রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ০৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

খেলাধুলা

মোহামেডানকে সুসংবাদ দিল রিজার্ভ ডে

শুভাশিষ নাইম জুনিয়রে লন্ডভন্ড প্রাইম ব্যাংক

প্রকাশের সময় : ৩০ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : গত মঙ্গলবার স্কোরশিটে ৪১ উঠতে যখন হারিয়েছে মোহামেডান ৫ উইকেট, তখনই আশা-ভরসা ছেড়ে দিয়েছিল মোহামেডান। নাজমুল মিলন (৬৪) এবং হাবিবুর রহমান জনি’র (৫০) ফিফটিতে স্কোর শেষ পর্যন্ত ২২৪এ টেনে নেয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছিল মোহামেডান শিবিরে। তবে ওই দিন বেরসিক বৃষ্টির আক্রমণে খেলা স্থগিত হওয়ার আগে জয়ের পথটা অনেকটাই এগিয়ে রেখেছিল প্রাইম ব্যাংক। তবে কে জানতো রিজার্ভ ডে’তে গড়ানো ম্যাচ সুসংবাদ বয়ে আনবে মোহামেডানে। অথচ, সব আশা ছেড়ে দিয়ে উল্টো অবিশ্বাস্য জয়ই দেখেছে মোহামেডান। ৪১/১ থেকে গতকাল খেলা শুরু করে, গতকাল দ্বিতীয় উইকেট জুটির ৭২ রানে জয়ের স্বপ্নে যখন বিভোর প্রাইম ব্যাংক, তখনই খেল তারা হোঁচট। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে গতকাল রিজার্ভ ডে তে গড়ানো ম্যাচে পেস বোলার শুভাশিষের বিধ্বংসী এক স্পেলের (৪-২-৭-৩) সঙ্গে বাঁ হাতি স্পিনার নাইম জুনিয়রের প্রথম স্পেলে (৩.৪-০-১৪-৩) ৮২ রানের অবিশ্বাস্য জয় পেলো মোহামেডান।
দিনের চতুর্থ বলে শুভাশিষকে এবং দিনের চতুর্থ ওভারে নাইম জুনিয়রকে মেহেদী মারুফের ২টি বাউন্ডারি, শুভাশিষকে দিনের ৫ম ওভারে সাব্বির রহমান রুম্মানের ২টি বাউন্ডারিতে জয়ের আবহই ছিল প্রাইম ব্যাংক শিবিরে। সেখান থেকে ছন্দপতন। শুভাশিষের বলে রুম্মানের (৪১) এলবিডাব্লু দিয়ে শুরু প্রাইম ব্যাংকের বিপর্যয় পরের ওভারে আর এক পেস বোলার আরিফের বলে ক্যাচ দিয়ে এসেছেন মেহেদী মারুফ (৪৮)।  স্কোরশিপে শেষ  ২৯ রান যোগ করতে হারিয়েছে তারা ৯ উইকেট! প্রাইম ব্যাংকের ইনিংসে ধাক্কাটা দিয়েছেন শুভাশিষ (৩/৪৯), দলটিকে পুরোপুরি ছিন্ন ভিন্ন করার দায়িত্বে সফল নাইম জুনিয়র (৪/২১)। এই কম্বিনেশনেই হেসেছে মোহামেডান। ৪১/১ থেকে ছন্দপতনে প্রাইম ব্যাংকের ইনিংস শেষ হয়েছে ১৪২/১০ এ!  রিজার্ভ ডে’র সুফল তো পেলো এই জায়ান্ট।  ৮ম রাউন্ড শেষেও যথারীতি পয়েন্ট তালিকায় প্রাইম দোলেশ্বরের সঙ্গে শীর্ষে মোহামেডান (১২ পয়েন্ট)। সেখানে ৪র্থ হারে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন প্রাইম ব্যাংকের সুপার লীগের পথটাই যে কঠিন হয়ে পড়ল।

প্রাইম ব্যাংক-মোহামেডান
মোহামেডান : ২২৪/১০ (৪৯.২ ওভারে), ইজাজ ০, নাইম ২৫, মুশফিকুর ০, মিথুন মানহাজ ৩৫, নাজমুল মিলন ৬৪, হাবিবুর ৫০, আজিম ৩/৪০, রুবেল ২/৪০, মুনীর ২/৩৩।
প্রাইম ব্যাংক : ১৪২/১০,৩২.৪ ওভারে (আগের দিন ৪১/১, ৬.২ ওভারে, মেহেদী মারুফ ২২ ব্যাটিং, নাইম জুনি.১/৭), মেহেদী মারুফ ৪৮, শেহনাজ ১৬, সাব্বির রুম্মান ৪১, সোহান ৫, সিহান জয়সুরিয়া ৪, শুভাশিষ ৩/৪৯, নাইম জুনি. ৪/২১, আরিফুল ২/২৭, নাইম ১/৪।
ফল : মোহামেডান ৮২ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : নাইম জুনিয়র (মোহামেডান)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন