রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইন্দোনেশিয়ায় সবচেয়ে জনপ্রিয় বৈশ্বিক নেতা সউদী যুবরাজ : জনমত

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২২, ১২:২২ পিএম

বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম অধ্যুষিত দেশ ইন্দোনেশিয়ায় সউদী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান অত্যন্ত জনপ্রিয়। অন্য যে কোনো বৈশ্বিক নেতার চেয়ে তার জনপ্রিয়তা দেশটিতে অনেক বেশি।
অস্ট্রেলিয়ার থিঙ্ক ট্যাঙ্ক সংস্থা লোয়ে ইনস্টিটিউটের সাম্প্রতিক এক জনমত জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সউদী আরবের জাতীয় দৈনিক সউদী গেজেট।
মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের ইন্দোনেশিয়া শাখার বরাত দিয়ে সউদী গেটেটের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এপ্রিলের চার তারিখ নিজেদের ওয়েবসাইটে জরিপের ফলাফল প্রকাশ করে লোয়ে ইনস্টিটিউট। এই জরিপে মোহাম্মদ বিন সালমানের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জোয়ে বাইডেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান, সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট লি সিয়েন লুং, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সবাইকে টপকে শীর্ষস্থান অর্জন করেছেন সউদী যুবরাজ। ২০২১ সালের ২৯ নভেম্বর থেকে ২৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ইন্দোনেশিয়ার ৩৩টি প্রদেশের সবগুলোতেই এই জরিপটি পরিচালিত হয় এবং এতে অংশ নেন ইন্দোনেশিয়ার ৩ হাজার নাগরিক। এই নাগরিকদের সবার বয়স ১৭ থেকে ৬৫ বছরের মধ্যে।
জরিপের ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বৈশ্বিক নেতা হিসেবে ৫৭ শতাংশ ইন্দোনেশীয়র আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন সউদী যুবরাজ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিরাতে যুবরাজ অর্জন করেছেন ৫২ শতাংশ ইন্দোনেশীয়র আস্থা।
সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে আদর্শ বৈশ্বিক নেতা মনে করেন ৪৪ শতাংশ ইন্দোনেশীয়। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন অর্জন করেছেন ৪০ শতাংশ জরিপে অংশগ্রহণকারী ৪০ শতাংশ ইন্দোনেশীয়র আস্থা।
এছাড়া, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আদর্শ বৈশ্বিক নেতা হিসেবে ৩৮ শতাংশ ইন্দোনেশীয়র আস্থা অর্জন করেছেন।
তালিকায় সবচেয়ে পিছিয়ে আছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তাকে আদর্শ বৈশ্বিক নেতা মনে করেন মাত্র ৩৪ শতাংশ ইন্দোনেশীয়।
আন্তর্জাতিক থিঙ্কট্যাংঙ্ক সংস্থাসমূহের মধ্যে লোয়ে ইনস্টিটিউট বেশ মর্যাদাপূর্ণ। বৈশ্বিক বিভিন্ন বৈচিত্রময় বিষয়ে স্বতন্ত্র ও মানসম্পন্ন গবেষণার জন্য বিশ্বজুড়েই এই সংস্থাটির খ্যাতি রয়েছে। ২০০৩ সাল থেকে যাত্রা শুরু হয় লোয়ে ইনস্টিটিউটের এবং প্রতিষ্ঠাকালীন বছর থেকেই জনপ্রিয় বিশ্বনেতা ও রাজনীতিকদের নিয়ে জরিপ চালিয়ে আসছে এই সংস্থা।
অন্যদিকে ইন্দোনেশিয়া বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল ও বৃহত্তম মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ। ২৭ কোটি ৩৮ লাখ ৭৯ হাজার মানুষ অধুষিত ইন্দোনেশিয়ার মোট জনসংখ্যার ৮৬ শতাংশই মুসলিম।
অবশ্য সউদী যুবরাজ যে এবারই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক জরিপে জনপ্রিয়তায় শীর্ষস্থান অর্জন করলেন, ব্যাপারটি এমন নয়।
২০১৮ সালে মধ্যপ্রাচ্যেভিত্তিক সংস্থঅ দ্যা আরব ইউথ মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার ১৬ টি দেশের তরুণ-তরুণীদের একটি জরিপ পরিচালনা করেছিল; সেই জরিপে অংশগ্রহণকারীরা মোহাম্মদ বিন সালমানকে সবচেয়ে প্রভাবশালী আন্তর্জাতিক নেতা হিসেবে রায় দিয়েছিলেন।
তার আগের বছর, ২০১৭ সালের এক বৈশ্বিক জরিপে প্রথমবারের মতো বিশ্বের শীর্ষ ৫০ প্রভাবশালী বিশ্বনেতার তালিকায় নাম লেখান সউদী যুবরাজ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ৭ এপ্রিল, ২০২২, ১:২১ পিএম says : 0
ইবলিশ ওরা ইবলিশ দেরকেই ভালো বলে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps