত্রগুলোতে ছুটি থাকায় গতকাল মঙ্গলবার কোনো পত্রিকা প্রকাশিত হয়নি।

চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, মসজিদ এবং ঘরে বাড়িতে ইবাদত বন্দেগি, নফল নামাজ, দোয়া-দরূদ, কোরআন তিলাওয়াত, জিকির-আজগর ও তাওবা ইস্তেগফারের মধ্যদিয়ে পবিত্র এ রজনী অতিবাহিত করেন ধর্মপ্রাণ নগরবাসী। করোনা মহামারি থেকে মুক্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয় মসজিদে মসজিদে। অনেকে নফল রোজা রাখেন। নগরীর ঐহিতাসিক আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদ, জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ, লালদীঘি জামে মসজিদ, মুরাদপুর মসজিদে বেলাল, বহদ্দারহাট জামে মসজিদ, এনায়েত বাজার শাহী জামে মসজিদ, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, মেহেদিবাগ সিডিএ জামে মসজিদ, হযরত আলী শাহ জামে মসজিদ, সিজিএস কলোনী জামে মসজিদসহ বড় বড় মসজিদে মুসল্লির ঢল নামে।

রাজশাহী ব্যুরো জানায়, বাদ মাগরিব থেকে বিভিন্ন মসজিদে শুরু হয় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। মিলাদ মাহফিলে নামাজ, রোজা ও শবে বরাতের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করা হয়। মসজিদের বাইরেও বিভিন্নস্থানে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে আয়োজন ছিল আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের।
এশার নামাজের পর মুসল্লিরা মসজিদে মসজিদে রাতভর নফল নামাজ ও আল্লাহর দরবারে গুনাহ মাফ চেয়ে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করেছেন। নগরীর কবরস্থানগুলোয় ছিল মুসল্লিদের ভীড়। আত্মীয় স্বজনের কবরের পাশে দাঁড়িয়ে দোয়া দরুদ পাঠ ও তাদের জান্নাত নসীব করার জন্য আল্লাহর দরবারে মোনাজাত করেন। দ্বিতীয় দিনের মত আজও অনেকেই রোজাব্রত পালন করছেন।

বরিশাল ব্যুরো জানায়, বিভিন্ন মসজিদে মাগরিব নামাজ থেকেই মুসুল্লীগন ইবাদত বন্দেগিতে অংশ নেন। বরিশালের চকবাজার জামে এবাদুল্লাহ মছজিদে কয়েক হাজার মুসল্লি রাতভর ইবাদত বন্দেগিতে অংশ নেন। এ মসজিদে মিলাদ, জিকিরসহ দোয়া মেনাজাতে বিপুল সংখ্যক মুসল্লি শরিক হন। মসজিদের খতিব হজরত মাওলানা মির্জা নুরুর রহমান বেগ সাহেব দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করছেন। ।

পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্য বিধি মেনে শবে বরাত উপলক্ষে ধর্মীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় ফরিদপুরের বিশ্ব জাকের মঞ্জিলে। এ দরবার শরিফে রাতভর নামাজ, দরুদ, পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, মিলাদ, জিকির এবং ওয়াজ মাহফিল শেষে ফজরের নামাজ বাদ ফাতেহা শরিফ ও খতম শরিফ আদায় করা হয়। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও মিলাদ শেষে পুনরায় ফাতেহা শরিফ পাঠন্তে গতকাল সকালে বিশ্ব জাকের মঞ্জিলের পীর ছাহেব হজরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ খাজাবাবা ফরিদপুরী ছাহেবেরে রওজা শরিফ জিয়ারতের মাধমে শবে বরাতের কার্যক্রমের সমাপ্তি ঘটে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
MD Jane Alam ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:৪৪ এএম says : 0
মহিমান্বিত রজনী 'পবিত্র শবে বরাত'। পূণ্যময় এ রজনীর উসীলায় আল্লাহ আমাদের সকলকে করোনাসহ সকল প্রকার মসীবত থেকে হেফাজত করুক, আমিন।
Total Reply(0)
Abul Hosain Sikdar ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:৪৮ এএম says : 0
সঠিক ইসলামের চর্চা করতে হবে।
Total Reply(0)
Nakib Khan ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:৪৯ এএম says : 0
শবেবরাত হচ্ছে নামাজ এবং যিকির দ্বারা আল্লাহকে স্মরণ করা কিন্তু একশ্রেণীর মানুষ শবেবরাত উপলক্ষে এখন খাবার-দাবার আয়োজন করে মেহমানদারীতে ব্যস্ত
Total Reply(0)
Nadia ৩১ মার্চ, ২০২১, ২:০৮ এএম says : 0
সারা বিশ্বের মুসলমানদের কাছে সওয়াব হাসিল আর গুনাহ্ থেকে পানাহ্ চাওয়ার রাত হিসেবে শবে বরাতের মর্যাদা অতুলনীয়।
Total Reply(0)
পলাশ ৩১ মার্চ, ২০২১, ২:০৯ এএম says : 0
আল হামদু লিল্লাহ
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন