সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

পার্টনারশিপে বিশ্বরেকর্ড

প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা, চট্টগ্রাম থেকে : ওয়ার্ম আপ ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে ৯৭ রানে হেরে যাওয়ায় অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কিত হওয়ারই কথা। তবে ওই হারটি যেন একটু বেশিই তাতিয়ে দিয়েছে ইংলিশ যুবাদের। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ দল যখন প্রোটিয়াদের বিপক্ষে জয়ের কাছাকাছি, তখন ৮ কিলোমিটার দূরের ভেন্যুতে ফিজির বিপক্ষে  ২৯৯ রানের বিশাল জয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ শুরু করেছে তারা।
এক ম্যাচে অনেক রেকর্ড হয়ে গেছে ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। ২০১৪ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে স্বাগতিক দলের বিপক্ষে ৩১৫/৮ স্কোর ছিল ইংলিশ যুবাদের সর্বোচ্চ স্কোর। সেই রেকর্ড ছাড়িয়ে গতকাল ফিজির বিপক্ষে স্কোর করেছে ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৩৭১/৩! অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ইতিহাসে এক ইনিংসে জোড়া সেঞ্চুরির অতীত ছিল না ইংল্যান্ডের। গতকাল লরেন্স (১৭৪) ও বার্নহ্যামের (১৪৮) জোড়া সেঞ্চুরিতে নতুন ইতিহাস রচনা করেছে ইংল্যান্ড। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ইতিহাসে সর্বোচ্চ ইনিংসটি এখনো ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডনোভান পাগানের, ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ১৭৬ রানের সেই ইনিংসকে শ্রদ্ধা জানিয়ে থেমেছেন লরেন্স (১৭৪)। তবে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ৩য় সর্বোচ্চ ব্যবধানের জয়ে বার্নহামকে সঙ্গে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে লরেন্সের নেতৃত্ব দেওয়া ৩০২ রানের জুটি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ইতিহাসে যে কোনো জুটিতে সর্বোচ্চ। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে এটাই প্রথম ৩’শর পার্টনারশিপ। এর আগে ২০০৪ সালে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বিকেএসপিতে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের ২য় উইকেট জুটির (ওয়াটলিং-উইলসন) ২৭৩ ছিল যে কোনো জুটিতে সর্বোচ্চ। ৪৮ চার, ৫ ছক্কার ইনিংসে লরেন্স মেরেছেন ২৫ চার ১ ছক্কা, সেখানে বার্নহ্যামের ১৯ চার এর পাশে ছিল ৪টি ছক্কা!
ফিজিকে রান পাহাড়ে চাপা দিয়ে বাধ্যতামূলক পাওয়ার প্লে তেই (৭/৬)  বড় ব্যবধানে জয়ের পথ প্রশস্ত করেছে ইংল্যান্ড। স্কোরশিটে ১৭ উঠতে ৬ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে দিশেহারা ফিজি অবশ্য ৭২ রান পর্যন্ত স্কোর টেনে নিতে পেরেছে ৯ম জুটির ২৯ রানের কল্যাণে। ইংল্যান্ডকে ৩০০ রানে জিততে দেয়নি, এটাই তাদের স্বান্ত¦না।

স ং ক্ষি প্ত স্কো র
ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ : ৩৭১/৩ (৫০.০ ওভারে), লরেন্স ১৭৪, বার্নহ্যাম ১৪৮
ফিজি অনূর্ধ্ব-১৯ : ৭২/১০ (২৭.৩ ওভারে), ভুনিওয়াকা ৩৬, মাহামুদ ৩/২, কুররান ৩/২২।
ফল : ইংল্যান্ড ২৯৯ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : লরেন্স (ইংল্যান্ড)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন