ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার না করায় ৯১ জনকে জরিমানা

প্রকাশের সময় : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর বাংলামোটর এলাকায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভ্রাম্যমাণ আদালত গতকাল ৯১ জনকে বিভিন্ন অপরাধে জরিমানা করেছে। ডিএমপির ওই ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মশিউর রহমান জানান, বেলা আড়াইটা পর্যন্ত ৯১ জনকে মোট ৮ হাজার ২৩০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সর্বোচ্চ জরিমানার হার ২০০ টাকা। ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার না করায় ওই ৯১ জনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
পথচারীদের সড়ক পারাপারে ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে উৎসাহী করতে রাজধানীর বাংলামোটর এলাকায় গতকাল রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে তাদের জরিমানা করে।
ডিএমপি ট্রাফিক (দক্ষিণ) বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) রিফাত রহমান বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সহায়তায় ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে উৎসাহিত করাই এ অভিযানের লক্ষ্য। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বাংলামোটর পুলিশ বক্স থেকে অভিযান শুরু হয়। যারা ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার না করে ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার করেন এ অভিযানে তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। তার দাবি জরিমানা ও প্রচারণার কারণে মানুষ ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে সচেতন হবে। অন্যদিকে রাজধানীর শাহবাগে শিশুপার্কের সামনে থেকে অবৈধ স্থাপনা ও দোকানপাট উচ্ছেদ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ডিএসসিসি সূত্র জানায়, দুটি বুলডোজার দিয়ে শিশুপার্কের সামনের ৭০-৮০টি দোকান উচ্ছেদ করা হয়। এ ছাড়া পার্কসংলগ্ন ফুলের দোকানসহ পাশেই অবস্থিত একটি ফুলের মার্কেটের বর্ধিতাংশও ভেঙে দেওয়া হয়েছে।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, শাহবাগের ওই এলাকায় গড়ে ওঠা অবৈধ দোকানপাট পার্কের সৌন্দর্য নষ্ট করছিল। এর আগেও তাদের দুবার উচ্ছেদ করা হয়েছিল। কিন্তু কিছুদিন পরই তারা আবার ফিরে এসেছেন। উচ্ছেদ শুরুর আগে দোকানপাটসহ মালামাল সরিয়ে নিতে দুই দিন ধরে মাইকিং করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, শিশুপার্কের ভিতরে ১৪টি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এর মধ্যে অভিজাত স্ন্যাকস ও অপু স্ন্যাকসকে যথাক্রমে ৫ ও ৩ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। অভিজাত স্ন্যাকস নির্ধারিত সীমানার বাইরে টেবিল-চেয়ার রেখেছিল। আর অপু স্ন্যাকস মূল্য তালিকার চেয়ে বেশি দামে পণ্য বিক্রি করছিল।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন