শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

নালিতাবাড়ীতে বিয়ের ৬ দিনের মাথায় খুন হলো দিতি, খুনি আটক

শেরপুর জেলা সংবাদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ৮:০১ এএম

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বিয়ের মাত্র ছয় দিনের মাথায় দিতি নামের এক গৃহবধু খুন হয়েছে। বুধবার (২৯জুন) দিবাগত রাত দশটার দিকে নালিতাবাড়ী পৌর এলাকার কালিনগর মহল্লায় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্বজনেরা জানায়, নালিতাবাড়ী পৌর এলাকার কালিনগর মহল্লার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে রহুল আমিন (২৫) মাদকাসক্। তারই প্রতিবেশি মুছা মিয়ার
মেয়ে দিতির গত বৃহস্পতিবার উপজেলার চেল্লাখালী সন্যাসীভিটা এলাকায় খাইরুল নামে এক যুবকের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ে পর দিতিকে পিতার বাড়ি কালিনগর রেখে স্বামী খাইরুল পেশাগত কাজে কর্মস্থল ঢাকায় চলে যায়। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঘাতক রহুল আমিন তার ভাবি রাহেলাকে নিয়ে দিতিদের বাড়িতে যায়। এসময় রাহেলা দিতিকে দরজা খোলতে বললে দিতি দরজা খোলে দেয়। সাথে সাথেই মাদকাসক্ত রহুল আমিন বটি দা নিয়ে দিতি মাথায় কুপিয়ে পালিয়ে যায়। nপরে স্বজনরা উদ্ধার করে দিতিকে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ময়মনসিংহ নেওয়ার পথে রাত সাড়ে দশটার দিকে নকলা এলাকায় দিতির মৃত্যু হয়।

এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে এসে ঘাতক রহুল আমিনের ভাবি রাহেলাকে আটক করে রহুল আমিনকে খোঁজতে থাকে। একপর্যায়ে রাত সাড়ে এগারোটার দিকে রহুল আমিন নিজেই পুলিশের কাছে এসে হত্যার কথা স্বীকার করে ধরা দেয়।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার তদন্ত চলছিল। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন শেরপুরের নািলতাবাড়ী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আফরোজা নাজনীন ও নালিতাবাড়ী থানার ওসি বছির আহমেদ বাদল।
নালিতাবাড়ী থানার ওসি বছির আহমেদ বাদল বলেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। কি কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে আমরা সবকিছু উদঘাটন করতে পারবো খুব তাড়াতাড়ি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন