ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সংবাদ প্রকাশের পর সালথায় সরকারী হালট দখলের বিষয়ে ব্যবস্থা নিলেন জেলা প্রশাসক

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৪৭ পিএম

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আটঘর ইউনিয়নের শনমানশাহ গ্রামে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে সরকারী হালট কেটে পুকুর খনন করার অভিযোগের সংবাদটি বিভিন্ন পত্রিকা ও অনলাইনে প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথেই জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি গোচর হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা। সেই সাথে আগামী ৩ দিনের মধ্যে পুকুর ভরাট করে সরকারী হালটের সাবেক অবস্থান ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালত।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ হাসিব সরকার বলেন, ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার স্যারের নির্দেশনায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে বালুমহল ও মাটি ব্যবস্থপনা আইন ২০১০ এর ১৫ ধারা অনুযায়ী সরকারী জায়গা থেকে বে-আইনিভাবে মাটি উত্তোলন করার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সাথে আগামী ৩দিনের মধ্যে সরকারী হালট পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, উপজেলা আটঘর ইউনিয়নের ২২ নং শোনমানশাহ মৌজার মাঠে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে সরকারী হালটের আনুমানিক ১৫ শতক জমি কেটে পুকুর খনন করেছে ঐ গ্রামের নুয়াই মাতুব্বারের ছেলে আজাদ মাতুব্বার ও তার চাচাভাই সোরাফ মাতুব্বার। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐ গ্রামের এক ব্যক্তি বলেন, কয়েকটি গ্রামের মানুষ এই হালট দিয়ে মাঠে যাতায়াত করে থাকেন। এই হালটটি আগে ২৫/৩০ হাত আড়ে ছিলো। জমিওয়ালারা কেটে আগেই ছোট করে ফেলেছে। এবার হালট কেটে পুকুর খনন করায় মানুষের চলাচলে বিঘœ হবে। স্থানীয় কিছু মাতুব্বারদের ম্যানেজ করে তারা প্রভাব খাটিয়ে সরকারী হালট কেটে পুকুর খনন করেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। সরকারী হালট রক্ষার্থে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন এলাকাবাসী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন