রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যেভাবে শত কোটি ডলারের মালিক হয়েছেন ডরসি

টুইটার থেকে পদত্যাগ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

গত কয়েকমাস ধরেই শোনা যাচ্ছিল, পদ ছাড়ছেন টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি। সোমবার টুইটারে তিনি একটি পোস্ট করেন। সেখানে তার পদত্যাগপত্র আপলোড করেন তিনি। টুইটারের পরবর্তী সিইও হবেন পরাগ আগরওয়াল। এখন তিনি সংস্থার চিফ টেকনোলজি অফিসার।

জ্যাক বলেছেন, তার মন খারাপও হচ্ছে, আবার ভালোও লাগছে। সব মিলিয়ে এক মিশ্র অভিজ্ঞতা। তবে পরাগের প্রশংসা করেছেন তিনি। জ্যাক জানিয়েছেন, টুইটার যখন যখন সমস্যায় পড়েছে, পরাগ ত্রাণকর্তার ভ‚মিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ফলে তার হাতে টুইটার আরো ভালো করবে বলে তিনি মনে করেন। টুইটার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন জ্যাক ডরসি। আরো অনেক মিডিয়া ব্যারনের মতো তিনিও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়া বন্ধ করে নিজের সংস্থা তৈরির নেশায় মেতেছিলেন। প্রথম দিন থেকেই টুইটার নেট নাগরিকদের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়েছে। তবে জ্যাকের সঙ্গে সংস্থার সম্পর্ক বরাবর একরকম থাকেনি। ২০০৮ সালে টুইটার থেকে বেরিয়ে যান জ্যাক। ২০১৫ সালে তৎকালীন সিইও ডিক কসটোলো সংস্থা ছাড়ার পরে ফের তিনি টুইটারে যোগ দেন এবং সিইও হন। এদিকে, মাত্র দশ বছর আগে একজন সাধারণ ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে টুইটারে যোগ দিয়েছিলেন পরাগ। তার পরের দৌড় স্বপ্নের। পরাগ জানিয়েছেন, জ্যাকের কাছ থেকে তিনি অনেক কিছু শিখেছেন। টুইটারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সেই শিক্ষা কাজে লাগবে। ডরসির জীবনের গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক ও সময় তুলে ধরা হলো- ২০০৬: ডরসির প্রথম টুইট-‘আমার টুইটার সেটিং আপ করছি’। ২০০৮: বোর্ড ডরসিকে বহিষ্কার করার পর সহ-প্রতিষ্ঠাতা ইভান উইলিয়ামস সিইও হিসেবে দায়িত্ব নেন। ডরসি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩: টুইটার ৩১ বিলিয়ন ডলার মূল্যের শেয়ার বাজারে ছাড়ে। ২০১৫: ডিক কস্টোলো পদত্যাগ করার পরে ডরসি টুইটারের সিইও হিসাবে ফিরে আসেন। ২০১৭: একজন টুইটারকর্মী তার শেষ দিনে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করেছিলেন যা ১১ মিনিট পরে পুনরুদ্ধার করা হয়েছিল। ২০১৮: টুইটার টুইটের অক্ষরসীমা ১৪০ থেকে বাড়িয়ে ২৮০ করে, যা টুইটারভার্সে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে। ২০২০: অ্যাক্টিভিস্ট হেজ ফান্ড এলিয়ট ম্যানেজমেন্ট পরিবর্তনের জন্য চাপ দেন, যার মধ্যে ডরসিকে সিইও পদ থেকে অপসারণ করার কথা বলা হয়। ২০২০: টুইটার ইলিয়টের সাথে একটি চুক্তিতে পৌঁছায় যাতে ডরসিকে সিইও হিসেবে থাকতে দেওয়ার জন্য তিনজন নতুন পরিচালক নিয়োগ দেয়া হয়।

২০২১: ক্যাপিটলে দাঙ্গার পরিপ্রেক্ষিতে, টুইটার ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে স্থগিত করা হয়। কোম্পানিটি সহিংসতার আরো উস্কানি দেয়ার ঝুঁকির কথা উল্লেখ করে। ২০২১: টুইটার ২০২৩ সালের শেষ নাগাদ বার্ষিক রাজস্ব কমপক্ষে ৭৫৯ কোটি ডলার এবং ৩১ কোটি ৫০ লাখ নগদীকরণযোগ্য দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারী বা যারা বিজ্ঞাপন দেখেন তাদের অর্জনের পরিকল্পনার রূপরেখা ঘোষণা করে। ২০২১: মার্চ মাসে, ডরসি তার প্রথম টুইটটি একটি নন-ফাঞ্জিবল টোকেন (এনএফটি) হিসাবে ২৯ লাখ ডলারের চেয়েও বেশি দামে বিক্রি করেছিলেন। এটি এক ধরনের অনন্য ডিজিটাল সম্পদ। ২০২১: সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জুলাইয়ে টুইটার, ফেসবুক ইনক. এবং অ্যালফাবেট ইনকর্পোরেটেড গুগলের পাশাপাশি তাদের প্রধান নির্বাহীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তিনি অভিযোগ করেন, তারা বেআইনিভাবে রক্ষণশীল দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশে বাধা দিচ্ছেন। ২০২১: কোম্পানি বলেছে যে, ৩০ সেপ্টেম্বর শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকে তাদের গড় নগদীকরণযোগ্য দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারী সংখ্যা ২১ কোটি ১০ লাখ। ২০২১: ফোর্বস অনুসারে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত ডরসির মোট সম্পদ ১ হাজার ১৮০ কোটি ডলার। সূত্র : ট্রিবিউন, রয়টার্স, এপি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন