বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মঠবাড়িয়ায় ৬ ইউপি নির্বাচনে নৌকার জয় ৫টিতে স্বতন্ত্র ১টি

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০২১, ৩:৪৮ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সোমবার অনুষ্ঠিত ১ম ধাপে ৬টি ইউপি নির্বাচনে বেসরকারী ফলাফলে নৌকা জয় পেয়েছে ৫টিতে এবং স্বতন্ত্র জয় পেয়েছে ১টিতে। বিজয়ী চেয়ারম্যানরা হলেন, ১নং তুষখালী ইউনিয়নে মো. শাহজাহান মিয়া নৌকা), ৩নং মিরুখালী ইউনিয়নে মো. আবু হানিফ খান (আনারস), ৭নং বেতমোর রাজপারা ইউনিয়নে দেলোয়ার হোসেন আকন নৌকা), ৮নং আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নে শারমিন জাহান নৌকা) ও ৯নং সাপলেজা ইউনিয়নে মো. মিরাজ মিয়া (নৌকা)।
নির্বাচনে সাপলেজা, আমড়াগাছিয়া ও বেতমোর রাজপারা ইউনিয়নে ব্যাপক কারচুপি ও নৌকা সমর্থকদের কেন্দ্রে ঢুকে সাধারণ ভোটারদের তাদের সামনে জোরপূর্বক নৌকায় সীল মারা, প্রতিদ্বন্দ্বী সমর্থকদের মারধর হুমকী ধামকির অভিযোগ, কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ তুলে তিন ইউনিয়ন পরিষদের নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী ১২জন চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট বর্জণের ঘোষণা দেয়। দুপুরে নির্বাচন চলাকালে উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী সাত প্রার্থী, আমড়াগাছিয়া ইউপির তিন প্রার্থী ও বেতমোরে দুইজন প্রার্থী ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। এ ১২জন প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে এ ভোট বর্জনের ঘোষাণা দেন। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।
ভোট বর্জনকৃত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, সাপলেজা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম (টেলিফোন প্রতীক), মো. শামীম (ঢোল প্রতীক), আবু কালাম মোল্লা (চশমা প্রতীক), মো. ইদ্রিস আলী মোল্লা (পাখা প্রতীক), মো. এনামুল কবীর (আনারস প্রতীক) মো. গোলাম রব্বানী (টেবিল ফ্যান), মো. আমীর খান (মোটরসাইকেল প্রতীক), আমড়াগাছিয়া ইউপির স্বতন্ত্র প্রার্থী ইব্রাহিম খলিল ফরাজি (টেলিফোন প্রতীক), প্রভাষক কামাল (গোলাপ ফুল প্রতীক), মো. সুলতান মিয়া (আনারস প্রতীক) ও বেতমোর ইউপির স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুদ্দিন ফেরদৌস রুম্মান (ঘোড়া প্রতীক), মো. শহীদুল ইসলাম (টেলিফোন প্রতীক)।
তবে ওই তিন ইউপি নির্বাচনের দায়িত্বরত রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শওকত হোসেন জানান, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। দুই একটি কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া মাত্র সেখানে টহল পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাবসহ আইন শৃংখলা বাহিনী ত্বরিত ব্যবস্থা নিয়েছেন। ওই তিন ইউপির স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ভোট বর্জনের কোনো লিখিত অভিযোগ আমরা পাইনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন