বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

শাবিপ্রবিতে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ দ্রুত নিশ্চিত করার দাবি ইউট্যাবের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:১৭ পিএম

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ভিসির পদত্যাগ ও বেশকিছু দাবিতে গত ১৩ জানুয়ারি থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের চরম অবহেলা ও পুলিশ-ছাত্রলীগ কর্তৃক আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর নিষ্ঠুর হামলা এবং আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সংগঠন ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইউট্যাব)। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে ইউট্যাবের প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম ও মহাসচিব প্রফেসর ড. মো. মোর্শেদ হাসান খান বলেন, শাবিপ্রবির সিরাজুন্নেসা হলের প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদের বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগে তার পদত্যাগ সহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করে শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা। এরমধ্যে আন্দোলনের দুইদিনের মাথায় ১৫ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে হামলা চালায় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা। হামলার বিচার চেয়ে শিক্ষার্থীরা ভিসিকে অবরুদ্ধ করেন। কিন্তু তখনো পুলিশ তাদের ওপর লাঠিচার্জ করে এবং শটগানের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেড ছোঁড়ে। একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হলেও শিক্ষার্থীরা হল ছাড়েননি। বরং তারা শাবিপ্রবির ভিসির পদত্যাগের এক দফা দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন। তারা ভিসিকে ১৯ জানুয়ারির মধ্যে পদত্যাগের শর্ত দেন। কিন্তু ভিসি পদত্যাগ না করায় শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশন পালন করছেন।

ইউট্যাবের নেতৃদ্বয় বলেন, অনশন করতে গিয়ে অন্তত ২০ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়েছেন। তবুও সঙ্কট নিরসনে সরকারের পক্ষ থেকে কার্যত কোনো উদ্যোগ লক্ষ্য করা যায়নি। ফলে শাবিপ্রবির শিক্ষার পরিবেশ আরো অসহনীয় হয়ে উঠেছে। আসলে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর সর্বত্র দলীয়করণের নজির সৃষ্টি করেছে। তারই একটি নমুনা শাবিপ্রবির ঘটনা। বিদ্যমান অবৈধ অগণতান্ত্রিক সরকারের পদলেহী ভিসি ও সরকারের পেটোয়া পুলিশ বাহিনী কর্তৃক শাবিপ্রবিতে ন্যায়সঙ্গত দাবি আদায়ে আন্দোলনরত নিরীহ শিক্ষার্থীদের উপর নির্বিচারে গুলি ও বর্বর হামলার ঘটনায় আমরা বাকরুদ্ধ। আমরা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংহতি জানাই এবং তাদের ওপর হামলার ঘটনায় সংশ্লিষ্ট দোষীদেরকে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানাই। সেইসাথে অবিলম্বে শাবিপ্রবির ভিসির অপসারণ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষাবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন