শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

খেলাধুলা

টি-টোয়েন্টি সিরিজ ভারতের এবার থৈ পাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : ওয়ানডে সিরিজে অসাধারণ ব্যাটিং করেও সিরিজ হেরেছিল ধোনির ভারত। টোয়েন্টি২০ সিরিজে যেন সেই বদলাই নিল সফরকারীরা। এক ম্যাচ বাকি থাকতেই টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ওয়ানডে সিরিজ হারা ভারত। টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানের দৃঢ়তায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বড় সংগ্রহ গড়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। পরে বোলারদের দারুণ বোলিংয়ে ২৭ রানের জয় তুলে নেয় দলটি। গতকাল মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ১৮৪ রান করে ভারত। জবাবে ৮ উইকেটে ১৫৭ রানে থেমে যায় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস।
শন মার্শের সঙ্গে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের ৯৪ রানের উদ্বোধনী জুটি দারুণ সূচনা এনে দেয় অস্ট্রেলিয়াকে। মার্শকে (২৩) ফিরিয়ে ৯.৫ ওভার স্থায়ী উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। সেই ওভারে দুইবার ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যান ফিঞ্চ।
মার্শের বিদায়ের পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ফিঞ্চের অধিনায়কোচিত ব্যাটিংও দলকে জয় এনে দিতে পারেনি। রান আউট হওয়ার আগে ৭৪ রান করেন ফিঞ্চ। তার ৪৮ বলের ইনিংসটি গড়া ৮টি চার ও দুটি ছক্কায়। শেন ওয়াটসন (১৫), জেমস ফকনারের (১০) ব্যাটে ঝড়ের আভাস থাকলেও তাদের দ্রæত বিদায়ে টানা দ্বিতীয় হার এড়াতে পারেনি স্বাগতিকরা।
ভারতের রবিন্দ্র জাদেজা ও জাসপিত বুমরাহ দুটি করে উইকেট নেন।
এর আগে শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে রোহিত শর্মার ৯৭ রানের উদ্বোধনী জুটি উড়ন্ত সূচনা এনে দেয় ভারতকে। ১১ ওভার স্থায়ী জুটি ভাঙেন গেøন ম্যাক্সওয়েল। তার বলে রিভার্স সুইপ করে ক্রিস লিনকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান শিখর ধাওয়ান (৪২)। বাঁহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের এটাই সর্বোচ্চ রান। তাদের আগের সেরা ছিল ৩৩। উদ্বোধনী জুটির ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৬৮ বলে একশ’ রানে পৌঁছে ভারতের সংগ্রহ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এর চেয়ে কম বলে রান তিন অঙ্কে নেয়ার নজির আছে আর একটি। ২০১৩ সালে ব্রিসবেনে ৬৭ বলে একশ’ রান করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বিরাট কোহলির সঙ্গে ৪৬ রানের জুটিতে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন রোহিত। ৫ ওভার স্থায়ী তাদের এই জুটি ভাঙে রোহিতের রান আউটে। ৪৭ বলে খেলা এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের ৬০ রানের ইনিংসটি ৫টি চার ও দুটি ছক্কা সমৃদ্ধ। শেষ পর্যন্ত ৫৯ রানে অপরাজিত থাকেন কোহলি। তার ৩৩ বলের ইনিংসটি সাজানো ৭টি চার ও ১টি ছক্কায়।
এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ভারত। এই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া দলে ছিল ছয়টি পরিবর্তন। স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, ট্রেভিস হেড, ক্যামেরন বয়েস, শন টেইট ও কেন রিচার্ডসন খেলেননি। তাদের জায়গায় দলে ফিরেছেন শন মার্শ, ম্যাক্সওয়েল ও জন হেস্টিংস। অভিষেক হয়েছে নাথান লায়ন, স্কট বোল্যান্ড ও অ্যান্ড্রু টাইয়ের। আগামীকাল সিডনিতে হবে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। এর আগে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হারে ভারত।
একই দিন সুসংবাদ দিয়েছে ভারতের নারী দলও। সেই অস্ট্রেলিয়াকে দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করেছে ভারতীয় প্রমীলা ক্রিকেট দল। তিন ম্যাচের সিরিজে সফরকারীরা এখন ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে।
মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা ভাল হয়নি। ৩৩ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। পরে লানিংয়ের ৪৯ রানে ভর করে ১৮ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান সংগ্রহ করে তারা। ভারতের পক্ষে গোস্বামী ও গায়াকাদ ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। বৃষ্টির কারণে ম্যাচের পরিধি কমিয়ে আনা হয়। ক্রিকেটের বৃষ্টি আইন ডিএল ম্যাথড অনুযায়ী ১০ ওভারে ৬৬ রানের টার্গেট নির্ধারণ করা হয় ভারতের জন্য। ৯.১ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়েই জয় পেয়ে যায় সফরকারীরা। মিথালি রাজ ৩৭ ও মানধানা ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন গোস্বামী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন