বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৭ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ানের পার্লামেন্টে, মার্কিন দূতকে তলব চীনের

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:১২ এএম

চীনা হুমকির মুখে রাতে তাইওয়ানে নেমে বুধবার সকালে দেশটির পার্লামেন্টে গেছেন যুক্তরাষ্ট্রের স্পিকার ও দেশটির ডেমোক্র্যাটিক পার্টির অন্যতম শীর্ষ ব্যক্তিত্ব ন্যান্সি পেলোসি।

পার্লামেন্টে দেয়া ভাষণে তিনি জানিয়েছেন যে যুক্তরাষ্ট্র ও তাইওয়ানের মধ্যে সংসদীয় আদান-প্রদান তিনি আরো বাড়াতে চান।

একই সাথে তার বক্তৃতায় তিনি তাইওয়ানকে 'বিশ্বের অন্যতম মুক্ত সমাজ' আখ্যায়িত করেছেন।

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম এই শীর্ষ নেতাকে স্বাগত জানান পার্লামেন্টেরভাইস প্রেসিডেন্ট সাই খাই চং।

তার এ সফরের প্রতিবাদ জানাতে বেইজিংয়ে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তিয়ানানমেন স্কয়ারে পেলোসি
তাইওয়ান পার্লামেন্টে ন্যান্সি পেলোসি ১৯৮৯ সালে ছাত্র বিক্ষোভে গণহত্যার দু বছর পর বেইজিংয়ের তিয়ানানমেন স্কোয়ার সফরের স্মৃতির কথা উল্লেখ করেছেন।

আমরা সেখানে মানবাধিকার বিষয়ে বিবৃতি দিতে গিয়েছিলাম। আমাদের সফরের বিষয় ছিল নিরাপত্তা ইস্যুতে। বহু বছর ধরে নিরাপত্তা, অর্থনীতি আর গভর্ন্যান্সই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, তাইওয়ান পার্লামেন্টের ডেপুটি স্পিকারকে বলেন তিনি।

আজ আর কোথায় যাবেন পেলোসি?
পার্লামেন্টে ডেপুটি স্পিকারের সাথে বৈঠক ছাড়াও তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সাথেও সাক্ষাতের কর্মসূচি রয়েছে ন্যান্সি পেলোসির।

এর বাইরে তাইপে'র নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি এবং ব্যবসায়ীদের সাথেও বৈঠক করবেন তিনি।

সেখানকার গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী তিনি তাইপে'র হিউম্যান রাইটস পার্কে তিনজন সুপরিচিত গণতন্ত্রপন্থী অধিকার নেতার সাথে সাক্ষাত করবেন।

এছাড়া তাইওয়ানের সর্ববৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান টিএসএমসির চেয়ারম্যান মার্ক লিউ'র সাথে দেখা করবেন তিনি।

আরো পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ করলো চীন
ন্যান্সি পেলোসির তাইপে সফরের প্রতিক্রিয়ায় আরো বেশ কিছু পণ্য তাইওয়ান থেকে আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে চীন।

বুধবার ভোরে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় তাইওয়ান থেকে বেশ কিছু ফল, দু ধরনের মাছ ও বালু আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়।

এর আগে রাতেই এ ধরনের আরেকটি নিষেধাজ্ঞার কথা জানিয়েছিল বেইজিং কর্তৃপক্ষ যার আওতায় ছিল বিস্কুট ও কনফেকশনারী দ্রব্যসহ বেশ কিছু পণ্য।

চীনের সাথে তাইওয়ানের বাণিজ্য সম্পর্ক অনেক গভীর এবং তাইওয়ানের রফতানির প্রায় ত্রিশ ভাগই চীনে হয়ে থাকে। দেশ দুটি একে অপরের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য অংশীদার।

যুক্তরাষ্ট্রকে মূল্য দিতে হবে- চীনের হুমকি
ন্যান্সি পেলোসির সফরকে কেন্দ্র করে কূটনৈতিক নানা পাল্টা পদক্ষেপ নিচ্ছে চীন।



চীনের সরকারি বার্তা সংস্থার খবর অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে কড়া প্রতিবাদ করেছেন চীনের ভাইস ফরেন মিনিস্টার।

তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে তার ভুলের মূল্য দিতে হবে এবং ওয়াশিংটনকে পেলোসির সফরের প্রতিক্রিয়া সামাল দিতে বাস্তব পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Monir Ahmad ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৫ এএম says : 0
ইউরোপে যুদ্ধ লাগিয়ে এখন যুক্তরাষ্ট্র এশিয়াতেও যুদ্ধ বাধানোর পায়তারা করছে! তাইওয়ানকেও ইউক্রেনের অবস্থায় পরতে হতে পারে!
Total Reply(0)
তানভীর হোসাইন তারেক ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৩ এএম says : 0
বর্তমান পৃথিবীর জন্য আমেরিকা একটি অভিশপ্ত রাষ্ট্র।
Total Reply(0)
তানভীর হোসাইন তারেক ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৩ এএম says : 0
বর্তমান পৃথিবীর জন্য আমেরিকা একটি অভিশপ্ত রাষ্ট্র।
Total Reply(0)
MD Mizanur Rahaman ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৩ এএম says : 0
আমেরিকা পৃথিবীর যেখানেই গেছে, সেখানেই অশান্তি শুরু,,
Total Reply(0)
Parimal Das ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৩ এএম says : 0
অস্ত্রের গরম, অহংকারের বড়াই। আর বাকি পৃথিবীকে দিতে হবে খেসারত।
Total Reply(0)
Muhammad Shopon ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৫ এএম says : 0
সবকিছুতে আমেরিকার নাক গলানো ঠিক না।তাইওয়ান চিনের একটি সায়ত্তশাসিত অঞ্চল। চিনের মতো শক্তিশালী দেশকে এভাবে চেতিয়ে তুল্লে পরে আমেরিকার ই ক্ষতি।
Total Reply(0)
Ti Tan ৩ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৫ এএম says : 0
পৃথিবীর উপনিবেশ অঞ্চলগুলো স্বাধীনতা পাওয়ার জন্য মরিয়া তারা চাই নিজস্ব দেশ হোক আর কতকাল যাবত উপনিবেশ হয়ে থাকবে, কাশ্মীর, জিনজিয়াং, হংকং,তিব্বত, তাইওয়ান আরো অনেক অঞ্চল যা স্বাধীনতাকামী, দেশগুলোকে তাদের নিজস্ব স্বাধীন দেশ হিসেবে সীকৃতি দেওয়া উচিত।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন