শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

সম্পাদকীয়

জিপিএ ৫ পাওয়াই কি সব?

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

গত ২৮ নভেম্বর প্রকাশিত হয়েছে এসএসসি ও সমমান পর্যায়ের রেজাল্ট। ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড মিলিয়ে এসএসসি ও সমমানের ২০ লাখের বেশি পরীক্ষার্থীর ফল প্রকাশ করা হয়। রেজাল্টের দিন এক ছোট ভাই ফোন দিয়ে জানালো, তার মন খারাপ। মন খারাপের কারণ জানতে চাইলে সে বললো, তার নাকি অল্পের জন্য জিপিএ-৫ মিস হয়েছে। তার স্বপ্ন ছিল, মেডিকেলে পড়বে। কিন্তু কাক্সিক্ষত ফলাফল না পাওয়ায় সে নাকি মেডিকেলে পড়ার ইচ্ছা শক্তি হারিয়ে ফেলেছে। তার ধারণা, জিপিএ-৫ না পাওয়ায় অন্যদের তুলনায় অনেক পিছিয়ে পড়েছে। এই ধারণা থেকে তার ভেতর হীনমন্যতার জন্ম হয়েছে। এটা শুধু মাত্র তার সমস্যা না পুরো প্রজন্ম এই জিপিএ-৫ নামক অসুস্থতায় ভুগছে। জিপিএ-৫-কে ভালো-খারাপের মানদণ্ড ধরে অভিভাবকরা শিক্ষার্থীদের শিক্ষার আসল উদ্দেশ্য থেকে বঞ্চিত করছে। অভিভাবকদের অতিরিক্ত স্বপ্ন বা প্রত্যাশার চাপে শিক্ষার্থীরা হাপিয়ে উঠে। পাশের বাসার অমুক গোল্ডেন প্লাস পেয়েছে, তুমি কেন পেলে না? রেজাল্ট পরবর্তী সময়ে শিক্ষার্থীকে এটা মানসিক চাপে ফেলে। অনেক শিক্ষার্থীই মনে করে পরিবার থেকে তৈরি হওয়া ‘অযাচিত’ চাপে তারা পিষ্ঠ। জীবন ও বাস্তবমুখী শিক্ষা থেকে দূরে সরে গিয়ে তাদের শেখানো হচ্ছে পড়ো এবং পড়ো, যেকোনো মূল্যে জিপিএ-৫ চাই। অভিভাবকরা চিন্তা করেন না, তার সন্তান কতটা বাস্তবমুখী, জীবনের সাথে কতটা মিশতে পেরেছে, তার সামাজিকীকরণ কতটুকু অর্জিত হলো। চারপাশের লোকজন, আত্মীয়স্বজন তো আছেই, যারা সব সময় কটুকথা বলতে পিছু পা হয়। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত আবেগপ্রবণ হয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে এবং অনেকে মারাও যায়। পরিসংখ্যান বলছে ২০১৯ সালে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রত্যাশানুরূপ ফল না পাওয়ায় ১০ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে এবং ২০২০ সালে এসে এর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ জন। এসব শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার জন্য দায়ী আমাদের সমাজব্যবস্থার কৃত্রিম সামাজিক ব্যাধি, তথা জিপিএ-৫ নামক মানদণ্ড। তাই, শুধু জিপিএ-৫ পাওয়াই শিক্ষাজীবনের একমাত্র লক্ষ্য হতে পারে না। এটা মাথায় রাখলে আর কারো হতাশায় ভুগতে হবে না।

আহমেদ জুনাইদ তন্ময়
শিক্ষার্থী, আনন্দমোহন কলেজ, ময়মনসিংহ

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন