বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রোমের হাসপাতালে সফল অস্ত্রোপচার পোপ ফ্রান্সিসের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২১, ৫:২০ পিএম

বেশ কয়েকদিন ধরেই শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। শেষ পর্যন্ত রোববারের প্রার্থনার পরই স্থানীয় সময় সন্ধ্যেবেলা রোমের গেমেলি ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে অন্ত্রে অস্ত্রোপচার হল পোপ ফ্রান্সিসের। তবে অস্ত্রোপচারের পর সুস্থই রয়েছেন ৮৪ বছর বয়সি খ্রিস্টান ধর্মগুরু। এমনটাই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এই প্রসঙ্গে ভ্যাটিকান সিটির মুখপাত্র মাত্তেও ব্রুনি এক বিবৃতিতে জানান, ২০১৪ সালে দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথমবার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। তবে অপারেশনের পর সুস্থ রয়েছেন পোপ। যদিও এই অপারেশন আচমকা বা জরুরি ভিত্তিতে করা হয়নি। বরং বেশ কিছুদিন আগে থেকেই নির্ধারিত ছিল। তবে এই অপারেশনের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি ব্রুনি। পোপকে কতদিন হাসপাতালে থাকতে হবে সে বিষয়েও কিছু বলেননি।

পোপের বৃহদান্ত্রে ‘সিম্পটোম্যাটিক ডাইভার্টিকুলার স্টেনোসিস’-এর জন্য অপারেশন করা হয়েছে বলে খবর। এই অসুখে কোলন সঙ্কুচিত হয়ে যায়। ১০ মেডিক্যাল সদস্যের একটি দল এই অস্ত্রোপচারে অংশ নিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। ব্যথার পাশাপাশি এই অসুখের কারণে বমি, প্রদাহ এবং অন্ত্রে অসুবিধা দেখা দেয়। বয়স্কদের মধ্যে এসব সমস্যা আরও বেশি দেখা দেয়। পোপ ফ্রান্সিস বেশ কিছুদিন ধরেই এই অসুখে ভুগছিলেনও। যদিও রোববার সেন্ট পিটার্স স্কোয়্যারে ভাষণ দেয়ার সময়ও পোপকে সুস্থই দেখা যাচ্ছিল। এর কয়েক ঘণ্টা পরেই তার অস্ত্রোপচারটি হয়েছে। এদিকে, ওই ভাষণে পোপ জানান, আগামী সেপ্টেম্বরে স্লোভাকিয়া সফর করবেন তিনি। তার আগে হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের এক অনুষ্ঠানেও যোগ দেয়ার কথা রয়েছে পোপ ফ্রান্সিসের। এখন দেখার কবে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরেন তিনি।

ছকভাঙা পথে হেঁটে নিজের উদারপন্থী মানসিকতার জন্য প্রবল জনপ্রিয় ভ্যাটিকানের বর্তমান পোপ ফ্রান্সিস। ব্যাসিলিকার ঘেরাটোপেই বসে থাকেননি তিনি। বাইরে বেরিয়ে পথেঘাটে ঘুরে সাধারণ জনতার সঙ্গে কথাবার্তা বলে তিনি বুঝিয়েছিলেন, আপনজন হতে না পারলে আন্তরিক শ্রদ্ধা অর্জন করা যায় না বিশেষ। ক্রিসমাস হোক কিংবা অন্য যে কোনও উৎসবে, ভ্যাটিকানের ঝুলন্ত বারান্দা থেকে পোপ জনতাকে শুভেচ্ছা জানান। কখনও সরাসরি সংযোগ স্থাপনও করেন। এহেন পোপের অসুস্থতার খবর অনেকেই তাই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সূত্র: রয়টার্স।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন