সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

রিয়ালের ফ্রি-কিকম্যান রামোস

অভিষেকেই ‘মেক্সিকান মেসি’র রেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

স্প্যানিশ লা লিগার শীর্ষস্থান নিয়ে চলছে দারুণ লড়াই। পর্যায়ক্রমে হাতবদল হচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা মধ্যে। সেই ধারাবাহিকতায় কাতালানদের হটিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আবারও পয়েন্ট তালিকার এক নম্বর জায়গাটা দখল করে নিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল।
গতপরশু রাতে ঘরের মাঠ আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে রিয়াল মায়োর্কাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল। দলটির হয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়ুস জুনিয়র ও স্প্যানিশ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস। এই জয়ে ৩১ ম্যাচ শেষে রিয়ালের পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ৬৮। সমান ম্যাচ খেলা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার পয়েন্টও একই। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে পিছিয়ে থাকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তারা।
চার পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নামা রিয়াল বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও এগিয়ে ছিল। তারা মায়োর্কার গোলমুখে শট নেয় মোট ১৪টি, যার ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। এর মধ্যে দুটি থেকে গোল আদায় করে নেয় স্বাগতিকরা। ম্যাচ জুড়ে দুর্দান্ত খেলা ভিনিসিয়ুসের প্রচেষ্টা ক্রসবার আটকে না দিলে ব্যবধান বাড়তে পারত আরও। ম্যাচের ১৯তম মিনিটে এগিয়ে যায় রিয়াল। ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচের পাসে ডি-বক্সের ভেতর থেকে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল জালে পাঠান ১৯ বছর বয়সী এই তরুণ। চলতি আসরে এটি তার তৃতীয় গোল।
দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ৫৬তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক রামোস। ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে ডান পায়ের অসাধারণ ফ্রি-কিকে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। সপ্যানিশ ডিফেন্ডারের বদৌলতে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো পরবর্তি যুগে ৫২৮ দিন পর ফ্রি-কিকে গোল পেল রিয়াল। এই নিয়ে টানা দুই ও ‘নতুন রূপে’ লিগ ফেরার পর চার ম্যাচের তিনটিতে জালের দেখা পেলেন রামোস। আসরে তার মোট গোল হলো আটটি, রিয়ালের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ! দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৭ গোল বেনজেমার।
ম্যাচ শেষে গোলটি নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন কোচ, ‘তার গোল নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত, এটি গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সে আমাদের অধিনায়ক, আমাদের নেতা। ডিফেন্সে সে আরও একবার সুর বেঁধে দিয়েছে এবং অন্য প্রান্তে গিয়েও... তার গোলটি নিয়ে আমি খুবই খুশি। ফ্রি-কিক নিয়ে সে কাজ করছে। তার জন্য এটি তাই তৃপ্তিদায়ক, আমাদের জন্যও।’ ক্যারিয়ারের শেষ দিনটি পর্যন্ত রামোসকে রিয়ালে দেখতে চান, জানিয়ে দিলেন জিদান, ‘সার্জিও এখানকার আপন একজন। অনেক বছর ধরে সে এখানে আছে এবং ওর উচিত, এখানে থেকেই অবসরে যাওয়া। আমি এটিই মনে করি এবং এই ভাবনায় অটল থাকব।’
তালিকার ১৮ নম্বরে থাকা মায়োর্কা পয়েন্টের দেখা না পেলেও তাদের নাম জুড়ে গেছে রেকর্ডের পাতায়। ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে বদলি হিসেবে খেলতে নামেন দলটির ১৫ বছর ২১৯ দিন বয়সী ফুটবলার লুকা রোমেরো। লা লিগার ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে অভিষেক হয়েছে তার। ভেঙে দিয়েছেন ৮০ বছরের পুরনো ইতিহাস। খেলার ধরনে লিওনেল মেসির সঙ্গে মিল থাকায় অনেক আগেই ‘মেক্সিকান মেসি’ তকমা পেয়েছেন এই অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। তবে মজার ব্যাপার হলো, জন্ম মেক্সিকোতে হলেও তিনি এখন খেলছেন আর্জেন্টিনার বয়সভিত্তিক দলে। গেল মার্চে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের অনূর্ধ্ব-১৭ দলেও ডাক মেলে তার।
এতদিন এটি দখলে রেখেছিলেন সেল্টা ভিগোর সাবেক ডিফেন্ডার ফ্রান্সিস্কো বাও রদ্রিগেজ, যিনি স্যানসন নামে পরিচিত ছিলেন। ১৯৩৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর মাত্র ১৫ বছর ২৫৫ দিন বয়সে লা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে অভিষেক হয়েছিল তার। ম্যাচ শেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নিজের প্রতিক্রিয়া জানান রোমেরো, ‘ওই (মাঠে নামার) মুহ‚র্তটি ছিল অবিস্মরণীয়। আমাকে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য টেকনিক্যাল স্টাফ ও রিয়াল মায়োর্কার প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাই। এই দিনটি আমি কখনোই ভুলব না। হেরে যাওয়াটা কষ্টদায়ক বটে, তবে আমরা বিশ্বাস রাখছি।’
অপার সম্ভাবনাময় রোমেরোর ব্যাপারে ইতোমধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বার্সেলোনা ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। স্প্যানিশ পরাশক্তি বার্সাতে আগেও একবার ট্রায়াল দিয়েছিলেন তিনি, ২০১১ সালে। কিন্তু তার বয়স তখন ১০ বছরের কম থাকায় ন্যু ক্যাম্পে যোগ দেওয়া হয়নি। পরবর্তীতে ২০১৫ সালে তাকে দলে টেনে নেয় মায়োর্কা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন