ঢাকা, বুধবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

দিপুর হাত ধরে প্রথম স্বর্ণ

জাহেদ খোকন, কাঠমান্ডু (নেপাল) থেকে | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

নেপাল সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে দেশের হয়ে প্রথম স্বর্ণ জিতলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ক্রীড়াবিদ দিপু চাকমা। তার হাত ধরে আসরের দ্বিতীয় দিনই স্বর্ণপদকের দেখা পেলো বাংলাদেশ। তায়কোয়ান্ডো ডিসিপ্লিনের পুমসে ইভেন্টে প্রথমবারের মতো এসএ গেমসে খেলতে এসেই বাজিমাত করেন রাঙ্গামাটির এই ছেলে। গতকাল সকালে কাঠমান্ডুর সাদ্দোবাদোর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে পুরুষদের ২৯ প্লাস বয়স ক্যাটাগরিতে ৮ দশমিক ২৮ পয়েন্ট নিয়ে ভারত ও স্বাগতিক নেপালের প্রতিযোগিকে পেছনে ফেলে সোনা জিতেন দিপু। সঙ্গে সঙ্গে কমপ্লেক্সে বেজে ওঠে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত ‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি’। তায়কোয়ান্ডোর এই ইভেন্টে ছয়টি দেশ অংশ নিয়েছিল। পয়েন্ট পদ্ধতির ইভেন্টে দিপু সর্বোচ্চ পয়েন্ট পেয়ে সোনা জয় করেন। ভারত ও নেপালের প্রতিযোগি যথাক্রমে রৌপ্য ও ব্রোঞ্জপদক পান।

এরআগে দেশ-বিদেশে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন আমন্ত্রণমূলক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে পাঁচটি স্বর্ণ ও একটি রৌপ্যপদক জিতলেও এটা দিপুর প্রথম কোন আন্তর্জাতিক গেমসে খেলা। আর প্রথম আসরেই আলো ছড়ালেন ৩১ বছর বয়সী এই ক্রীড়াবিদ। তাও আবার এসএ গেমসে প্রথমবারের মতো যুক্ত হওয়া পুমসে ইভেন্টে স্বর্ণ জেতার সাফল্য। যে সাফল্যে তিনি নিজের নামটা নিয়ে গেলেন অনন্য এক উচ্চতায়।

সোনা জয়ের পর আনন্দে প্রায় বাকরুদ্ধ হয়ে উঠেছিলেন দিপু। দেশকে প্রথম সোনা এনে দেয়ার প্রতিক্রিয়ায় এই স্বর্ণজয়ী বলেন, ‘আমি এখনো ঘোরের মধ্যে আছি। দেশের বাইরে খেলতে এসেছি, দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে এসেছি। দেশকে কিছু দিতে পেরে আমি গর্বিত। আন্তর্জাতিক আসরে দেশের পক্ষে প্রথম সোনা জয়ের আনন্দ আসলে ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। এটা অন্যরকম এক অনুভূতি। আমার এখনো বিশ্বাসই হচ্ছে না আমি স্বর্ণপদক জয় করে ফেলেছি। তবে এটা বলতে পারি সাফল্য পেয়ে অনেক অনেক ভালো লাগছে।’

এই সাফল্যের মূল কারিগর হিসেবে দলের প্রধান কোচ কোরিয়ান মিন হাক সেওকে দিলেন পুরো কৃতিত্ব, ‘কোরিয়ান কোচ দায়িত্ব নিয়েছেন মাত্র একমাস আগে। কিন্তু গত একমাসেই আমাদের অনেক উন্নতি করিয়েছেন। তার কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।’

দিপুর স্বর্ণ জয়ে দারুণ খুশি বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা, ‘আমাদের সোনার পদক জেতা শুরু হলো। এটা আশা করি অব্যাহত থাকবে। আমি কিন্তু গেমসের আগে একদিনও বলিনি আমরা কোন ইভেন্টে কয়টা স্বর্ণ পাবো। কারন আমার লক্ষ্য গত আসরের চেয়ে বেশী পদক জয় করা। তাছাড়া আমি নির্দৃষ্ট করে কোন ইভেন্টের নাম বললে অন্য ইভেন্টের অ্যাথলেটরা মন খারাপ করবে। আমার কাছে সবাই সমান।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন