ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

চোটজর্জর আর্জেন্টিনাকে ম্যারাডোনার হুঁশিয়ারি

প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সেমিফাইনালে ৪-০ গোলে জয়ের দিনে একটি দুঃসংবাদও সঙ্গী হয়েছে আর্জেন্টিনার। কনুইয়ে চোট পেয়ে ফাইনালে অনিশ্চিত হয়ে গেছেন দলের নির্ভরযোগ্য ফরোয়ার্ড এজকুয়েল লাভেজ্জি। তার একদিন বাদেই কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের ফাইনালের আগে আরো একটি খারাপ খবর আছে মেসির দলের জন্য। চোট কাটিয়ে উঠলেও এখনও ফাইনালে খেলার জন্য প্রস্তুত নয় দেশটির তারকা মিডফিল্ডার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আগের দিন অ্যাডাক্টর মাংসপেশির চোট কাটিয়ে ডি মারিয়া মাঠে ফেরার মতো অবস্থায় আছেন বলে জানিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার কোচ জেরার্ডো মার্টিনো। সেই আশায় গুড়েবালি।
গ্রæপ পর্বে পানামার বিপক্ষে ৫-০ গোলে জেতা ম্যাচের প্রথমার্ধে ডান ঊরুতে ব্যথা নিয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন পিএসজির মিডফিল্ডার ডি মারিয়া। পরে পরীক্ষায় দেখা গেছে, পায়ের অ্যাডাক্টর মাংসপেশি সামান্য ছিড়ে গেছে তার। এরপর টানা তিন ম্যাচ (বলিভিয়া, ভেনেজুয়েলার পর সেমিফাইনালে যুক্তরাষ্ট্র) মাঠে নামা হয়নি চোটের কারণে ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলতে না পারা ডি মারিয়া। সেবার ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা।
প্যারিস সেন্ট জার্মেইর এই তারকা বৃহস্পতিবার অনুশীলন শুরু করেছিলেন। কিন্তু সেশন শেষ না করেই মাঠ থেকে উঠে যেতে হয়েছে তাকে। যুক্তরাষ্ট্রের ইস্ট রাদারফোর্ডে বাংলাদেশ সময় আগামী সোমবার ভোর ৬টায় ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ চিলি। গত বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হেরেই শিরোপা জয়ের স্বপ্ন ভেঙেছিল লিওনেল মেসিদের। এবার আছে প্রতিশোধের সুযোগ।
চোটে পড়া আরেক খেলোয়াড় নিকোলাস গাইতানকে নিয়েও আছে শঙ্কা। আর্জেন্টিনা দলে চোটের সমস্যা আরও আছে। বাঁ কনুইয়ের রেডিয়াল হাড়ে চিড় ধরায় খেলতে পারবেন না ফরোয়ার্ড এসেকিয়েল লাভেজ্জি। আরেক ফরোয়ার্ড নিকোলাস গাইতানের সঙ্গে চোটে ভুগছেন ডিফেন্ডার মার্কোস রোহো ও মিডফিল্ডার আউগুস্তো ফের্নান্দেসও। এমন একটি দলকে আরো চাপে ফেলে দিলেন বুঝি দেশটির হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক অধিনায়ক ডিয়াগো ম্যারাডোনা।
চিলিকে হারিয়ে আর্জেন্টিনাই কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের শিরোপা জিতবে বলে মনে করেন দেশটির কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো মারাদোনা। তবে ‘না জিতলে দেশে ফিরো না’ বলে উত্তরসূরিদের সতর্ক করেও দিয়েছেন আর্জেন্টিনার এই ফুটবল কিংবদন্তি। আর্জেন্টিনাকে ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ জেতানো ম্যারাডোনা বলেন, ‘আমি মনে করি, অবশ্যই আমরা জিতব।’ তবে মেসি-গঞ্জালো হিগুয়াইনদের উদ্দেশ করে সাবেক অধিনায়ক ও কোচ বলেন, ‘কিন্তু যদি না জেতো, তাহলে ফিরে এসো না।’
১৯৯৩ সালের কোপা আমেরিকা জয়ের পর আর কোনো শিরোপার মুখ দেখেনি আর্জেন্টিনা। এবার ২৩ বছরের শিরোপ-খরা কাটাতে মরিয়া লিওনেল মেসিরা।
যাদের কাছে হেরে কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসর শুরু করেছিল, ফাইনালে সেই আর্জেন্টিনারই মুখোমুখি হচ্ছে চিলি। তবে দেশটির কোচ হুয়ান আন্তোনিও পিস্সি মনে করেন, শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে শক্তিশালী ‘ভিন্ন’ এক আর্জেন্টিনার দেখা পাবেন তারা।
শিকাগোতে শেষ হওয়া ম্যাচে কলম্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠে প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চিলি। গত বছর ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে প্রথমবারের মতো কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছিল চিলি। এবার অবশ্য গ্রæপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জেরার্ডো মার্তিনোর দলের কাছে ২-১ গোলে হারে তারা। ফুটবল বিশ্বে আলোচনা চলছে, আরও একবার কি চিলি ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে হারাতে পারবে, নাকি প্রতিশোধ নেবে মার্টিনোর দল? ফাইনালে ওঠার পর চিলির আর্জেন্টাইন কোচ বলেন, ‘আমরা এই ম্যাচে ভালো ফর্ম আর শক্তিশালী হয়ে এসেছি। কিন্তু তারা ভিন্ন হবে, আরও শক্তিশালীও। এটা কঠিন। কিন্তু আমরা বিজয়ী।’ কলম্বিয়ার বিপক্ষে দারুণ জয়ের পর শিষ্যদের প্রশংসায় ভাসান পিস্সি, ‘এটা বিজয়ীদের একটি দল। এই খেলোয়াড়দের মূল গুণ হলো তারা বিজয়ী।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন