সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ১৪ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

সারা বাংলার খবর

দক্ষিণাঞ্চলে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়

নাছিম উল আলম : | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

‘সবার জন্য উন্মুক্ত কর্মমুখী, গণমুখী ও জীবন ব্যাপী শিক্ষা’ সেøাগান নিয়ে সারা দেশের মতো দক্ষিণাঞ্চলেও উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয় কর্মজীবী ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ঝড়ে পরা মানুষের জীবনে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে। অনানুষ্ঠানিক এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুধু দক্ষিণাঞ্চলেই প্রতি বছর প্রায় ৩০ হাজার ছাত্রÑছাত্রী দুর শিক্ষন ব্যবস্থায় মাধ্যমিক থেকে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ লাভ করছে।

বর্তমানে দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় প্রায় ১ লাখ ১০ হাজার ছাত্রÑছাত্রী উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যলয়ের বিভিন্ন কোর্সে শিক্ষা লাভ করছে বলে বরিশাল আঞ্চলিক কেন্দ্রের পরিচালক ড. মো. আজিজুল হক জানিয়েছেন। এমনকি ২০১৯ থেকে চলতি বছর পর্যন্ত এ দুর শিক্ষন ও অনানুষ্ঠনিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বরিশাল আঞ্চলিক কেন্দ্রের আওতাভূক্ত ৪২টি উপজেলার প্রায় ৮০ হাজার ছাত্রÑছাত্রী বিভিন্ন বিষয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন পরিচালক।
১৯৯২ সালে ঢাকার গাজীপুরে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয় স্থাপনের মাধ্যমে দেশে প্রথমবারের মত দুর শিক্ষন বা অনানুষ্ঠানিক সবার জন্য উন্মুক্ত শিক্ষা কার্যক্রমের সূচনা হয়। ১৯৯৪ সালে বরিশাল বিভাগীয় সদরে বিশ^বিদ্যালয়টির আঞ্চলিক কেন্দ্র স্থাপনের পরে ইতোমধ্যে এ অঞ্চলের ১৩৫টি স্টাডি সেন্টারগুলো উন্মুক্ত, দুর শিক্ষন ও অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রায় ১৫ লাখ কর্মজীবী, শ্রমজীবী ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ঝড়ে পরা ছাত্রÑছাত্রীর মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলের ১৩৫টি স্টাডি সেন্টারে চলতি সেশনে ২৯ হাজার ২১৩ ছাত্রÑছাত্রী উন্মুক্ত পদ্ধতিতে পড়াশোনা করছে। আগামী বছরেই বরিশাল কেন্দ্রের মাধ্যমে ব্যাচেলর অব মাদরাসা এডুকেশন-বিএমইডি কোর্স চালু হচ্ছে। ফলে দক্ষিণাঞ্চলের মাদরাসা শিক্ষায়ও উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতে যাচ্ছে। পাশাপাশি বরিশাল স্টাডি সেন্টারে এমএ, এমএসএস প্রগামের কার্যক্রম চালুও প্রক্রিয়াধীন।
বর্তমানে উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের বরিশাল আঞ্চলিক কেন্দ্রের মাধ্যমে দক্ষিণাঞ্চলের ৬টি জেলার ৪২টি কেন্দ্রে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, বিএ/বিএসএস, বিএড, এমএড, বিএজিএড, এমবিএ (বাংলা), বিবিএ এবং ডিসিএসএ কোর্সে ৩০ হাজার শিক্ষার্থী দুর শিক্ষন, অনানুষ্ঠানিক ও উপ আনুষ্ঠানিক পদ্ধতিতে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ লাভ করছে। এসব শিক্ষার্থীর প্রায় বেশিরভাগই কর্মজীবী ও শ্রমজীবী এবং বিভিন্ন সীমাবদ্ধতায় সময় মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে অনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারেন নি। উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয় এ ধরনের শিক্ষার্থীদের জীবনে শিক্ষার আলে ছড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এমনকি এ বিশ^বিদ্যালয়টি বরিশালের শেখ হাসিনা সেনানিবাসে কর্মরতদের জন্য একটি এইচএসসি প্রাগামে বিপুল সংখ্যক সৈনিকের জন্য উন্মুক্ত ও অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম চালু করেছে।
২০২১ সালে দেশের দেড় সহস্রাধিক স্টাডি সেন্টারে উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের ১২টি আঞ্চলিক কেন্দ্র ও ৮০টি উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রে প্রায় ১২ লাখ শিক্ষার্থী দুর শিক্ষনসহ উন্মুক্ত ও অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ লাভ করেছিল। এরমধ্যে শুধুমাত্র ২০২০-২১ শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থীর সংখ্যাই ছিল সোয়া ৪ লাখের মত। উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের মাধ্যেমে এমফিল ও পিএইচডি’র মতো উচ্চ শিক্ষা গ্রহণেরও সুযোগ লাভ করছে দেশের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীগণ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন