বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ইংল্যান্ড সিরিজে ফিরতে চান তাসকিন

প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : টিমমেটদের সবাই যখন ফিটনেস ট্রেনিংয়ে কাটাচ্ছেন, তখন কঠোর অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছেন অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ পেস বোলার তাসকিন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের জয়ে রেখেছেন অবদান, অথচ সেই ইংল্যান্ড দল যখন আসছে বাংলাদেশ সফরে,তাদের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না তাসকিনÑতা কি করে হয়? সে কারণেই চেন্নাইয়ের ল্যাবরেটরি পরীক্ষায় ব্যর্থ তাসকিন বোলিং অ্যাকশন পুরোপুরি শুধরে বায়ো মেকানিক্স পরীক্ষায় উতরে আসন্ন হোম সিরিজে ফিরতে উদগ্রীবÑ‘এখন বিশেষজ্ঞ কোচের অধীনে আছি। তিনি আমাকে অনেক সাহায্য করছেন। এখানে বোলিং সেশন চলছে, ভিডিও সেশন চলছে। সবমিলিয়ে অনেক কঠিন পরিশ্রম করতে হচ্ছে। আমিও অনেক খুশি, ভালো উন্নতি হচ্ছে। আশা করি খুব শীঘ্রই পরীক্ষার জন্য যেতে পারবো। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে পারব। যে কোন মূল্যেই হোক, ইংল্যান্ড সিরিজ মিস করতে চাই না। ইংল্যান্ড সিরিজের আগেই পরীক্ষা দিয়ে আসতে পারি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার অনুমতি পাই, এটাই আমার টার্গেট।’
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার উপর নেই কোন নিষেধাজ্ঞা। সদ্য সমাপ্ত প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে আবাহনীর হয়ে ২৬ উইকেট পেয়ে নিজের উপর আত্মবিশ্বাস বেড়েছে তাসকিনের। প্রিমিয়ার ডিভিশনে খেলার কারনে অ্যাকশন সংশোধনের কাজে উপকৃত হয়েছেন বলে জানিয়েছেনÑ‘প্রিমিয়ার লিগের মাঝেও কিন্তু ভিডিও সেশন হয়েছে। প্রিমিয়ার লিগ চলাকালীন সময়েও আমি পাঁচটা সেশন করেছি। মাঠে আমার বোলিংয়ের ভিডিও করা হয়েছে। প্রিমিয়ার লিগ খেলে ভালোই হয়েছে। যেহেতু কোচরা আমার বোলিংয়ে ভুল ধরতে পারেননি, তার অর্থ তারা সন্তুষ্ট।’
তাসকিনের বাউন্সার ডেলিভারীর অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ পোষন করে ধর্মশালায় রিপোর্ট দিয়েছেন আম্পায়ার এস রবি এবং রড টাকার। এই একটি স্টক ডেলিভারী বাদ দিলেই এক্ষুনি ল্যাবরেটীতে পুনঃপরীক্ষায় পাস করবেন তাসকিন। তারপরও তাসকিনের মূল অস্ত্র গতি, ১৪৮ কিলোমিটার গতিতে বোলিংয়ের রেকর্ড আছে বলেই বাউন্সার ছেড়ে দেয়ার কথা মাথায় আনছেন নাÑ‘পেসের সাথে কোনো কম্প্রোমাইজ করব না। আমি ফাস্ট বোলার। পেসটাই আমার মূল শক্তি। আশা করি যে সমস্যাটা ছিল সেটা থাকবে না।’
নিজের ওপর যখন এত আত্মবিশ্বাস, তখন ল্যাবরেটরীতে পুনরায় পরীক্ষা দেয়ার জন্য তো তৈরি হয়েই আছেন। তবে এই সিদ্ধান্তটা বিসিবি’র ওপর দিচ্ছেন ছেড়ে তাসকিনÑ‘কবে যাব, তা বলতে পারছি না। এটা নির্ভর করছে আমার উন্নতির উপর। কোচরা যখন মনে করবে, বিসিবি যখন মনে করবে, তখন যাব।’
তবে তাসকিনের অ্যাকশন সংশোধনের দায়িত্বটা বিসিবি তুলে দিয়েছে যার উপর, সেই বিশেষজ্ঞ বোলিং কোচ মাহাবুব আলী জাকি এক্ষুনি তাসকিনের উপর পুরোপুরি সন্তুষ্ট হতে পারছেন নাÑ‘তাসকিনের মূলশক্তি হচ্ছে পেস। তাসকিনকে ঠিক করতে গিয়ে পেস কমিয়ে ফেলা হয় তাহলে তাসকিন আর তাসকিন থাকবে না। তাহলে ওকে আর কেউ কেয়ার করবে না। আমার ফাস্ট ফোকাস হয়েছে তার পেস তারপর অন্যকিছু। ১৪০ কিলোমিটার গতিতে অনবরত বল করতে পারে যাতে, এটার উপরই আমি আমার ডিজাইন করেছি। ওর কোন কিছুই বদলাবো না। এই মুহূর্তে যদি বলা হয়, তাহলে আমি বলবো ৭০ ভাগেরও বেশি উন্নতি হয়েছে। নয়টা সেশনের মধ্যে তিনটা হিটিং সেশনে আসছি। বাকী ছয়টা সেশনই ছিল ড্রিল সেশন। ঐ সেশনগুলো অনেক কঠিন ছিল, তখন অনেক ওয়েটি বল, নন ওয়েটি বল ব্যবহার করতে হয়েছে। অনেক কষ্টের কিন্তু ও এমন একটা ছেলে খুব তাড়াতাড়ি শিখে ফেলে। ওর শরীর ও এমন কিছু যে তাড়াতাড়ি মানিয়ে নেয়।অফিশিয়ালি সিদ্ধান্ত হচ্ছে ইংল্যান্ড সিরিজের আগেই তাকে পাঠাবো। এর আগেই আমরা জানাবো। আরও কিছু সেশন রয়েছে। ওরও আমার কাছে পরীক্ষা দিতে হবে। যদি আমি সন্তুষ্ট থাকি আমার টিম সন্তুষ্ট থাকে তাহলেই তাকে আমরা পাঠাবো। এর আগে নয়।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন