শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

স্বাস্থ্য

খাবারের অনিয়মে বুক জ্বালা

ডাঃ মোঃ ফজলুল কবির পাভেল | প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০২২, ১২:০৬ এএম

খাবার গ্রহণের ব্যাপারে আমাদের বেশ সতর্ক হওয়া উচিত। বেশ কিছু খাবার আছে সেগুলো গ্রহণ করলে বুকজ্বালা হতে পারে। আবার খাবার গ্রহনের নিয়মানুবর্তিতা না মানলেও এমনটা হতে পারে। এসব খাবার থেকে অবশ্যই বিরত থাকতে হবে। কারণ বুক জ্বালা হলে সেই রোগী বা রোগীর কাছের লোকজন বেশ ভয় পেয়ে যান। অনেক সময় হার্ট অ্যাটাকের উপসর্গও হতে পারে এরকম। তাই যাদের বুকজ্বালার সমস্যা আছে বা কখনো আগে হয়েছে তাদের বেশ কিছু খাবার বর্জন করা উচিত। এসব খাবার বর্জন করলে তারা অনেকটা ভালো থাকতে পারবেন। আর খাবার গ্রহনের আদর্শ পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

প্রথমত বলা হয় যদি একবারে খুব বেশি পরিমানে খাওয়া হয় তাহলে বুক জ্বালা হতে পারে। আমাদের অনেকেই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বা বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে গেলে দেখা যাচ্ছে হঠাৎ করেই অনেক বেশি খেয়ে ফেলেন। এদের অনেক সময় বুক জ্বালা হয়।

অনেকের আবার খুব দ্রæত খাবার খেয়ে ফেলার অভ্যাস আছে। খুব দ্রæত খাবার খেলে অনেক সময় বুকজ্বালা হতে পারে। খাবার ভালো করে চিবিয়ে, নরম করে, মুখের লালার সাথে মিশিয়ে তা গেলা উচিত। এভাবে না চিবানোর ফলে বুকের মধ্যে জ্বালা-যন্ত্রণা হতে পারে।

খাওয়ার পরপরই শুয়ে পরা চলবে না। এটাও বুক জ্বালা পোড়ার একটা কারন। আবার অনেকেই খাওয়ার সময় অনেক বেশী কথা বলেন, বার বার পানি খান, ঢেকুর তোলেন। এগুলো সবই বুক জ্বালা পোড়ার কারন।

অনেকেই ফাস্টফুড বা চর্বিজাতীয় খাবার, ভাজা-পোড়া, ঝাল মশলা বেশ পছন্দ করেন। এসব খাবার বেশি খেলে বুক জ্বালা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। যেসব খাবারের মধ্যে প্রচুর এসিড থাকে, সেসব খাবার গ্রহণ করলে কারও কারও বুকজ্বালা হতে পারে। যেমন টমেটো বা টকজাতীয় ফল। এগুলো যদি বেশি পরিমাণে গ্রহণ করা হয় তাহলে অনেকেরই বুক জ্বালা হতে পারে। যেসব খাবারের মধ্যে ক্যাফেইন আছে সেসব গ্রহণ করলেও কারও কারও অনেক সময় বুক জ্বালা হতে পারে। কিছু চকলেটে ক্যাফেইন থাকে। তাই কারও কারও ক্ষেত্রে চকলেট খেলে বুকজ্বলার মত সমস্যা দেখা দিতে পারে। অ্যালকোহল গ্রহণ করলে এবং ধূমপান করলেও অনেক সময় এরকম সমস্যা হয়।

আবার বেশ কিছু উপকারী খাবার আছে, এগুলো গ্রহণ করলে বুক জ্বালা কমে। যেমন কিছু হার্বাল জাতীয় চা, দুধ এবং পানি এগুলো গ্রহণ করলে বুক জ্বালা কমে।

সবার যে একই খাবারে সমস্যা হবে তা নয়। কার কোন খাবারে বুক জ্বালা হয় বা এরকম কষ্ট হয় সেটা খেয়াল রাখতে হবে। সেসব খাবার বর্জন করতে হবে। না হলে এই জাতীয় কষ্ট পেতেই হবে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps