বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

ডিএসসিসির উচ্ছেদ অভিযানে জরিমানা আদায়

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

জুরাইনে অবৈধ বিলবোর্ড, খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়ায় অবৈধ মাছ বাজার উচ্ছেদ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে সর্বমোট ৩৬ মামলায় প্রায় ২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

গতকাল সোমবার দক্ষিণ সিটির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিনের তত্ত্বাবধানে করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ধোলাইপাড় মোড় হতে জুরাইন রেলগেইট সিটি করপোরেশন মার্কেটের উভয় পাশে অবৈধ বিলবোর্ড অপসারণ এবং করপোরেশনের সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মুনিরুজ্জামান ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুস সামাদ শিকদারের যৌথ নেতৃত্বে খিলগাঁও তিলপাপাড়ায় রাস্তার উপর অবৈধ মাছ বাজার উচ্ছেদ করা হয়।
জুরাইনের অভিযানে ২০টি অবৈধ বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। এছাড়াও অভিযানকালে মূল রাস্তা ও ফুটপাথ দখল করে গড়ে উঠা ২ শতাধিক অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করা হয়। অভিযানকালে মূল রাস্তা ও ফুটপাথ দখল করে দোকান-পাট গড়ে তোলায় স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনে অবৈধ স্থাপনার প্রতিটিকে ৩ হাজার টাকা করে মোট ৪ মামলায় ১২ হাজার টাকা, ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করায় ১টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার পরিবেশন করায় একটি খাবার হোটেলের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে মামলায় ৫০০০ টাকা এবং সরকারি বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে মাস্কবিহীন ঘুরে বেড়ানোর অপরাধে এক ব্যক্তিকে ২০০ টাকা অর্থদ- করা হয়।
অপরদিকে তিলপাপাড়ার অভিযানে রাস্তা ও ফুটপাথ দখল করে অবৈধভাবে মাছ বাজার প্রতিষ্ঠা করাই স্থানীয় সরকার সিটি করপোরেশন আইনে ৪ ব্যবসায়ীর প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকা করে ৪ মামলায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা অর্থদ- করা হয়। এছাড়াও ২৫ ফার্নিচার ব্যবসায়ীর প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে ২৫টি মামলায় ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- করা হয়।
ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন বলেন, জনদুর্ভোগ লাগবে অবৈধ বিলবোর্ডের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। আরও বৃহৎ পরিসরে জুরাইন এলাকায় এসব অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করা হবে। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে করপোরেশনের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাহাবুবুর রহমানসহ রাজস্ব বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিতি ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন