বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ডেঙ্গু কমছে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

করোনা বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির উদ্বেগ প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

দেশে নতুন করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। ডেলটায় আক্রান্তের পাশাপাশি নতুন ধরণ ওমিক্রনে আক্রান্ত হচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার ১০ জনের শরীরে ওমিক্রনে আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। করোনায় আক্রান্তের সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুও।

দীর্ঘ কয়েক মাস পর গত ৬ জানুয়ারি দেশে করোনায় দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা এক লাফে বেড়ে এক হাজার ১০০ ছাড়িয়ে যায়। যা আগের দিন পর্যন্ত ছিল হাজারের নিচে এবং এক সপ্তাহ আগে ছিল ৫০০ নিচে। করোনা নতুন করে চোখ রাঙালেও, কমেছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। গত বৃহস্পতিবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মাত্র একজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গত ৭ দিনে ডেঙ্গুতে নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি।

এদিকে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। এ অবস্থায় কমিটির পক্ষ থেকে সব ধরনের সমাবেশ বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে। কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লার সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ভারতসহ সারাবিশ্বে কোভিড ১৯-এর সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে। আমাদের দেশেও ঊর্ধ্বমুখী। কমিটির ৫০তম সভায় সংক্রমণ আবারও বৃদ্ধির আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়।

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকার ইতোমধ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। জাতীয় কমিটি সেসব কর্মসূচি বাস্তবায়নের ওপর জোর দিয়েছে। প্রয়োজনে কর্মসূচি বাস্তবায়ন নিশ্চিতের জন্য আইনি ব্যবস্থা যেমন- মোবাইল কোর্ট পরিচালনার পরামর্শও দিয়েছে কমিটি। শতভাগ সঠিকভাবে মাস্ক পরা নিশ্চিত করা, হাত পরিষ্কার রাখা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে বলে সুপারিশ করে কমিটি। সেই সঙ্গে বিভিন্ন স্থানে পুনরায় হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার উদ্দেশে সব সামাজিক (বিয়ের অনুষ্ঠান, মেলা, ইত্যাদি), ধর্মীয় (ওয়াজ মাহফিল) ও রাজনৈতিক সমাবেশ এ সময় বন্ধ রাখার সুপারিশ করেছে জাতীয় কমিটি।

সংক্রমণ বেড়ে গেলে তা মোকাবিলায় হাসপাতালের প্রস্তুতি নিতে হবে বলেও জানানো হয়। বিশেষ করে সাধারণ শয্যা ও আইসিইউ শয্যা, পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা রাখার পরামর্শ দেয় কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।

সভা/কর্মশালার ব্যবস্থা অনলাইনে করা প্রয়োজন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণ ও নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংক্রমণের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে বলা হয়, শিক্ষার্থীসহ সকলকে দ্রুত টিকার আওতায় আনতে হবে। সকল পয়েন্ট অব এন্ট্রিতে স্ক্রিনিং, কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশন আরও জোরদার করার সুপারিশও করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন