ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সাড়ে ৩ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে

প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

সিদ্ধিরগঞ্জে সোনালী ব্যাংকের ৭ কর্মকর্তাসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা
সিদ্ধিরগঞ্জ (না’গঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : সোনালী ব্যাংকের সাত কর্মকর্তাসহ ৯জনের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। গত মঙ্গলবার রাতে মামলাটি করেছেন দুদকের উপ-পরিচালক শেখ আব্দুস ছালাম। তিন কোটি ৪৬ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৬ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে মামলায়।
মামলার আসামিরা হলেনÑ সোনালী ব্যাংকের সাবেক উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ফখরুল ইসলাম, মতিঝিল শাখার সাবেক মহা-ব্যবস্থাপক এম এ বাতেন খান (বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত), সাবেক ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার হোসনে আরা বেগম, সাবেক সহকারী জেনারেল ম্যানেজার এম সরোয়ার হোসেন, সাবেক সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক এ টি এম মিজানুর রহমান, সাবেক সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার মো: কামাল হোসেন, সাবেক সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক মো: মহিউদ্দিন, সিদ্ধিরগঞ্জের জাগরণী টেক্সটাইল মিলের সাবেক চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম মিয়াজী ও মিলের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহাবুবুর রহমান।
মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, ব্যাক টু ব্যাক এলসি খোলার আগে প্রতিষ্ঠানটি চালু রয়েছে কি না তা যাচাই না করে বন্ধ প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে এলসি অনুমোদন দেয়া হয়। এলসির সময়সীমা অতিক্রান্ত হওয়ার পরও জরুরি ভিত্তিতে রফতানী শর্তে ডিমান্ড লোন সৃষ্টি করে হেড ডেবিট করে দুই কোটি ৯৪ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৬ টাকা আত্মসাত করেন উল্লিখিত ব্যক্তিগণ। একইভাবে উপরোক্ত ব্যক্তিগণ পোশাক তৈরি না করেই তৈরি পোশাক রফতানী করার নামে জাহাজীকরণের কথা উল্লেখ করে ৫২ লাখ টাকা চেকের মাধ্যমে সরাসরি উত্তোলন করে আত্মসাত করেন। এতে উল্লিখিত আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে মোট তিন কোটি ৪৬ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৬ টাকা আত্মসাত করে দ-বিধির ৪০৯/৪২০/৪০৬/১০৯ এবং ১৯৪৭ সনের ২নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন বলে উল্লেখ করা হয় মামলায়।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি (সার্বিক) সরাফত উল্লাহ জানিয়েছেন, প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের উপ-পরিচালক শেখ আব্দুস ছালাম মামলাটি দায়ের করেছেন ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন