শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার করতে হবে -রাজশাহীর দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র

প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রাজশাহী ব্যুরো : রাজশাহী রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম উল আযিম বলেছেন কর্পোরেশনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বর্তমান পরিষদ আন্তরিকভাবে কাজ করে চলেছে। অনিয়ম দূর করে নিয়মনীতি মোতাবেক পরিচালিত হওয়ায় শহীদ এইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানার আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। পার্কের পশু-পাখিকে সঠিকভাবে খাদ্য প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে। এছাড়াও ট্রেড লাইসেন্সসহ অন্যান্য লাইসেন্স হোল্ডিং করসহ বিভিন্ন খাতে রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। বিদ্যুৎ বিলসহ অন্যান্য খাতে ব্যয় সংকোচন করা হয়েছে। ইপিআই কার্যক্রমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন দেশের মধ্যে সপ্তমবারের মত প্রথম স্থান এবং টিটিতে প্রথম বারের মত প্রথম স্থান অর্জন করেছে। নির্মাণাধীন দারুচিনি প্লাজার নির্মাণ কাজের স্থবিরতা দূর করার লক্ষ্যে আগামী ৩০ অক্টোবর রবিবার দারুচিনি প্লাজা পরিদর্শনের জন্য পরিষদের সদস্য ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার করতে হবে। কর্পোরেশনের স্বার্থকে গুরুত্ব প্রদান করে কাজ করতে হবে। গতকাল দুপুরে রাসিকের কার্যক্রম পর্যালোচনার লক্ষ্যে তাঁর সম্মেলন কক্ষে জরুরি সভায় এসব কথা বলেন। সভায় কাউন্সিলরবৃন্দের বর্ধিত সম্মানী ভাতা প্রদান, দারুচিনি প্লাজার নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পর্যালোচনা ও প্রতিবন্ধকতা দূরিকরণ, দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মচারীদের মজুরি প্রদান ও ফুটপাতের উপর অবস্থিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। ফুটপাতের উপরে অবস্থিত অবৈধ স্থাপনা অপসারণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা প্রদান করেন তিনি। রাসিকের সকল কার্যক্রম বিধি-বিধান মোতাবেক যাতে পরিচালিত হয় সেদিকে তীক্ষè দৃষ্টি রাখার জন্য সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ প্রদান করেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র-৩ তাহেরা বেগম মিলি, অর্থ ও সংস্থাপন স্থায়ী কমিটির সভাপতি মুস্তাক হোসেন রতন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবার পরিকল্পনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি নাজমা খাতুন, নগর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুস সোবহান লিটন, হিসাব নিরীক্ষা ও রক্ষণ স্থায়ী কমিটির সভাপতি আব্দুস সামাদ, সমাজ কল্যাণ ও কমিউনিটি সেন্টার স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ আব্বাস আলী সরদার, পরিবেশ উন্নয়ন স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ নুরুজ্জামান, বাজার মূল্য পর্যবেক্ষণ, মনিটরিং ও নিয়ন্ত্রণ স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ আরমান আলী, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ রুহুল আমিন, গোরস্থান, ঈদগাহ, শ্মশাঘাট ব্যবস্থাপনা ও ধর্মবিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ মুনজুর হোসেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তি পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণ স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ শাহজাহান আলী, ইতিহাস পুরাকীত্তি সংরক্ষণ ও পর্যটন উন্নয়ন স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুলতানা রাজিয়া, প্রতিবন্ধী কল্যাণ ও উন্নয়ন স্থায়ী কমিটির সভাপতি মমতাজ মহল, পার্ক ও বিনোদন স্পট ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ সোহরাব হোসেন শেখ, শিক্ষা উন্নয়ন ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ মনির হোসেন, কাউন্সিলর সর্বজনাব মাহবুব সাঈদ টুকু, রবিউল আলম মিলু, মোঃ টুটুল, বেলাল আহমেদ, নুরুজ্জামান টিটো, আনোয়ারুল আমিন আযব, মুসলিমা বেগম বেলী, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, সচিব খন্দকার মোঃ মাহাবুবুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন, বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রশীদ, নির্বাহী প্রকৌশলী রেয়াজাত হোসেন প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন