রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

স্বাস্থ্য

ঘুমের মধ্যে হাঁটার সমস্যায় কী করা যায়?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৩৮ পিএম

অনেকেই ঘুমের মধ্যে হাঁটেন৷ কিন্তু কী কারণে এমন হয় তা এখনও পুরোপুরি জানতে পারেননি বিজ্ঞানীরা৷ জার্মানির এক গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ডাক্তাররা বলছেন, ঘুমের মধ্যে হাঁটার বিষয়টি পুরোপুরি বন্ধ করা না গেলেও চিকিৎসার মাধ্যমে সংখ্যাটা কমানো সম্ভব৷

কার্লসরুয়ের বাসিন্দা ২৯ বছর বয়সি ইউলিয়া হলৎসমানের ছোটবেলা থেকেই ঘুমের মধ্যে হাঁটার সমস্যা আছে৷ ঘুমের মধ্যেই তিনি বাসনকোসন ধোয়ামোছা করেন, কাপড় গোছান, বাসা সাজান৷ এর একটা ব্যাখ্যা দেয়ার চেষ্টা করেছেন তিনি৷ ‘‘আমার মধ্যে যে আগে থেকেই একটা পরিকল্পনা ছিল, সেটা স্পষ্ট৷ এটা হয়ত আজকের দিনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট৷ আজকে হয়ত কোনো কাজ করা উচিত ছিল, যেটা হয়নি৷ সেটা হয়ত আমি কালকে করতে চেয়েছিলাম৷ কিন্তু রাতে করে ফেলেছি,'' বলেন ইউলিয়া হলৎসমান৷

জার্মানির কার্লসরুয়ের কম্পিটেন্স সেন্টার ফর স্লিপ মেডিসিনের ডাক্তাররা প্রায়ই ইউলিয়ার মতো মানুষের দেখা পান৷ তারা জানেন, ঘুমের মধ্যে হাঁটা মানুষের জন্য বিপজ্জনকও হতে পারে৷ ডা. কেয়ার্স্টিন টিকোচিনস্কি বলেন, ‘‘আগে মানুষ বলতো যে, যারা ঘুমের মধ্যে হাঁটেন তাদের কোনো ক্ষতি হয় না৷ কিন্তু আমরা এখানে এমন মানুষও দেখেছি যারা শরীরে কাটাছেঁড়া নিয়ে এসেছেন৷ আমার কাছে একবার এমন একজন এসেছিলেন যিনি কার্পেটের উপর পড়ে ব্যথা পেয়েছিলেন৷''

অনেক কিছুই হতে পারে৷ ইউলিয়া একা বাস করেন৷ সেজন্য ডাক্তার তাকে কিছু সাবধানতা অবলম্বন করতে বলেছেন৷ তিনি জানান, ‘‘ডাক্তারের সঙ্গে প্রথম বসাতেই তিনি আমাকে ঘরের জানালা শিকল দিয়ে বেঁধে রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন৷ কারণ অনেকের নাকি মনে হয়, ঘরে আগুন লেগেছে, তাই যত তলাই হোক না কেন এখনই জানালা দিয়ে লাফিয়ে পড়তে হবে৷ আমার অবশ্য কখনও এমন হয়নি৷''

যখন বান্ধবীরা ইউলিয়ার সঙ্গে রাতে থাকতে যায় তখন তাদের ভয় হয় যে, হয়ত তার কর্মকাণ্ডের জন্য তাদের ঘুম ভেঙে যেতে পারে৷ ১৪ বছর বয়সে প্রথম ইউলিয়াকে ঘুমের মধ্যে হাঁটতে দেখেছিলেন বান্ধবী কেয়ার্স্টিন৷ তিনি বলেন, ‘‘ছুটি কাটাতে গিয়ে কিংবা বন্ধুর বাসায় গিয়ে তার সঙ্গে ঘুমানোর কথা আমার মনে আছে৷ আমার মনে হত, যখন সে হাঁটতে উঠবে তখন হয়ত আমার ঘুম ভেঙে যাবে কিংবা আমি বিছানা থেকে পড়ে যাব৷ তাই একসময় আমরা সিদ্ধান্ত নেই, ইউলিয়া আগে ঘুমাবে, আর আমি জেগে থাকবো৷ এরপর ঘুমের মধ্যে ইউলিয়া যখন হাঁটার প্রস্তুতি নেবে তখন আমি তাকে বলবো, ইউলিয়া, সব ঠিক আছে, আবার ঘুমাও৷ কিংবা তার শরীর ঝাঁকিয়ে বলবো, ইউলিয়া ঘুমাতে যাও৷ তখন সে তাই করতো৷''

সাধারণত শিশুদের চেয়ে প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে ঘুমের মধ্যে হাঁটার প্রবণতা কম দেখা যায়৷ এই অভ্যাস থেকে পুরোপুরি মুক্তি মেলা সম্ভব নয়৷ তবে সংখ্যা কিছুটা কমানো যায়৷ ডা. টিকোচিনস্কি বলেন, ‘‘আমরা কাউকে এই অসুখ থেকে পুরোপুরি সুস্থ করে দেয়ার অঙ্গীকার করতে পারি না৷ তবে আমরা তাদের কিছু পরামর্শ দিতে পারি যেন এমন ঘটনা কম ঘটে৷''

যেমন পেশী রিলাক্স করার জন্য অটোজেনিক ট্রেনিং৷ ‘‘আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ঠিক সময়ে ঘুমাতে যাওয়া ও ওঠা৷ তাছাড়া আপনার আশেপাশের সবাইকে আপনার বিষয়ে জানিয়ে রাখাও গুরুত্বপূর্ণ৷ কারণ কেউ যদি বিপদে পড়ে, কিংবা আপনার যদি বিপদ হয়, তাহলে তারা আপনাকে জাগাতে পারবে,'' বলেন ডা. টিকোচিনস্কি৷

অটোজেনিক ট্রেনিংয়ের কারণে ইদানিং ইউলিয়ার ঘুমের মধ্যে হাঁটা অনেক কমেছে৷ তাছাড়া ঘুমানোর আগে তিনি মনে মনে একটা মন্ত্র জপতে থাকেন, যেটাও তাকে সহায়তা করে৷ মন্ত্রটা হলো ‘‘আজকে রাতে আমাকে শান্ত হয়ে ঘুমাতে হবে৷ কোনো কিছু নিয়ে ভাবতে হবে না৷'' ইউলিয়া বলেন, ‘‘যখন সমস্যা গভীর ছিল তখন এই মন্ত্রটা আমার কাজে লেগেছে৷ প্রায় সাত বছর হয়ে গেল আমার পড়ালেখা শেষ হয়েছে৷ আমার মনে হয় ওটা একটা বড় চাপ ছিল৷ এছাড়া সেই সময় লেখাপড়ার পাশাপাশি আমি যে গাড়ি চালিয়ে যাওয়া-আসা করছিলাম, সেটাও চাপের ছিল৷ এখন যেহেতু সেই অতিরিক্ত চাপটা নেই তাই হয়ত এখন আর রাতে ওঠার বিষয়টা নেই৷'' সূত্র: ডয়চে ভেলে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন