বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮ আশ্বিন ১৪২৮, ১৫ সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

বিরোধীদের সঙ্গে সহযোগিতা চুক্তিতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

মালয়েশিয়ায় বিরোধী দলের সঙ্গে একটি সহযোগিতা চুক্তি সই করেছে প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুবের জোট। কোভিড-১৯ মহামারীর এই সময়ে দেশের স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে সোমবার এই চুক্তি করা হয়। পার্লামেন্টে আস্থাভোটে প্রধানমন্ত্রীর জয়লাভেও এই চুক্তি সহায়ক হতে পারে। ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গানাইজেশনের (ইউএমএনও) নেতা ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব গত অগাস্টে প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিনের স্থলাভিষিক্ত হন। পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর পর পদত্যাগ করেছিলেন মুহিউদ্দিন। এরপর ঊর্ধ্বতন অন্যান্য মালয় শাসকদের সঙ্গে সাক্ষাত করে সাবরিকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নিয়োগের আদেশ দেন রাজা। এ পরিস্থিতিতে প্রধানন্ত্রীর সমর্থন বাড়ানোর চেষ্টাতেই বিরোধীদের সঙ্গে তার ওই সহযোগিতা চুক্তি সই। কোভিড-১৯ পরিকল্পনা জোরদার করা, শাসনব্যবস্থায় রূপান্তর, পার্লামেন্ট সংস্কার এবং স্বাধীনতা ও বিচারবিভাগ-সহ ছয়টি ক্ষেত্রে দ্বিদলীয় এই চুক্তি করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন সাবরি। তিনি বলেন, “এ চুক্তির ফলে কেবল যে রাজনৈতিক মতভেদ দূরে সরিয়ে রাখা যাবে তাই নয়, বরং দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনের মধ্য দিয়ে জাতির পুনরুজ্জীবনও নিশ্চিত হবে বলে সরকার আস্থাশীল।” মালয়েশিয়ায় রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে মাত্র ১৭ মাস ক্ষমতায় থেকে পদ ছাড়তে হয়েছিল মুহিউদ্দিনকে। এরপরই দেশে কোভিড-১৯ মহামারী এবং অর্থনৈতিক দুর্দশা সামাল দেওয়া নিয়ে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে জনরোষ বাড়তে থাকার সময়ে শাসনক্ষমতায় আসেন সাবরি। সাবরি প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় তিন বছর পর আবারও মালয়েশিয়ার শাসন ক্ষমতায় এসেছে ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (ইউএমএনও) পার্টি, যাকে বলা হয় মালয়েশিয়ার ‘প্রাচীনতম দল’। ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ বিশেষ করে, ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বারহাদ (ওয়ানএমডিবি) বিনিয়োগ তহবিলের মতো কোটি কোটি ডলারের কেলেঙ্কারির জেরে তিন বছর আগে সাধারণ নির্বাচনে হেরে গিয়েছিল দলটি। স্ট্রেইট টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন