ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বালিয়াকান্দিতে কৃষক অপহরণ, গ্রেফতার ২

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:১৬ পিএম

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের রসুলপুর মোড় থেকে শনিবার রাত ৮টার দিকে এক কৃষক শাখাওয়াত ফকির(৫০)কে অজ্ঞাতনামা ৩ ব্যাক্তি মোটরসাইকেলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। নিয়ে মুক্তিপণ দাবি কালে ২ অপহরণ কারী পুলিশের হাতে গ্রেফতার।
থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসিতদন্ত) ওবায়েদুল হক প্রেস বিফ্রিংয়ে জানান, শনিবার বিকাল ৩টার দিকে উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের বকশিয়াবাড়ী গ্রামের নওশের ফকিরের ছেলে শাখাওয়াত ফকির ও তার মেয়ে অন্তরা বেগম মাদারীপুর থেকে বাড়ী আসার পথে রাত ৮টার দিকে রামদিয়া বাজার হতে অটোভ্যানে রওনা হয়। রসুলপুর মোড়ের রাস্তার উপর ফাকা জায়গায় আসা মাত্র অজ্ঞাতনামা ৩ ব্যাক্তি মোটরসাইকেল যোগে এসে ভ্যান থামিয়ে শাখাওয়াত ফকিরকে মোটর সাইকেলে জোরপূর্বক উঠিয়ে নিয়ে ফোন করে ৫লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করে বলে যে টাকা নিয়ে কালুখালী উপজেলার সোনাপুর-বোয়ালিয়া মোড়ে যেতে হবে না নিয়ে গেলে শাখাওয়াত ফকিরকে হত্যার হুমকি প্রদান করেন। রাজবাড়ী পুলিশ সুপারের নির্দেশে থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক সময়ে অভিযান চালিয়ে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে শাখাওয়াত ফকির ও অপহরণকারী চক্রের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে বালিয়াকান্দি ও পাংশা থানা পুলিশ এলাকার জনগণের সহায়তায় পাংশা কলেজপাড়া এলাকার আমবাগান থেকে অপহৃত শাখাওয়াত ফকিরকে উদ্ধার করাসহ ২ অপহরণকারীরা হলেন, পাংশা পৌরসভার মাগুরাডাঙ্গী গ্রামের তাহাজ্জত হোসেনের ছেলে অপু রায়হান (৩০) ও কোড়াপাড়া গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে সোহেল (৩১)কে আটক করে এবং অপহরণের কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল ( রাজবাড়ী-হ-১১-০২০৮) ও ৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় জনতার হাতে ২ অপহরণ কারী গণধুলায়ের শিকার হন। থানা পুলিশ উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করেন। এই ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ২ আসামীকে রবিবার রাজবাড়ী আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
অপহৃত শাখাওয়াত হোসেন জানান, প্রশাসনের পরিচয় দিয়ে আমার মেয়েকে ভ্যান যোগে চলে যেতে বলে, আমাকে সোনাপুর বাজারে নিয়ে ভয় দেখিয়ে মারপিট করাসহ আমার মোবাইল ফোনের বিকাশের পিনকোড দিতে বলে পরে আমার বাড়ীর মোবাইলে ফোন করে টাকা দাবী করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন