ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভোলার ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর না ঘটে সেজন্য আলেমদের সতর্ক হতে হবে -আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩১ পিএম | আপডেট : ৬:২৮ পিএম, ২১ অক্টোবর, ২০১৯

বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন বলেছেন, আগামী দিনে দেশের সমাজ গঠনে আলেমদের ভূমিকা আরো বাড়বে। আলেমরা যদি একতাবদ্ধ থাকে তাহলে কোন ষড়যন্ত্রই তাদেরকে দমিয়ে রাখতে পারবে না। গতকাল বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় তিনি এ কথা বলেন। রাজধানীর মহাখালীস্থ জামিয়াতুল মোদার্রেছীন ও মসজিদে গাউছুল আজম কমপ্লেক্সে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের মহাসচিব অধ্যক্ষ শাব্বীর আহমদ মোমতাজীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন আরো বলেন, ভোলার ঘটনায় আলেম সমাজকে সতর্কতার সাথে দৃষ্টি রাখতে হবে। ভোলার ঐ ঘটনায় ষড়যন্ত্র থাকতে পারে, উত্তেজনামূলক ঘটনা হতে পারে, ভোলা মত ঘটনা অন্য কোথাও যাতে না ঘটে সে দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। তিনি মাদরাসা শিক্ষকদের নিজেদের দায়িত্ব পালনে আরো সতর্ক এবং দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, নিজেরা আরো বেশী পড়াশুনার দিকে নজর দেন। বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল। গোটা বিশ্ব তথ্য প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের মাদরাসার ছাত্ররা পড়ালেখা করে তাদের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারে, সেটা দিকে লক্ষ রেখে তাদের পাঠদান করতে হবে। শুধু নিজেদের দাবী দাবী করলে হবে না প্রধানমন্ত্রী আমাদের পক্ষে আছেন তিনি ইসলামী চেতনাই ধারণ করেন। কাজেই মাদরাসা শিক্ষকদেরকেও মাদরাসা শিক্ষার সাফল্য তাঁর সামনে উপস্থাপন করতে হবে।
এ সভায় সারা দেশ থেকে আগত জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের নির্বাহী কমিটির কর্মকর্তা ও সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
আহমেদ মামুন ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩৮ পিএম says : 2
ধন্যবাদ মাননীয় সম্পাদককে । সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় আলেম সমাজকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। নতুবা সম্প্রীতি ধরে রাখা কঠিন হবে।
Total Reply(0)
সোহেল হায়দার ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩৯ পিএম says : 3
আপনার সাথে একমত। সতর্ক না হলে বড় ধরনের ম্যাচাকার ঘটে যেতে পারে। যা আমাদের আরও বড় ক্ষতির কারণ হবে।
Total Reply(0)
Ranjay Podder ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪১ পিএম says : 1
প্রিয় সম্পাদক আপনার সাথে একমত। আমি প্রথমেই সংঘাতে নিহত সকলের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। খুবই দুঃখজনক ঘটনা। সেই সাথে আমাদের সকলের উচিত মহান আল্লাহ পাক এর দেখানো পথে চলা, নবী রাসুল এর শিক্ষায় চলা, এখন যুগ ও প্রযুক্তি যত আধুনিক হচ্ছে তেমনি বাড়ছে অযথা জঞ্জাল। বাড়ছে সাইবার ক্রাইম অপরাধ গুলো । তাই সবাই কে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে, ফেইসবুকে অযথা বিভ্রান্তি না ছড়িয়ে প্রশাসনিক ব‍্যবস্থা ই উত্তম । তা ছাড়া নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদের সবার প্রিয় নবী ওনার নামে কুৎসা ছড়িয়ে মুসলিম বিদ্বেষী বানিয়ে দিলে ই তো শত্রু পক্ষের কেল্লা ফতে, এই দিক টা আমাদের বিবেচনায় রাখতে হবে। কেউ যেন নবী করীম ও ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি না করে সে ব‍্যাপারে সবাই কে সজাগ থাকতে হবে। আইনের মাধ্যমে সঠিক অপরাধীকে শাস্তির দাবি করছি। কেউ যেন অযথা আঘাত না করি, মহান আল্লাহ সব কিছু ই নিশ্চয়ই হিসেবে রাখছেন, ঐ পাড়ে অপরাধের সাজা রেডি আছে। কেউ অতি উৎসাহী না হয়ে সঠিক পথে পরিচালিত হই, মহান আল্লাহ আমাদের সবাইকে রক্ষা করোন।
Total Reply(0)
সাইফুল ইসলাম ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৪ পিএম says : 1
আলহামদুলিল্লাহ। আপনাদের মতো সচেতন ব্যক্তিরা আছে বলে এখনও সম্প্রীতি টিকে আছে। জামিয়াতুল মোদার্রেছীন এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিরা রাখছে। আল্লাহ আপনাদের কবুল করুন। আমিন
Total Reply(0)
সত্যভাষী ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৭ পিএম says : 0
সহমত। আসলে সতর্ক হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি যা আছে তা সত্যিকারের আলেম সমাজের জন্যই আছে।
Total Reply(0)
মহিব্বুল্লাহ ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৮ পিএম says : 0
ইসলামি বিদ্বেষী একটি গোষ্ঠী সবসময়ই বাংলাদেশের মুসলমান ও আলেম সমাজকে সাম্প্রদায়িক ও উগ্রবাদি হিসেবে চিত্রায়িত করতে বিভিন্ন সময় ষড়যন্ত্র করেছে, এখনও করছে, সামনেও করবে। এ বিষয়ে অবশ্যই সতর্ক ও সজাগ থাকতে হবে।
Total Reply(0)
মুহাম্মাদ জাহাঙ্গীর আলম ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৫০ পিএম says : 1
আমি মনে করি সরকারকেও ইসলামের প্রতি আরেকটু সহনশীল হতে হবে। ধর্মঅবমাননার বিষয়গুলো গুরুত্বের সাথে নিয়ে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। কোনো কৌশলে ক্ষোভকে দমন করে রাখা ভালো হবে না।
Total Reply(0)
Shawkat Ali ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৫৩ পিএম says : 3
যে দেশে আলেম-ওলামারা ডজনাধিক দলে বিভক্ত সেই দেশে তারা মুসলমানদের স্বার্থ ও মর্যাদা রক্ষায় কতটুকু ভুমিকা পালন করবে? আজ মুসলমান যে যার গোষ্ঠিগত স্বার্থ রক্ষায় ব্যস্ত। তাই তারা বড়জোর দু'চারজনকে কোরবানী দিতে পারে কিন্তু বৃহত্তর মুসলিম কমিউনিটির জন্য তারা খুব সামান্যই করতে পারে।
Total Reply(0)
Rowshan Gazi ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৫৮ পিএম says : 1
আল্লাহ রাব্বুল আলআমিন মহান বিচারক।অপেক্ষা করুন শাস্তি চোখে দেখতে পাবেন।
Total Reply(0)
Kazal Islam ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৫৯ পিএম says : 0
আমি আপনার সাথে একমত। তবে আমার প্রশ্ন- পুলিশ কেন গুলি করলো, এর চেয়ে বড় বড় সমাবেশে পরিস্থিতি অবনতির আশংকা থাকলে পুলিশ রাবার বুলেট, জলকামান এগুলা ছুড়ে। কিন্তু সরাসরি বুলেট দিয়ে দেশের জনগন মেরে ফেলা পুলিশের কাজ নয়। অবশ্যই পুলিশকে জবাব দিহিতার আওতায় আনতে হবে।
Total Reply(1)
Yourchoice51 ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ৫:৫৮ পিএম says : 0
ঠিক বলেছেন ভাই। মুসলিমদের অব্যশই সতর্ক হতে হবে; তবে সতর্কতা মানে যদি মহানবী (সাঃ) - এর প্রতিবাদ না করে চুপ করে থাকা হয়, তাহলে আমাদের নিজেদের ঈমান সম্পর্কে প্রশ্ন এসে যাই। আর হ্যাকিঙের কথা বলে যদি বিদ্রূপকারীরা পার পেয়ে যাই, তাহলে এমন কার্যকলাপ বাড়বেই। এদেশের পুলিশের ঘুষ খেয়ে কাহিনী পাল্টনোর ভুরি ভুরি নজির রয়েছে; তাই ভোলার প্রকৃত তথ্য উদ্ঘাটন আদোও হবে কিনা বোঝা যাচ্ছে না। তবে মহান আল্লাহপাকের দরবারে সবই নায্যভাবে ফায়সালা হয়ে যাবে; কেউ ছাড় পাবে না।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন