বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

স্বাস্থ্য

আপনার প্রশ্ন

| প্রকাশের সময় : ১১ মার্চ, ২০২২, ১২:২৮ এএম

প্রশ্ন : আমি অবিবাহিতা একজন এনজিও কর্মী। বয়স ২৩। আমার দু’চোখের নিচে কালো দাগ পড়েছে। এ যেন এক মহা বিড়ম্বনা। কয়েকটি মলম ব্যবহার করেছি। কাজ হয়নি। তাই আপনার শরণাপন্ন হলাম।

- লুবনা, কামরাঙ্গিরচর, ঢাকা।

উত্তর : আপনার ভেতরে কোন রোগ বা অন্য কোন কারণে সমস্যাটি হতে পারে। যেটি আপনার রক্তের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে শনাক্ত করা প্রয়োজন। বর্তমানে ‘কেমিক্যাল পিলিং’ পদ্ধতি ব্যবহার করে এটি নির্মূল করা সম্ভব। পাশাপাশি কারণভিত্তিক ওষুধ সেবন করতে হবে।

প্রশ্ন : আমি একজন পরিশ্রমী ছোট ব্যাবসায়ী। বয়স ৫৭। বর্তমানে আমি স্ত্রী সহবাসে সম্পূর্ণ অক্ষম। অর্থাৎ আমার লিঙ্গের উত্থান হচ্ছে না। আমাকের এ বয়সে কি সুস্থ করা সম্ভব?
- আবু সালেহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী।

উত্তর : নিশ্চয়ই। আপনাকে সুস্থ করা সম্ভব। আপনার দেহের সেক্স-হরমোন এনালাইসিস করে প্রকৃত মাত্রা নির্ণয় করে আপনার যৌবন শক্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

প্রশ্ন : আমি অবিবাহিত একজন চাকুরীজীবি। বয়স ২৯। এ বয়সেই আমার মাথার অনেক চুল পড়ে গিয়ে টাক পড়েছে। এতে আমি মানসিক ভাবে একটু অস্বস্থিতে আছি। অনেক বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা করেছেন এবং ব্যর্থ হয়েছেন। শেষবার আপনার শরণাপন্ন হলাম।
- এহসান আলী, নাটোর।

উত্তর : বর্তমানে অত্যাধুনিক ‘পিআরপি থেরাপি’র মাধ্যমে প্রায় সকল ধরনের টাক চিকিৎসা সফলভাবে সম্ভব। এতে কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।

প্রশ্ন : আমি একজন স্কুল শিক্ষিকা। বয়স ৪০। আমার দেহে অসম্ভব চুলকানিসহ লালচে র‌্যাশে ভরে গিয়েছে। মহল্লার ডাক্তার চিকিৎসা করেছেন। কিছু কমে আবার বেড়েছে। প্লিজ, আমার রোগটির একটি সুচিকিৎসা দিন।
- আফসানা, মাদারটেক, ঢাকা।

উত্তর : আপনার রোগটি সম্ভবত ‘সেবোরিক ডার্মাটাইটিস’। আপনি দেরী না করে একজন অভিজ্ঞ ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

ডা. এ কে এম মাহমুদুল হক খায়ের
ত্বক, যৌন, সেক্স ও অ্যালার্জি বিশেষজ্ঞ এবং কসমেটিক সার্জন।
সিনিয়র কনসালটেন্ট (এক্স),
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।
ফোন : ০১৯১৫৬৯২৮৯৬।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
rejowan Ahmed ২৪ মার্চ, ২০২২, ৭:৩৮ পিএম says : 0
আমার একটি প্রশ্ন যা কেউ করে না তবে এই কাজটি অনেক এই করে থাকে।আমদের দেশে পাকিস্তান, ভারত,সহ এশিয়ার অনেক দেশে এই কাজটি করে থাকে কাজটি হলো ঃ- এক ব্যাক্তি সে কাজ করে এবং কাজটিতে সে অনেক স্রম দেয় সে জা কাজ করে তাই টাকা পায় কিন্তু কাজ টি usa এর বিভিন্ন ডেটিং সাইটে ফিমেল একাউন্ট খুলে usa এর বেগানা মেয়েদের ছবি ব্যবহার করে এবং সে অন্য অ্যাপ এ নেয়ার জন্য usa এর ছেলেদের এসএমএস দেয় কিছু সময় ডাটা বেশি আনার জন্য আপওিকর এসএমএস ও সে দিয়ে থাকে এমন করে usa এর ছেলেদের ডাটা আনে এই ডাটা এগুলো কিছু ভাই কিনে এজন্য তাকে অর্থ প্রদান করেন। এটা উনি না জেনে অভাবে থাকা অবস্থায় করছেন কিছু অর্থ ও তার জমা হয়েছে এখন এই কাজটি ভুল বুঝতে পেরে উনি অনেক কান্না করতেছে এখন ইসলামের দৃষ্টিতে তার করনিয় কি? তাকে কিভাবে তওবা করতে হবে?
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps