বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সাবেক কর্মকর্তাদের ব্যাংক হিসাব অনুসন্ধানে তালেবান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

তালেবানরা আফগান সরকারের সাবেক উচ্চপদস্থ সদস্যদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট অনুসন্ধান করছে। এর ফলে সাবেক সরকারি কর্মচারী, মন্ত্রী এবং আইন প্রণেতাদের সম্পদ এবং অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা যেতে পারে বলে দ্যা আফগানিস্তান ব্যাংকের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

একটি বেসরকারি ব্যাংকের ম্যানেজার নিশ্চিত করেছেন যে, নির্বাচিত সাবেক সরকারি কর্মকর্তাদের অ্যাকাউন্ট চেক করার জন্য ‘তালেবান নিরীক্ষকদের’ একটি দল সংগঠনে মোতায়েন করা হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির প্রশাসনের অধীনে দুর্নীতি ব্যাপক ছিল এবং কয়েক মিলিয়ন ডলারের সাহায্যের টাকা পাবলিক পার্স থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে মনে করা হয়। ১৫ আগস্ট যখন তালেবানরা কাবুলে প্রবেশ করে তখন আবু ধাবিতে পালিয়ে যাওয়া সাবেক প্রধানমন্ত্রী গনি তার সাথে লাখ লাখ টাকা নিয়ে গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এবং বলেছেন যে, তিনি নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে প্রস্তুত।

মঙ্গলবার, তালেবানের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা তাদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে ভিডিও পোস্ট করেছেন যেখানে, সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহের পাঞ্জশিরের বাসা থেকে লাখ লাখ ডলার নগদ এবং স্বর্ণের বার উদ্ধার করার ঘটনা দেখানো হয়। সেখানে দেখা গেছে তালেবান যোদ্ধারা মেঝেতে বসে আছে এবং নগদ টাকা এবং স্বর্ণের বার গুনছে যা দৃশ্যত স্যুটকেসে পাওয়া গেছে। একজন যোদ্ধা বলছেন, তালেবানের হাতে পতনের পরের দিন তারা প্রায় ১ লাখ ডলার খুঁজে পান এবং পরবর্তীকালে অনুসন্ধানে আরও ৬২ লাখ ডলার এবং ১৮ টি স্বর্ণের বার পাওয়া গিয়েছিল।

সম্ভাব্য অবৈধ সম্পদের তদন্তটি আসে যখন আফগানিস্তান একটি বড় নগদ সংকটের কবলে পড়ে, মানুষ ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিদিন মাত্র ২০০ ডলারের সমপরিমাণ টাকা উত্তোলনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে - এবং তা করতে ঘন্টার পর ঘন্টা সারিবদ্ধ থাকতে হয়। তালেবান ক্ষমতায় আসার আগেও, সরকারী বেতন প্রায়ই দেরিতে দেয়া হত-এবং গ্রামীণ শ্রমিকদের ক্ষেত্রে মাসব্যাপী দেরি হওয়ার নজিড়ও রয়েছে।
মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজে অর্থ সংগ্রহের জন্য তাদের গৃহস্থালী সামগ্রী বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে এবং বেশিরভাগ নগর কেন্দ্রে সেকেন্ড হ্যান্ড পণ্যের বাজার জমজমাট হয়ে উঠেছে। বিশ্বব্যাংক এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আফগানিস্তানের অর্থায়নে প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে, অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র কাবুলের জন্য তার রিজার্ভে থাকা নগদ টাকাও হিমায়িত করেছে। আফগান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ভারপ্রাপ্ত গভর্নর আজমল আহমদি গত সপ্তাহে টুইট করেছিলেন যে, দেশটির ৯০০ কোটি ডলারের রিজার্ভে তাদের কোন অ্যাক্সেস নেই। সূত্র : ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন