ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মালয়েশিয়ায় লকডাউন ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়লো

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০২০, ২:১৪ পিএম

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় এবার বছরজুড়ে এমসিও রাখার সিদ্ধান্ত নিলো মালয়েশিয়া। গতকাল (শুক্রবার) জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর এ সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তানশ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন।

টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এ ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিদিনের নতুন নতুন সংক্রমণ এবং সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার বা এমসিও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এমসিও’র পাশাপাশি স্টান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেম বা এসওপি মেনে চলতে সবাইকে পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।
তিনি বলেন, এখনও পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে। তবে বিশেষ কোনো স্থানে যদি সংক্রমণ বেড়ে যায় তাহলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। একইসঙ্গে এমসিও বা এসওপি ভঙ্গকারীদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।
নতুন এ ঘোষণায় বিদেশি পর্যটকদের আসার যে নিষেধাজ্ঞা ছিল তা বহাল রাখা হয়েছে। আরএমসিও এর মধ্যে নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা সবকিছুই বহাল রাখা হয়েছে। এর ফলে যেসব অভিবাসী নিজ নিজ দেশে আটকা পড়েছেন তাদের মালয়েশিয়ায় ফেরা নিয়ে শঙ্কা আরো ঘনীভূত হলো।
উল্লেখ্য, মহামারী করোনা প্রতিরোধে গত ১৮ মার্চ থেকে মালয়েশিয়া জুড়ে ঘোষণা করা হয় নিয়ন্ত্রণ আদেশ। যা ধাপে ধাপে ৫ দফা বাড়িয়ে চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। তবে গত ৫ম পর্বের আরএমসিওতে কিছু শর্ত সাপেক্ষে নিয়ন্ত্রণ আদেশ শিথিল করা হয়েছে।
দেশটিতে শনিবার পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৩০৬ জন। মারা গেছেন ১২৫ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৯ হাজার ৩০ জন।
এদিকে মালয়েশিয়ায় কিছু বিশেষ ফ্লাইট চালু হলেও আপাতত বাংলাদেশ থেকে কেবল ট্রানজিট যাত্রী, মালয়েশিয়ান নাগরিক, যারা মালয়েশিয়ার নাগরিক বিয়ে করেছেন অথবা সেকেন্ডহোম কর্মসূচীর আওতায় মালয়েশিয়ায় বিনিয়োগ করেছেন এবং স্টুডেন্ট ও প্রফেশনাল ভিসায় থাকা ব্যক্তিদেরই আপাতত মালয়েশিয়ায় প্রবেশের অনুমতি রয়েছে।
বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিকরা এখনই মালয়েশিয়ায় যেতে ও দেশে ফেরার সুযোগ পাচ্ছেন না। তবে মালয়েশিয়ার সীমান্ত শিথিল করার পর কোভিড ১৯ সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় খুব শীঘ্রই এই নিয়ে বৈঠকে বসবেন এবং কিছু কিছু জায়গায় পরিবর্তন আনার কথাও জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন