ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

শ্রীলঙ্কা সফরের সিদ্ধান্ত এক সপ্তাহের মধ্যে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরের শেষ ভাগ এবং আয়ারল্যান্ড সফর আগেই স্থগিত হয়েছে। জুন মাসে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া দলের। দুই বোর্ডের সম্মতিতে স্থগিত সেই সিরিজও। এখন ঝুলে আছে শ্রীলঙ্কা সফর। ভবিষ্যৎ সফরস‚চি অনুযায়ী আগামী মাসেই বাংলাদেশ দলের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিনটি ম্যাচ খেলতে শ্রীলঙ্কায় যাওয়ার কথা। উপমহাদেশে শ্রীলঙ্কার করোনা পরিস্থিতিই সবচেয়ে ভালো। আর তা এতটাই যে মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর ব্যাপারেও আত্মবিশ্বাসী শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট। স্বাস্থ্যবিধি মেনে খেলোয়াড়েরা তো সেখানে অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছেন। আর এ মুহূর্তে শ্রীলঙ্কার অনুশীলনে নামা মানেই বাংলাদেশের নড়েচড়ে বসা। কিন্তু গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, পরিস্থিতির কারণে সিরিজটি জুলাই থেকে পিছিয়ে চলে যেতে পারে সেপ্টেম্বরে। লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড নাকি সে রকমই প্রস্তাব দিয়েছে বিসিবিকে। এ ছাড়া বাড়তি রাজস্বের আশায় শ্রীলঙ্কা ৩ টেস্টের সিরিজের পরিবর্তে ২টি টেস্ট ও ২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলতে চায়, এমন গুঞ্জনও আছে।
তবে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী উড়িয়ে দিয়েছেন সব গুঞ্জন। শ্রীলঙ্কার পক্ষ থেকে বিসিবির কাছে এ রকম কোনো প্রস্তাব আসেনি বলে জানিয়েছেন তিনি। বরং বলেছেন, ‘জুলাই মাসে সিরিজটি আয়োজন করা যায় কি না, শ্রীলঙ্কার বোর্ডের সঙ্গে এখনো সেটা নিয়েই আমাদের আলোচনা চলছে। আমরা এর সুবিধা–অসুবিধাগুলো বোঝার চেষ্টা করছি। তবে শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে সিদ্ধান্ত যা–ই হোক, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সেটি চূড়ান্ত হবে।’ সিরিজটি হলে দুই দলকে তো মাঠের প্রস্তুতি নিতে হবেই, আয়োজক হিসেবে শ্রীলঙ্কাকে নিতে হবে অন্যান্য প্রস্তুতিও। সে জন্যই এ নিয়ে আর দেরি করার সুযোগ নেই।
শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে আগামী দু-এক দিনের মধ্যে বিসিবির কর্মকর্তারা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনায় বসবেন বলে জানান নিজাম উদ্দিন চৌধুরী। অবশ্য কিছু প্রাক-আলোচনা এর মধ্যেই হয়ে গেছে এবং তাতে জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফরের পক্ষে-বিপক্ষে দুই রকম মতই পাওয়া গেছে বলে স‚ত্র জানিয়েছে।
করোনাভাইরাসজনিত অচলাবস্থা থেকে খেলায় ফেরার তিনটি উপায় দেখে বিসিবি। প্রথমত স্থগিত হয়ে যাওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়িয়ে, দ্বিতীয়ত ঘরের মাঠে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলে অথবা করোনায় অপেক্ষাকৃত কম আক্রান্ত কোনো দেশে সফর করে। তিনটির মধ্যে শুরুতে নিরাপদ কোনো দেশে গিয়ে সিরিজ খেলাটাকেই ঠিক মনে করেন কেউ কেউ।
বর্তমান স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে ১০-১২টি দল নিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করা সহজ কথা নয়। করোনাভাইরাসের মধ্যে এতগুলো দলের খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা দেখভালের দায়িত্ব বিসিবিকেই নিতে হবে। আর দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে হোম সিরিজ আয়োজনের তো প্রশ্নই ওঠে না। এর চেয়ে বিদেশ সফরের জন্য কোচ-খেলোয়াড়সহ ২০-২২ জনের একটি দলকে আলাদা করে ফেলাতেই বরং ঝুঁকি কম মনে হতে পারে।
কিন্তু দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে খেলার জন্য বিদেশে দল পাঠানো কতটা যুক্তিসংগত, সেই প্রশ্নও উঠছে। দেশে প্রতিদিনই করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, কমছে না মৃত্যু। এই অবস্থায় বিদেশে খেলতে যাওয়াটাকে মানুষ কীভাবে গ্রহণ করবে, সেটি ভাবনার বিষয় বৈকি। তা ছাড়া বর্তমান পরিস্থিতিতে পরিবার-পরিজন ফেলে আরেক দেশে খেলতে গিয়ে ক্রিকেটাররাই-বা কতটা মানসিক স্বস্তিতে থাকবেন! বিসিবির প্রধান নির্বাহী অবশ্য জানিয়েছেন, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ক্রিকেটারদের মতামত নেওয়া হবে।
তার আগে সিরিজ হবে ধরে নিয়েই অন্যান্য আয়োজন এগিয়ে রাখা হচ্ছে। নির্বাচকেরা যেমন প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন দল নির্বাচনের। সফরটি শেষ পর্যন্ত হলে প্রস্তুতি ক্যাম্পের জন্য ২০ বা তারও বেশি ক্রিকেটারকে ডাকা হতে পারে। কদিন আগে প্রস্তুতি ক্যাম্পের জন্য ইংল্যান্ড ৫৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজও ইংল্যান্ড সফরে নিয়ে যাচ্ছে ২৫ ক্রিকেটার। বাংলাদেশও একই পথে এগোতে পারে বলে আভাস দিলেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার, ‘অনুশীলন একটু ভিন্নভাবে হচ্ছে এখন। সে জন্যই সবাই বড় দল ঘোষণা করছে। আমরাও কোচ ও ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে এমন কিছু করার কথা ভাবছি।’
শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে দলের ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফদের নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আলাদা রাখার পরিকল্পনা করে রেখেছে বিসিবির মেডিকেল বিভাগ। বোর্ডের প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছেন, ‘সিরিজ খেলতে যাওয়ার আগে ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফদের একটা জৈব নিরাপদ জায়গায় রাখা হবে। তা না হলে আমরা যে দেশে সফর করব, তারাও মানবে না।’
সফরটা শেষ পর্যন্ত হলে বিসিবির জৈব নিরাপদ জায়গা হতে পারে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি ভবন। ক্যাম্পের সময় হয়তো এখানেই থাকতে হবে দলের সবাইকে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন