বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

লিগ্যাল এইডের ‘দিশারী’ দিশা দেখাবে কুমিল্লার অসহায় বিচারপ্রার্থীদের

কুমিল্লা থেকে সাদিক মামুন | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ৯:১১ পিএম

বিনা খরচে ফৌজদারি, দেওয়ানি ও পারিবারিক বিষয়ে পরামর্শ ও বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তির মতো আইনগত সহায়তা প্রদানে গত পাঁচ বছরে কুমিল্লায় ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে জেলা লিগ্যাল এইড অফিস। সরকারি এ সংস্থাটি কুমিল্লায় গরিব অসহায়দের ন্যায়বিচার প্রাপ্তির বিশ্বস্থ ঠিকানা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরিমধ্যে লিগ্যাল এইডের কার্যক্রমের ব্যাপারে স্বচ্ছ ও পরিপূর্ণ ধারণা পেতে সংস্থাটি প্রকাশ করেছে 'দিশারি' নামে একটি তথ্য সহায়িকা।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ এবং জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান মোঃ আতাবুল্লাহর তত্ত্বাবধানে এবং জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের বিদায়ী অফিসার ফারহানা লোকমানেরর সম্পাদনায় 'দিশারি'র মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এই তথ্য সহায়িকা বিচার প্রার্থীদের আইনগত সহায়তা প্রাপ্তির সঠিক দিশা দেখাবে বলে মন্তব্য করেছেন কুমিল্লার আইনাঙ্গনের বিজ্ঞজনরা।

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার, লিগ্যাল এইডের মাধ্যমে নিশ্চিত করেছে শেখ হাসিনার সরকার- এই প্রতিপাদ্যকে ঘিরে মুজিব শতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর অনন্য উপলক্ষকে সামনে রেখে বর্তমান সরকারের অন্যতম সেবামূলক কার্যক্রম আইনগত সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের ব্যাপক প্রচারের লক্ষ্যে প্রকাশ করা হয় দিশারী। এই তথ্য সহায়িকা কুমিল্লা জেলার সংশ্লিষ্ট দপ্তর, উপজেলা লিগ্যাল এইড কমিটি, ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটি, তথ্য অফিস সহ প্রয়োজনীয় সকল দপ্তরে প্রেরণ করা হবে।

গরিব-অসহায় বিচার প্রার্থীদের জন্য ‘দিশারী’কে একটি অসাধারণ তথ্য সহায়িকা উল্লেখ করে সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আতাবুল্লাহ বলেন, তথ্য জানা মানুষের অধিকার। আর সাধারন মানুষ যাতে লিগ্যাল এইড এর কার্যক্রমের ব্যাপারে সহজ, স্বচ্ছ ও সঠিক ধারণা পেতে পারে সেক্ষেত্রে 'দিশারি' বেশ সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এই তথ্য সহায়িকাতে লিগ্যাল এইড কার্যক্রমের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, বিভিন্ন কার্যক্রম ও সুবিধাভোগী বিচারপ্রার্থীদের সুফল পাওয়ার গল্প, অনুভুতি সম্বলিত লেখা, ছবি, পরিসংখ্যান ইত্যাদি প্রকাশ করায় সাধারণ মানুষ লিগ্যাল এইডে সুবিধা নেয়ার জন্য আগ্রহী হবে।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিজ্ঞ বিচারক (জেলা জজ) রফিকুল ইসলাম, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা, যুগ্ম জেলা জজ পর্যায়ের বিচারকবৃন্দ,অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো.সায়েদুল আরেফিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম তানভীর আহমেদ, বিচারকবৃন্দ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি, সম্পাদক, লিগ্যাল এইডের প্যানেল আইনজীবীবৃন্দ ও জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন