সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভারতের পথে চট্টগ্রামে মিতু হত্যা মামলার আসামি ভোলা গ্রেফতার

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৫:৪৭ পিএম

চট্টগ্রামের চাঞ্চল্যকর সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার আসামি এহতেশামুল হক ভোলাকে যশোরের বেনাপোল থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারি সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআইর একটি বিশেষ টিম তাকে পাকড়াও করে। সে ভারত পালিয়ে যাচ্ছিল বলে জানা গেছে। শনিবার তাকে আদালতে তোলা হয়। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে গ্রেফতারের পর শুক্রবার তাকে চট্টগ্রাম আনা হয়।

২০১৬ সালের ৫ জুন নগরীর পাঁচলাইশ থানার ও আর নিজাম রোডে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে বাসার অদূরে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে খুন করা হয় মিতুকে। স্ত্রী খুনের ঘটনায় পুলিশ সদর দফতরের তৎকালীন এসপি বাবুল আক্তার বাদি হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছিলেন। ওই মামলায় ২০১৬ সালের ২৭ জুন নগরীর বাকলিয়া এলাকা থেকে মিতু হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র-গুলিসহ এহতেশামুল হক ভোলা ও তার সহযোগী মো. মনিরকে গ্রেফতার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।
২০১৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর জামিনে কারামুক্তি পান এহতেশামুল হক। চলতি বছরের ১১ মে বাবুল আক্তারকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পিবিআই। তদন্তে বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের লক্ষ্যে ১২ মে ওই মামলার ৫৭৫ পৃষ্ঠার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেয় পিবিআই। আগের মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদনে দাখিলের পর একই দিন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন বাদি হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় বাবুল আক্তারসহ আটজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ভোলাও এই মামলার আসামি। এই দ্বিতীয় মামলায় জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে গিয়ে ব্যর্থ হন ভোলা। গ্রেতারের তোড়জোড়ের মধ্যে ভোলা যশোরের বেনাপোলে গিয়ে আত্মগোপন করেছিলেন। সীমান্ত পাড়ি দিয়ে দেশ ছেড়ে ভারতে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৭:২৭ পিএম says : 0
একটি ভদ্র মেয়ে দেখতে কি সুন্দর তার দুইটি ছেলে রেখে বাবুল আক্তার যে কাজ করেছে মানবতাবিরোধী অপরাধের কাজ,ওকে জরুরি ফাঁসি দেওয়া হউক,এবং তার দুইটি ছেলে কে নানা নানিল কাছে দেওয়া হউক,বাবুল আকতার হুকুমের আসামি তাকে ফাঁসি দেওয়া জরুরি।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন