ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মেঘনা ও বুড়াগৌড়াঙ্গ নদীতে অবৈধ জাল দিয়ে মাছ নিধন

প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চরফ্যাশন উপজেলা সংবাদদাতা : ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলার মেঘনা ও বুড়াগৌড়াঙ্গ নদীতে পুলিশ ও কোস্টগার্ডকে ম্যানেজ করে অবৈধ কারেন্ট জাল, পকেট জাল, বিহিন্দি ও চরঘেরা জাল ব্যবহার করে মাছের রেণু থেকে সকল ধরনের মাছের পোনা ও মাছ অবাধে নিধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলেরা জানান, চরমানিকা আউট পোস্ট কোস্টগার্ডকে আমরা প্রতি সপ্তাহে কোস্টগার্ডকে নৌকা প্রতি পাঁচশত টাকা দিয়ে নদীতে মাছ শিকার করি। কোস্টগার্ড নদীতে টহল অব্যাহত রাখলেও আমাদের নৌকা বা ট্রলার ধরে না। অপরদিকে দক্ষিণ আইচা বাজারের মাছ বাজারের আড়ৎদাররা জানান, ৬ মাসের জন্য তারা দক্ষিণ আইচা থানার অফিসার ইনচার্জ ৮০ হাজার টাকায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার কারণে বাজারে ঘাটে জাটকা ইলিশ নিধনের সাথে প্রকাশ্যে বিক্রি করছে। প্রকাশ্যে জাটকা বিক্রি করার সময় এক খুচরা দোকানীর সাথে আলাপ করলে তিনি এ সময় একথাগুলো জানান, আড়ৎদার গদি থেকে নেমে খুচরা দোকানীকে নিয়ে যায় ফলে আর কোন বক্তব্য নেয়া যায়নি। চরমানিকা আউটপোস্ট কোস্টগার্ড কমান্ডার জুলহাসের সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, আগে হেলাল মাঝি কোস্টগার্ডের নামে উপজেলার বিভিন্ন ঘাট থেকে জেলেদের সুবিধা পাইয়ে দেয়ার নামে টাকা তুলতো বিধায় তাকে মাঝির চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়েছে। বর্তমানে এমন কোন অভিযোগ নেই। থানা পুলিশ আড়ৎ থেকে মৌখিক চুক্তিবদ্ধ হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করলেও জানান, মাঝে মাঝে কনেস্টবলরা বিভিন্ন ঘাট ও বাজার থেকে মেসে খাবারের মাছ আনে। দক্ষিণ আইচা থানার অফিসার ইনচার্জ হানিফ সিকদারের মুঠোফোনে আলাপ করলে তিনি জানান, পুলিশ কোন অভিযান করেনা তাদের বিরুদ্ধ অভিযোগ সঠিক না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন