শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সীমান্তে চোরাচালান রোধে বিজিবি দক্ষতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে

কক্সবাজারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কক্সবাজার ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২২, ১২:০২ এএম

সীমান্তে মাদক ও চোরাচালান রোধে বিজিবি সদস্যদের ভূয়সী প্রশংসা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, বিজিবি দক্ষতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। বিজিবি’র কক্সবাজার রিজিয়ন কর্তৃক ৫০০ দশ কোটি ৯০ লাখ ১৩ হাজার ৫৭২ টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একথা বলেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) কক্সবাজার রিজিয়ন রামুতে মাদকদ্রব্য ধ্বংস করণের এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে কক্সবাজারের সংসদ সদস্যবৃন্দ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক, জিওসি ১০ পদাতিক ডিভিশনসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে মাদকের বিরুদ্ধে বিজিবি’র অভিযানিক কার্যক্রম নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শিত হয়। এরপর বিজিবি’র কক্সবাজার রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজম-উস-সাকিব স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন। পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেন এবং বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাকিল আহমদ বক্তব্য প্রদান করেন।বিজিবি মহাপরিচালক মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন ও সার্বজনীন প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান। সীমান্তে মাদক পাচার রোধে বিজিবি সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত বলে তিনি সকলকে আশ্বস্ত করেন। বিজিবিকে বিশ্বমানের একটি আধুনিক ত্রিমাত্রিক ও যুগোপযোগী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। একইসাথে প্রতিটি ক্ষেত্রে বিজিবিকে সাহস জোগানোর জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিজিবি সদস্যদের বিভিন্ন দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন। এরপর তিনি নিজহাতে ক্রিস্টাল মেথ আইস ও ইয়াবা ধ্বংসকরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। মাদকমুক্ত দেশ ও সমাজ গঠনে প্রধানমন্ত্রীর যুগান্তকারী নির্দেশনা ‘মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি’ এর সফল বাস্তবায়নে বিজিবি’র প্রতিটি সদস্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এরই ধারাবাহিকতায় বিজিবি কর্তৃক অভিযানিক কার্যক্রম পরিচালনা করে প্রতিনিয়ত উদ্ধার করা হচ্ছে জীবন নাশকারী ভয়ংকর মাদক ক্রিস্টাল মেথ আইস ও ইয়াবাসহ নানাবিধ মাদকদ্রব্য। মূলত মাদকের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি ও জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি বছরই সংশ্লিষ্ট সকলের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে এরূপ মাদক ধ্বংস করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps