সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

স্বাস্থ্য

মেটাবলিক সিনড্রোম

| প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০২২, ১২:০৫ এএম

শরীরের ওজন মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে গেলে তা অনেক সমস্যার সৃষ্টি করে। আমরা প্রথম থেকে স্বাস্থ্য সচেতন হলে তা এড়ানো সম্ভব। মেটাবলিক সিনড্রোম ওজনাধিক্যের একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। প্রায় ২০% মানুষ এতে আক্রান্ত হতে পারে।

কারণ হিসাবে ওজন, জেনেটিক ফ্যাক্টর ও ইনসুলিন প্রতিবন্ধ উল্লেখযোগ্য।
পেট মুুটিয়ে হওয়ার সাথে যদি নিম্নোক্ত দুটি অন্য সমস্যার যোগ থাকে তাকে মেটাবলিক সিনড্রোম বলে। এখানে মোটা হওয়াকে সংজ্ঞায়িত করা হয়, যদি বিএমআই>২৩ বাংলাদেশীদের। মাজার মাপ নিয়েও বলা যেতে পারেÑ যেমন মাপ পুরুষের ক্ষেত্রে ৯০ সেমি বা বেশি ও মহিলাদের ৮০ সেমি বা বেশি থাকে।
মুুটিয়ে যাওয়ার সাথে এই ক্ষেত্রে অন্য সমস্যাগুলো হলো :
১) ব্লাড প্রেসার-১৩০/৮৫ মিলিমিটার অব মারকারি বা বেশি।
২) ট্রাইগ্লাইসিরাইড-১.৭ মিলিমোল/লি বা বেশি।
৩)এইচডি এল-পুরুষ ১.০৩ মিলিমোল/লি বা কম, মহিলা ১.২৯ মিলিমোল/লি বা কম।
৪) খালি পেটে গ্লুকোজ-৫.৬ মিলিমোল/লি বা বেশি অথবা ডায়াবেটিস মেলাইটাস।
মেটাবলিক সিনড্রোমে অনেক ধরনের জটিলতা দেখা দিতে পারে। যেমন- হার্ট অ্যাটাক, ডায়াবেটিস, নিউরোপ্যাথি, প্রস্রাবে এলবুমিন, পিত্ত পাথর, অগ্নাশয়ে ক্যান্সার ও ফার্টিলিটি সমস্যা ইত্যাদি

চিকিৎসা :
১) নিয়মিত ব্যায়াম
২) ওজন কমানো
৩)ব্লাড প্রেসার, ডায়াবেটিস মেলাইটাস ও রক্তে চর্বি আধিক্যের চিকিৎসা।
আসুন- আমাদের সচেতনতা বৃদ্ধি করে রোগের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্ত থাকি।

প্রফেসর ডা. এ.কে.এম. মোখলেছুজ্জামান
কনসালটেন্ট ইন্টারনাল মেডিসিন,
মোবাইল : ০১৭৮৭৬৮৩৩৩৩।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন