বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আইভী ও তৈমূরের গণসংযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়নগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৩ এএম

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও স্বতন্ত্র (হাতি মার্কা) মেয়র প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার গতকাল নির্বাচনী গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করেন। অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার এনসিসি ২১ নং ও ২২ নং ওয়ার্ডের এলাকায় প্রচারণা করেন তিনি। এ সময় বন্দর ঘাট থেকে শুরু করে বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে প্রচারণা চালানো হয়। এদিকে, বন্দর ঘাট পাড় হওয়ার সাথে সাথেই হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকরা হাতি মার্কার স্লোগানে ফুল দিয়ে বরণ করে তাকে। প্রিয় নেতাকে কাছে পেয়ে হাতে হাত ও আলিঙ্গন করে স্বাগত জানায় বন্দরবাসী। হাতির স্লোগানে মুখরিত করে পাড়া মহল্লা।

তৈমূর আলমকে কাছে পেয়ে গলায় ফুলের মালা পরিয়ে বরণ করেছেন স্থানীয় নারী ভোটাররা। প্রবীণ সমর্থকদের সাথে আলিঙ্গন করে হাতি মার্কায় ভোট চেয়েছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার। তৈমূর বলেন, আমি জনগণের প্রার্থী, আমি উন্নয়ণের স্বার্থে অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের গত ১৮ বছরের ব্যর্থতায় নগরবাসী এখন নতুন চায়, পরিবর্তন চায়। নগরবাসী এখন ঐক্যবদ্ধ হয়েছে, যার প্রতিফলন আগামী ১৬ জানুয়ারি জবাব দিবে। বিগত ৫০ বছর যাবত আমি খেটে খাওয়া মানুষের পক্ষে আছি। মানুষ ভালো করে যানে আমি তাদের উন্নয়নের বাহক হতে পারবো।
এবার দল থেকে না দাঁড়িয়েও যদি দল থেকে আপনাকে বসে যেতে বলে আপনি কি বসবেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম বলেন, আমি এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী। আমি জনগণের প্রার্থী হয়েছি, জনগণের জন্য লড়বো এবার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপিরসহ সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শিপলু, জেলা যুদলের সাবেক সভাপতি রানা মুজিব, বন্দর থানা বিএনপির সভাপতি নূর উদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. বিল্লাহ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম হিরন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. মতিউর রহমান মতি, প্রচার সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সোহেল, মো. পনেস প্রমুখ।
এদিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমি প্রশাসনের সুবিধা নেইনি, কখনো নিবোও না। আমার তো মনে হয় তিনিই (তৈমূর) সবচেয়ে বেশি সুবিধাভোগী প্রশাসনের। তিনি মসজিদে গিয়ে গিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন, তাকে কি কেউ কিছু বলেছে? এ সকল অভিযোগ অবান্তর। সময় যত ঘনিয়ে আসবে এ সকল অভিযোগ কমতে থাকবে। গতকাল সানারপাড় এলাকায় প্রচার-প্রচারণায় নেমে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন আইভী।
শামীম ওসমানের সমর্থন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, এ সকল কথা অনেকবার বলেছি। নির্বাচনের মধ্যে থাকাই আমাদের জন্য ভালো। আমি তৈমুর আলম খন্দকারের সঙ্গে নির্বাচন করছি। আমার আরও কয়েকজন প্রতিদ্ব›দ্বী আছেন, তাদের নিয়ে কথা বললেই ভালো। বারবার একজনকে টেনে এনে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলা ঠিক না।
তিনি বলেন, আমি মনে করি, ইয়াং জেনারেশনের জন্য প্রত্যেকটা জায়গায় চেষ্টা করেছি খেলার মাঠ, পার্ক করার জন্য। যদিও এখানে কোনো জায়গা নেই। সরকারি জায়গার চিন্তা-ভাবনা করছি। ইয়াং জেনারেশন দেখেছে আমি স্বচ্ছ রাজনীতি করি, আমি মিথ্যার আশ্রয় নেইনি। আমি কখনো চাঁদাবাজি সন্ত্রাসী করিনি। আমি উন্নয়নের রাজনীতি করি, স্পষ্ট কথা বলি। আজকের ইয়াং জেনারেশন খুবই ট্যালেন্টেড, তারা এগুলো দেখে বোঝে। এ কারণে আমি মনে করি, ইয়াং জেনারেশন আমার পক্ষে থাকবে। কারণ, কেউ বলতে পারবে না আমি কারও সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছি, সন্ত্রাসী করেছি।
আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আরো বলেন, আমি আমার কাজ কন্টিনিউ করব জলাশয় সংরক্ষণ, খেলার মাঠ পার্ক করা। পাশাপাশি এই এলাকায় ওয়াসার পানি আসেনি। ঢাকা ওয়াসা যখন ছিল তখন এখানে পানি দেওয়া হয়নি। আমি সুপেয় পানি দেওয়ার চেষ্টা করব।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন