মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মুসলিমবিদ্বেষ নয়, নারী নির্যাতনের দায়ে গ্রেফতার ভারতীয় হিন্দু ধর্মীয় নেতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

গত মাসে ভারতে মুসলমানদের গণহত্যার ডাক দেওয়া এক হিন্দু নেতাকে সংখ্যালঘু ধর্মের নারীদের সম্পর্কে অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। একজন সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, যাতি নরসিংহানন্দকে ‘নারীদের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য গ্রেফতার করা হয়েছে, এই মুহ‚র্তে হরিদ্বার ঘৃণামূলক বক্তব্যের মামলায় নয়’।
নরসিংহানন্দকে অবশ্য বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের মামলায় নোটিশ জারি করা হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, ‘তাকে বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের মামলায়ও রিমান্ডে নেওয়া হবে, প্রক্রিয়া চলছে। রিমান্ড আবেদনে আমরা হেট স্পিচ মামলার বিবরণও অন্তর্ভুক্ত করব।
উত্তরাখন্ডের হরিদ্বারে গত মাসে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান চলাকালীন বেশ কয়েকজন হিন্দু নেতা মুসলমানদের সম্পর্কে উত্তেজক মন্তব্য করেছিলেন। দেশের মুসলিম স¤প্রদায়ের বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দেওয়ার জন্য অনুষ্ঠান থেকে কমপক্ষে ১০ জন ধর্মীয় নেতার বিরুদ্ধে পুলিশ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল।
মি. নরসিংহানন্দের আগে, জিতেন্দ্র নারায়ণ সিং ত্যাগী প্রথম ব্যক্তি যিনি বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের মামলায় গ্রেফতার হন। ১৩ জানুয়ারি তাকে উত্তরাখন্ড পুলিশ আটক করে। মি. নারায়ণ হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার আগে তার নাম ছিল ওয়াসিম রিজভি এবং তিনি ছিলেন শিয়া মতাবলম্বীদের নেতা। মি. নরসিংহানন্দ জাতীয় রাজধানী অঞ্চলের (এনসিআর) গাজিয়াবাদের দাসনা মন্দিরের প্রধান পুরোহিত।
১৭ থেকে ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত ধর্মীয় অনুষ্ঠানের ভিডিও ক্লিপ, যেখানে মি. নরসিংহানন্দসহ বেশ কয়েকজন নেতা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতার আহ্বান জানিয়েছিলেন, ভারতে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি করেছিল। অনুষ্ঠানটি ইউটিউবে লাইভ-স্ট্রিম করা হয়েছিল এবং বেশিরভাগ পুরোহিতকে ভারতের মুসলমানদের বিরুদ্ধে জ্বালাময়ী কথা বলতে শোনা যায়।
প্রবোধানন্দ গিরি নামে পরিচিত একজন ধর্মীয় নেতা ভারতীয় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে প্রচারিত একটি ক্লিপে বলেছিলেন: ‘আপনাকে হয় মরতে বা হত্যা করতে প্রস্তুত থাকতে হবে, অন্য কোনো বিকল্প নেই’।
তিনি আরো বলেছিলেন: ‘মিয়ানমারের মতো, আমাদের পুলিশ, আমাদের রাজনীতিবিদ, আমাদের সেনাবাহিনী এবং প্রতিটি হিন্দুকে অবশ্যই অস্ত্র তুলে নিতে হবে এবং একটি নিরাপদ অভিযান পরিচালনা করতে হবে (জাতিগত নির্মূলের উল্লেখ)। এছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই’।
সুপ্রিম কোর্ট গত সপ্তাহে উত্তরাখন্ড সরকারকে একটি নোটিশ জারি করে এবং মুসলিমদের বিরুদ্ধে করা ঘৃণাত্মক বক্তৃতার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছিল। এর আগে যখন মি. ত্যাগীকে গ্রেফতার করা হয়, মি. নরসিংহানন্দ পুলিশকে হুমকি দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন ‘তোমরা সবাই মারা যাবে’।
ইভেন্টে অন্য একজন বক্তা, সাধ্বী অন্নপূর্ণা যিনি অতি-ডানপন্থী ধর্মীয় গোষ্ঠী হিন্দু মহাসভার সাধারণ সম্পাদকও, তিনি মুসলমানদের হত্যার আহ্বান জানিয়েছেন।
ভিডিওটিতে তাকে বলতে শোনা গেছে, ‘অস্ত্র ছাড়া কিছুই সম্ভব নয়। আপনি যদি তাদের জনসংখ্যা দূর করতে চান তবে তাদের হত্যা করুন। হত্যার জন্য প্রস্তুত থাকুন এবং জেলে যেতে প্রস্তুত থাকুন। এমনকি যদি আমাদের মধ্যে ১০০ জন তাদের (মুসলিম) ২০ লাখকে হত্যা করতে প্রস্তুত হয়, তবে আমরা বিজয়ী হব এবং জেলে যাব’।
‘{নাথুরাম] গডসের মতো (যে ব্যক্তি মহাত্মা গান্ধীকে হত্যা করেছিল), আমি অপমানিত হতে প্রস্তুত, কিন্তু আমি আমার ধর্মের জন্য হুমকিস্বরূপ এমন প্রতিটি রাক্ষস থেকে আমার হিন্দুত্বকে রক্ষা করার জন্য অস্ত্র তুলে নেব’, -তিনি বলেছিলেন।
ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ভারতের ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সদস্য অশ্বিনী উপাধ্যায় এবং বিজেপি মহিলা মোর্চা নেত্রী উদিতা ত্যাগীও উপস্থিত ছিলেন।
অ্যাক্টিভিস্ট, আইনজীবী, ছাত্র, অবসরপ্রাপ্ত সামরিক প্রধান এবং বিচারক এমনকি টেনিস কিংবদন্তি মার্টিনা নাভরাতিলোভা নেতাদের ঘৃণ্য বক্তৃতা এবং দুর্ব্যবহারের নিন্দা করেছিলেন। অনুষ্ঠানের আয়োজকরা দাবি করেছেন যে, তারা কোনো ভুল করেননি। সূত্র : দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (12)
MD S K Jalal ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৪ এএম says : 0
ভাই আমরা ভারতিয় মুসলিম রা এখন খুব আসহায় আছি
Total Reply(0)
Mohi Uddin ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৫ এএম says : 0
এই থেকে ভারতের মুসলিমদের শিক্ষা নেওয়া উচিত, এবং তার প্রতি ফল এই নির্বাচনে অবশ্যই দিতেই হবে
Total Reply(0)
Muhammad Aliul Azim ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৭ এএম says : 0
তাকে গ্রেফতার আইওয়াশ ছাড়া কিছু না। কদিন পরে দেখবেন মুক্তি পেয়েছে। বিজেপি সরকার নিজেই তো মুসলিম বিদ্বেষী।
Total Reply(0)
Muhammad Aliul Azim ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৭ এএম says : 0
তাকে গ্রেফতার আইওয়াশ ছাড়া কিছু না। কদিন পরে দেখবেন মুক্তি পেয়েছে। বিজেপি সরকার নিজেই তো মুসলিম বিদ্বেষী।
Total Reply(0)
জাকির হোসেন ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৮ এএম says : 0
এভাবে প্রকাশ্যে হত্যার ডাক দেওয়ার পরও গ্রেফতার করতে এত সময় লাগলো।
Total Reply(0)
Matiur Rahman ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৩২ এএম says : 0
May almighty Allah(swt) keep us all(people of all race and religion)in peace and harmony.
Total Reply(0)
সফিক আহমেদ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:০৭ এএম says : 0
নারী নির্যাতনের দায়ে গ্রেফতার ভারতীয় হিন্দু ধর্মীয় নেতা!
Total Reply(0)
রোমান ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:০৭ এএম says : 0
নারী নির্যাতনের দায়ে গ্রেফতারকৃত মানুষ কিভাবে ভারতীয় হিন্দু ধর্মীয় নেতা হয়?
Total Reply(0)
গিয়াস উদ্দিন ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:০৮ এএম says : 0
কিছু বলার ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না
Total Reply(0)
Md. Shamsuddoha Nahad ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৩:৫২ পিএম says : 0
আমরা যদি ইতিহাসের দিকে তাকাই তবে দেখি আল্লার নবী তার সমাজের লোকদের একাত্ববাদের দিকে আহবান করেছিলেন তখন বহুশ্বর বাদীরা তাকে ও তাঁর অনুসারীদেরকে অন্যায়ভাবে হত্যা করে নির্মূল করতে চেয়েছিলো। আজ ১৪০০ শত বছর পরেও বহুশ্বরবাদীরা একই ভুল পথ বেছে নিতে চায়। এতে তাদের হিতে বিপরীত হতে বাধ্য। ভারতের কতিপয় হিন্দু পুরোহিত তাদের অন্যায় কাজের মাধ্যমে নিজেদের ধর্মকে কালিমালিপ্ত করতে চায় যা শান্তিপ্রিয় সাধারন হিন্দুরা মেনে নেবেনা। কোন ধর্মই অন্যায়কে, অন্যায়ভাবে হত্যাকে প্রশ্রয় দেয়না। দিতে পারে না। কারন ধর্ম তখন ধর্ম থাকেনা। ধর্মতো আলো। আলো ছড়াবে, আলোকিত করবে, অন্ধকার নয়। ল
Total Reply(0)
Md afjal hossain ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:২৭ পিএম says : 0
ইহুদি,খ্রীস্টানরাও ক্রুসেডের যুদ্ধে অনেকবার তাদের লাখ লাখ সৈন্য নিয়ে পৃথিবী থেকে ইসলাম ধর্মকে নিশ্চিহ করতে চেয়েছিল কিন্তু পারেনি। ইসলাম চিরকাল ছিল, কেয়ামত পর্যন্ত থাকবে। মুসলিমদের আল্লাহ সাহায্য করেন। সবাইকে ক্রুসেড বই পড়ার অনুরোধ করছি। সুলতান সালাহউদ্দিনের সাহসিকতা ও ইসলামের বিজয় সম্পর্কে জানতে পারবে।
Total Reply(0)
মুহাম্মাদ রাশেদ ইবনে কাওছার ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:০৮ পিএম says : 0
""লা---ইলা-হা ইল্লাল্লা-হ, লা---ইলা-হা ইল্লাল্লা-হ, লা---ইলা-হা ইল্লাল্লা-হ,আল্লা-হ তা'আ-লা ছাড়া কোন মা'বুদ নাই,আল্লা-হ তা'আ-লা ছাড়া কোন মা'বুদ নাই,আল্লা-হ তা'আ-লা- ছাড়া কোন মা'বুদ নাই।""" """লিল্লা-হি তাকবী-র আল্লা-হু আকবার, লিল্লা-হি তাকবী-র আল্লা-হু আকবার, লিল্লা-হি তাকবী-র আল্লা-হু আকবার। """
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন